আদম ব্যবসার প্র*তারণা বন্ধে পোস্টার হাতে রাস্তায় মোশাররফ করিম

আদম ব্যবসার নামে প্রতারণা বন্ধ হোক দাবি তুলেছেন মোশররফ করিম। আর এজন্য পোস্টার বানিয়ে রাস্তায় নেমেছেন ছোট পর্দার জনপ্রিয় এই অভিনেতা।পোস্টারে আদম ব্যবসায়ীদের শাস্তিও দাবী করেন তিনি। তবে এই দাবি বাস্তবে নয়, আদম শিরোনামের নাটকে এমন চরিত্রেই দেখা মিলবে তার।

শিখর শাহনিয়াত পরিচালিত এ নাটকে দেশের আদম ব্যবসায়ীদের প্রতারণার বিষয় তুলে ধরা হয়েছে। সাধারণ মানুষকে ঠকিয়ে যেভাবে আদম ব্যবসায়ীরা ফাঁদে ফেলে প্রতারণা করে যাচ্ছে তারই চিত্র ফুটে ওঠবে এই নাটকে।নাটকের বিভিন্ন চরিত্রে অভিনয় করেন মোশারফ করিম, তাসনিয়া ফারিন, নিকুল কুমার মন্ডল, সেলজুক তারিকি, ইমরান হাসো প্রমুখ।

সৌদি আরবে ওমরাহ হজ পালন করলেন পূর্ণিমা

বাংলা চলচ্চিত্রের চিত্রনায়িকা দিলারা হানিফ পূর্ণিমা ওমরাহ হজ পালন করেছেন। মা ও মেয়েকে নিয়ে কাবাঘর তওয়াফ করেছেন তিনি।বৃহস্পতিবার (২ জানুয়ারি) রাতে পূর্ণিমা নিজেই তার ভক্তদের সঙ্গে শেয়ার করেছেন মক্কা শরিফের ছবি।ছবিটিতে দেখা যাচ্ছে, মেয়েকে কোলে নিয়ে কাবাঘরের সামনে

দাঁড়িয়ে আছেন তিনি। একটা সাদা রঙের বোরকা পরে আছেন ঢাকাই সিনেমার মিষ্টি নায়িকা পূর্ণিমা। এই ছবির ক্যাপশনে তিনি লিখেছেন, ‘আল্লাহু আকবার’।গত ৩০ ডিসেম্বর ওমরাহ হজ পালনের উদ্দেশে ঢাকা ছাড়েন পূর্ণিমা। তিনি জানিয়েছেন, সবকিছু ঠিক থাকলে আগামী ৮ জানুয়ারি দেশে ফিরবেন নায়িকা।জাকির হোসেন রাজুর পরিচালনায় ১৯৯৭ সালে রিয়াজের বিপরীতে ‘এ জীবন তোমার আমার’ ছবি দিয়ে চলচ্চিত্রে অভিষেক ঘটে তার। এরপর

বাকিটুকু সাফল্যেমাখা এক গল্প। দীর্ঘ ক্যারিয়ারে পূর্ণিমা উপহার দিয়েছেন বহু ব্যবসাসফল সিনেমা। রিয়াজ, রুবেল, মান্না,আমিন খান, ফেরদৌস, শাকিব খানদের মতো ইন্ডাস্ট্রির সেরা নায়কদের বিপরীতে কাজ করে সফল হয়েছেন।তার উল্লেখযোগ্য ছবির মধ্যে আছে- ‘মনের মাঝে তুমি’, ‘হৃদয়ের কথা’, ‘জামাই শ্বশুর’, ‘স্বামী-স্ত্রীর যুদ্ধ’, ‘যোদ্ধা’, ‘ভালোবাসার লাল গোলাপ’, ‘শাস্তি’ ও ‘শোভা’। ২০১০ সালে ওরা আমাকে ভালো হতে দিল না‘ ছবির জন্য জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পান তিনি সেরা অভিনেত্রী হিসেবে।বর্তমানে নঈম ইমতিয়াজ নেয়ামুল পরিচালিত ‘গাঙচিল’ ও ‘জ্যাম’ নামে দুটি ছবি মুক্তির

অপেক্ষায় আছে পূর্ণিমার। তার মধ্যে ‘গাঙচিল’ ছবিতে পূর্ণিমার নায়ক ফেরদৌস এবং‘জ্যাম’ ছবিতে আরিফিন শুভ। দুটি ছবি চলতি বছর মুক্তি পাবে বলে জানা গেছে।ব্যক্তিজীবনে ২০০৭ সালের ৪ নভেম্বর পারিবারিকভাবে আহমেদ জামাল ফাহাদকে বিয়ে করেন পূর্ণিমা। ২০১৪ সালের ১৩ এপ্রিল তিনি প্রথম কন্যাসন্তানের মা হন। তার মেয়ের নাম আরশিয়া উমাইজা।

অবশেষে নতুন বছরে বিয়ের ঘোষণা দিলেন বুবলি

ঢালিউডের এ সময়ের নায়িকা শবনম বুবলি। এ পর্যন্ত বারোটি চলচ্চিত্রে অভিনয় করেছেন।এর মধ্যে মুক্তি পেয়েছে নয়টি চলচ্চিত্র। নতুন বছরে মুক্তির অপেক্ষায় আছে আরো তিনটি। নতুন বছরে দর্শকের আরো বেশি ভালোবাসা প্রত্যাশা করেন বুবলি।নায়িকা জানান, দর্শকের ভালোবাসাই তার অনুপ্রেরণা।

ব্যক্তিজীবনে ৩১ বছরের বুবলি এখনো একা। অর্থাৎ আজও মেলেনি প্রকাশ্য প্রেমের সন্ধান। মা-বাবা, ভাইবোন নিয়েই বুবলির পরিবার। তবে সংসারজীবনে যে প্রবেশ করবেন, সেটা নিশ্চিত করেছেন এ তারকা।বুধবার বুবলি বলেন, আসলে একটা বয়সে এসে নিজের পরিবার বলতে স্বামী-স্ত্রী, সন্তান ইত্যাদি বোঝায়। তবে আমার কাছে বর্তমানে পরিবার মানে মা-বাবা, ভাইবোন আর চলচ্চিত্র।বিয়ে নিয়ে এখনো ভাবিনি। নতুন বছরটি আমি কাজ নিয়েই ভাবতে

চাই। যখন বিয়ে করব, তখন সবাইকে জানিয়েই করব।বুবলির ক্যারিয়ার শুরুর পর থেকে প্রতিটি ছবি শাকিব খানের বিপরীতে। সম্প্রতি নিরবের বিপরীতে
‘ক্যাসিনো’ নামের ছবিতে অভিনয় করছেন। শাকিব খানের বাইরেও আরো নায়কের সঙ্গে কাজ করবেন জানিয়ে বুবলি বলেন, সব সময় চাই সুন্দর-পরিপাটি গল্প, গোছানো প্রজেক্ট; যা দর্শক পছন্দ করবেন। শুরু থেকেই সবার সঙ্গে কাজ করার কথা বলেছি। প্রজেক্ট পছন্দ না হওয়ার কারণে করা হয়নি।

বেশ কিছু প্রজেক্ট নিয়ে কথা চলছে। আশা করি, নতুন বছরে নতুন খবর দেব।নতুন বছরের শুভেচ্ছা জানিয়ে বুবলি বলেন, সবাইকে নতুন বছরের শুভেচ্ছা। আপনাদের ভালোবাসায় আমি নতুন নতুন কাজ করছি। কাজ করার অনুপ্রেরণা পাচ্ছি। সবাই আমার জন্য দোয়া করবেন, আমার পরিবারের জন্য দোয়া করবেন। আমরা যেন সুস্থ-সুন্দর জীবন কাটাতে পারি।

অঞ্জনার ‘স্বভাব পাকিস্তানি’ বলে ধিক্কার মনির খানের

অঞ্জনা শিরোনামের গানের কারণে ব্যাপক জনপ্রিয়তা পেয়েছিলেন মনির খান। সংগীত ক্যারিয়ারের প্রত্যেকটি অ্যালবামে রেখেছেন অঞ্জনা শিরোনামের বিশেষ গান।অধিংকাশ গানই শ্রোতামহলে ব্যাপক সাড়া ফেলেছে। ভক্তদের অনুরোধে ফের অঞ্জনাকে নিয়ে নতুন গান গেয়েছেন তিনি।গানের শিরোনাম ‘অঞ্জনা

২০২০’। সম্প্রতি এমকে মিউজিক’র ইউটিউবে প্রকাশ পায় গান-ভিডিও ‘অঞ্জনা ২০২০২’। এটি অঞ্জনাকে নিয়ে মনির খানের ৪৩তম গান।তিনি জানান, শ্রোতাদের মধ্যে অন্যরকম প্রতিক্রিয়া সৃষ্টি করার একটি প্রয়াস আমাদের এ গান। প্রকাশের পর থেকেই বেশ ভালো সাড়া পাচ্ছি।ওরে তোর শরীরে মীর জাফরের রক্ত/তোর পিতা-মাতা সীমারের ভক্ত/রাজাকারের মতো যে তুই করলি বেঈমানি/বাংলাদেশে জন্ম যে তোর স্বভাব পাকিস্তানি/দেশের প্রতি প্রেমের

প্রতি ছিল না যে টান/তবু তোর প্রতি আছে আমার আজও অনেক সম্মান/লোকে বলে বলে রে অঞ্জনা বড় বেঈমান- এমন কথার গানটির কথা, সুর ও সংগীত করেছেন মনির খান।

এবার অ’ভিনেত্রী মাহির সংসারে ভাঙনের সুর

তারকাদের প্রে’ম, বিয়ে, বিচ্ছেদ নিয়ে শোবিজ অঙ্গনে প্রায়ই গুঞ্জন রটে থাকে। কখনো সেই গুঞ্জন সত্যি হয়ে বেরিয়ে আসে সবার সামনে, আবার কখনো তা গুঞ্জন হিসেবেই থেকে যায়।মিডিয়া পাড়ায় অনেকদিন ধরেই শোনা যাচ্ছে, ভালো নেই চিত্রনায়িকা মাহিয়া মাহি। সংসার জীবনের ইতি টানার পথেই

হাঁটছেন অ’গ্নি’খ্যাত এই নায়িকা। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন মাহির একাধিক ঘনিষ্টসূত্র।জানা গেছে, বেশ কয়েক মাস ধরে স্বামী পারভেজ মাহমুদ অ’পুর সঙ্গে তার বনিবনা হচ্ছে না। থাকছেন আলাদাও।এমনকি সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমগুলোতেও মাহির পোস্ট করা ছবিতে দেখা যায় না অ’পুকে। যদিও এ বিষয়ে মাস কয়েক আগে মুখ খু`লেছিলেন মাহিয়া মাহি।ওই সময় মাহি বলেছিলেন, ‘ব্যক্তিগত অ’ভিমানের কারণে আপাতত অ’পুর সঙ্গে ছবি প্রকাশ করছেন না তিনি।’ তাও গত বছরের শুরুর কথা। এর মধ্যেও তাদের ‘ব্যক্তিগত অ’ভিমান’ ভাঙেনি, এমনটাই বলছে ফেসবুক ও ইনস্টাগ্রাম। এখনও মাহি-

অ’পু কেউই ফেসবুক কিংবা ইনস্টাগ্রামে একসঙ্গে কোনো ছবি প্রকাশ করেনি।ঘনিষ্টসূত্র থেকে আরও জানা যায়, মাহি এখন তার ফ্যাশন হাউজ ‘ভারা’ নিয়ে ব্যস্ত সময় পার করছেন। আর অ’পু ব্যস্ত আছেন তার সিলেটের ব্যবসা নিয়ে।এদিকে, বছরের প্রথম’দিন মাহির ফেসবুক পোস্ট ‘গুঞ্জনের আ’গুনে’ নতুন করে ঘি ঢালে।মাহি তার ফেসবুকে পোস্টে লিখেছেন- ‘১৯৯৩-২০১৯ পর্যন্ত আমা’র প্রথম realisation।আমা’র জীবনে এখনো কোনো প্রথম ভালোবাসা/ সত্যিকারের ভালোবাসা আসেনি।’ আর নতুন বছর মাহি উদযাপন করেছেন তার বন্ধুদের সঙ্গে। সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমগুলোতে সেই

ছবিই প্রকাশ করেছেন তিনি। সেখানেও দেখা যায়নি অ’পুকে।এছাড়াও জানা যায়, শোবিজ অঙ্গনের কোনো অনুষ্ঠান কিংবা শুটিং সেটে অ’পুকে এখন আর দেখা যায় না। সর্বশেষ মোস্তাফিজুর রহমান মানিকের ‘আনন্দ অশ্রু’র শুটিংয়েও আসেননি অ’পু। কিন্তু একটা সময় মাহির প্রায় সব ছবির শুটিংয়ে অ’পুকে দেখা গেছে।তাহলে কী’’ সত্যি মাহি-অ’পু আলাদা পথে হাঁটছেন? বিষয়টি জানতে একাধিকবার মাহিকে ফোন করা হলেও তাকে পাওয়া যায়নি।
তবে এ বিষয়ে কথা বলেছেন অ’পু। তিনি বলেন, ‘আসলে এমন কিছুই না। গত পরশুদিন আমি ঢাকা থেকে সিলেটে এসেছি। আর এসব যা হচ্ছে, তা

শুধুই গুঞ্জন। এর বাইরে আর কিছুই না।’তিনি আরও বলেন, ‘একটা সংসারে চলতে গেলে স্বাভাবিক কিছু সমস্যা হতেই পারে। আর আমি হলাম মিডিয়ার বাইরের মানুষ, মাহি মিডিয়ার। ফলে আমাদের মধ্যে বনিবনা নিয়ে একটু ঝামেলা হতেই পারে। এর বাইরে আর কিছুই না।’এদিকে, আগামী পরশু কি’শোরগঞ্জে শুরু হচ্ছে ‘আনন্দ অশ্রু’র শেষ অংশের শুটিং। ছবির শুটিংয়ে অংশ নিতে আগামীকাল শুক্রবার কি’শোরগঞ্জ রওনা হবে মাহিয়া মাহি,

সাইমন সাদিক, আলীরাজসহ অনেকে। এমনটাই জানিয়েছেন ছবির নির্মাতা মোস্তাফিজুর রহমান মানিক। এখন দেখার পালা, শুটিং সেটে অ’পুকে দেখা যায় কি না।উল্লেখ্য, ২০১৬ সালের ২৪ মে চিত্রনায়িকা মাহিয়া মাহি ও মাহমুদ পারভেজ অ’পুর বিয়ে সম্পন্ন হয়। দুজনের মধ্যে পূর্ব পরিচয় থাকলেও উভ’য় পরিবারের সম্মতিতেই বিয়ে করেন মাহি-অ’পু। এর আগে, ওই বছর ১২ মে গো’পনে মাহি ও অ’পুর বাগদান হয়।

আমার জীবনে এখনো সত্যিকারের ভালোবাসা আসেনি: মাহি !

ঢালিউডের জনপ্রিয় অভিনয়শিল্পী মাহিয়া মাহি আলোচনায় নেই বেশ কিছুদিন ধরে। সিনেমার এই মন্দা সময়েও তার সমসাময়িক কয়েকজন নায়িকাকে কমবেশী সিনেমার শুটিং করতে দেখা গেলেই আলোচনায় নেই তিনি।

বেশ কিছুদিন ধরেই কোনো কিছুতেই তাকে দেখা যাচ্ছে না। নেই কোনো আলোচনাতেও। বিভিন্ন ধরনের অনুষ্ঠানে দেখা গেলেও মাহি কোনো খবরে নেই। সহশিল্পীরাও মাহির খবর জানেন না। তবে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে সরব এই অভিনেত্রী।সম্প্রতি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে একটি পোস্ট করেছেন তিনি। স্ট্যাটাসটি সময় সংবাদের পাঠকের জন্য তুলে দেয়া হল। তিনি লিখেছেন, ‘১৯৯৩-২০১৯ পর্যন্ত আমার প্রথম realisation আমার জীবনে এখনো কোনো প্রথম ভালোবাসা/সত্যিকারের ভালোবাসা আসেনি।’

২০১৭ সালের ২৫ মে বিয়ের পিঁড়িতে বসেন মাহিয়া মাহি। তার স্বামী সিলেটের বড় ব্যবসায়ী। চেনা-জানার মাধ্যমে চার বছর পর বিয়ে করেন তারা। বিয়ের পরই পুরোপুরি সাংসারিক হয়ে ওঠেন তিনি।

চলতি বছর থেকে পরীক্ষায় ফেল করলে বিয়ে করা যাবে না

ইন্দোনেশিয়ায় বিবাহ বিচ্ছেদের সংখ্যা বাড়ছে। তাই দেশটির সরকার চিন্তিত। গত বছরের নভেম্বরে সরকারিভাবে সিদ্ধান্ত হয়েছিলো বিয়ে করার নতুন নিয়ম। এবছর থেকে কার্যকর হচ্ছে । বছরের প্রথম দিনেই ইন্দোনেশিয়া সরকার এ ব্যাপারে কঠোর পদক্ষেপ নিতে যাচ্ছে বলে জানিয়েছে। খবর ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস

ও ইন্দোনেশীয় সংবাদ সংস্থা এফেন্দি।ইন্দোনেশিয়ার হিউম্যান ডেভেলপমেন্ট অ্যান্ড কালচারাল অ্যাফেয়ার্স কো-অর্ডিনেটিং মন্ত্রী মুহাদজির এফেন্দি সংবাদ সংস্থাকে জানান, নব দম্পতিরা যাতে শান্তিতে সংসার করতে পারেন, সে কারণেই প্রি-ওয়েডিং কোর্সের ভাবনা। সরকারের এই প্রি-ওয়েডিং কোর্সের পাঠক্রমে থাকছে যৌন শিক্ষা, সন্তান কীভাবে মানুষ করবেন তার প্রশিক্ষণ।এ জন্যই পরীক্ষার ব্যবস্থা।এ পরীক্ষার নাম ‘প্রি ওয়েডিং কোর্স।’ কোর্স মাত্র তিন

মাসের। এ পরীক্ষায় আশানুরুপ ফল পেলেই সরকার দিবে প্রশংসাপত্র। এরপরই বিয়ের অনুমতি মিলবে। প্রশংসাপত্র। কীভাবে সংসারের দৈনন্দিন কাজ সামলে দাম্পত্য জীবন সুখের করে তোলা করা যায়, থাকছে সেই প্রশিক্ষণও। থাকছে এই কোর্সে কিভাবে সংসারকে টিকিয়ে রাখা যায় এসবের কলাকৌশল।

স্ত্রীকে খুশী রাখুন এই ৯ কৌশলে

হয়তো আপনার স্ত্রী খুব খারাপ সময় পার করছে বা হয়তো সে ভালোই রয়েছে। যাই হোক না কেন, সংসার ঠিকঠাক রাখতে হলে স্ত্রীকে সুখি রাখাটা কিন্তু কম গুরুত্বপূর্ণ নয়। রুটগার্স বিশ্ববিদ্যালয়ের একটি গবেষণায় বলা হয়েছে, সংসারে স্বামীর তুলনায় স্ত্রীকে সুখী রাখা বেশি কঠিন। আপনার কী মনে হয়? তাই নয় কি? তাই, আজ আপনাদের জানাব স্ত্রীকে খুশী রাখার কিছু কৌশলের কথা। কৌশলগুলো লেখা হয়েছে লাভ লানিং ওয়েবসাইটের প্রতিবেদনের ওপর ভিত্তি করে।

১. ফোন করুন
বাজার-সদাই, বাচ্চার স্কুল, টাকা- পয়সা ইত্যাদি বিষয় নিয়ে তো স্ত্রীর সঙ্গে ফোনে সবসময়ই কথা বলেন। তবে এর বাইরেও তাকে ফোন করুন। ‘হ্যালো’ বলুন বা তাকে বলুন, আপনি তাকে মিস করছেন। দেখবেন, সে খুশি হবে।

২. ফুল কিনুন
এটা আসলে কোনো ‘রকেট সায়েন্স’ নয়। তবে ফুল, চকলেট বা ছোট ছোট কোনো উপহার স্ত্রীকে দিলে সে কিন্তু খুশিই হয়। সে বুঝবে আপনি তার পছন্দ-অপছন্দের প্রতি যত্নবান।

৩. তার কথা শুনুন
সবাই চায় মানুষ তার কথা শুনুক ও তাকে বুঝতে পারুক। মানুষ চায় আসলেই কেউ তার বন্ধু হোক। আপনিও সে কৌশলটি অবলম্বন করুন। স্ত্রীর কথা শুনুন এবং বোঝার চেষ্টা করুন, হোক না সেটা যত অপ্রয়োজনীয়। তাকে বিচার করার আগে তার আবেগকে গুরুত্ব দিন। এই অভ্যাসটি কিন্তু স্ত্রীর মন গলাতে কাজে দেবে।

৪. ঘরের কাজে সহযোগিতা
আধুনিক জীবন খুব চাপযুক্ত। এখন ছেলেমেয়ে উভয়েই বাইরে কাজ করে। সারা দিন অফিস করে এসে ঘরের কাজ করতে গেলে আপনার যেমন ক্লান্ত অনুভব হবে, আপনার স্ত্রীর ক্ষেত্রেও কিন্তু বিষয়টি তাই। তাই ঘরের কাজে স্ত্রীকে সাহায্য করুন।

৫. আপনি যত্নবান, বিষয়টি বোঝান
আপনি তার প্রতি যত্নবান— এ বিষয়টি তাকে বোঝানোর চেষ্টা করুন। তাকে ভালোবাসার কথা বলুন। বিয়ের পর অনেক দম্পতির মধ্যেই এ বিষয়টি আর হয় না। তবে ‘ আমি তোমাকে ভালোবাসি’- এ ছোট্ট কথাটি সম্পর্কের ভেতরে প্রাণ আনতে সাহায্য করে। তাই লজ্জা ছেড়ে ভালোবাসার কথা বলুন।

৬. স্বপ্ন পূরণে সাহায্য করুন
আপনি আপনার স্ত্রীর স্বপ্ন পূরণে সাহায্য করলে সে আপনার প্রতি নির্ভর করবে এবং বুঝতে পারবে আপনি তাকে গুরুত্ব দিচ্ছেন। আর এতে সে খুশিও হবে।

৭. ‘হ্যাঁ’ বলুন
এই শব্দটি খুব সহজ। কিন্তু স্ত্রীর মন জয়ের জন্য বেশ উপকারী। তার পরামর্শ বা আইডিয়ার প্রসংশা করুন এবং ‘হ্যাঁ’ বলুন। আর যদি বিষয়টি আপনার মতের সঙ্গে নাও মিলে তাহলে নরমভাবে ভিন্নমতটি বলুন এবং আপনার মতটি তার মতের তুলনায় কেন ভালো সেটি বুঝিয়ে বলুন। দেখবেন, সে গলে যাবে।

৮. সময় দিন
বেশির ভাগ দম্পতির সম্পর্কে একটি পর্যায়ে এক ধরনের একঘেয়েমি চলে আসে। এ একঘেয়েমি দূর করতে নিজেদের মধ্যে সময় কাটান। কোথাও বেড়াতে যান বা বাইরে খেতে যান। প্রায়ই এ কাজগুলো করুন। এ বিষয়টিও আপনার স্ত্রীর মেজাজ ঠাণ্ডা রাখবে।

৯. জড়িয়ে ধরুন
জানেন কি জড়িয়ে ধরা মন ও স্বাস্থ্যকে ভালো রাখে? আমরা যখন কেউ কাউকে জড়িয়ে ধরি তখন মস্তিষ্ক থেকে ভালো অনুভূতির হরমোন বের হয়। আর এটি আমাদের সুখী করে। তাই স্ত্রীকে প্রায়ই জড়িয়ে ধরুন। এতে সম্পর্ক শক্ত না হলেও, নষ্ট হবে না।

অঞ্জনাকে রাজাকার-মীর জাফরের সঙ্গে তুলনা করে আলোচনায় মনির খান

সংগীত ক্যারিয়ারের শুরু থেকেই দারুণ জনপ্রিয় মুনির খানের গানের নায়িকা অঞ্জনা। তারপ্রায় প্রতিটা অ্যালবামেই অঞ্জনাকে নিয়ে গান গেয়েছেন তিনি। শ্রোতাপ্রিয় হয়েছে এসব গান। প্রায় দুই বছর এ বিষয় নিয়ে নতুন কোনো গান প্রকাশ করেননি মনির খান।ভক্তরা তাড়া দিচ্ছেন অঞ্জনাকে নিয়ে নতুন গান

করার জন্য। ভক্তদের মন রাখতেই ২০২০ সালের প্রথম দিনই মনির খান প্রকাশ করলেন নতুন গান ‘অঞ্জনা ২০২০’।‘তোর শরীরে মীর জাফরের র**ক্ত, তোর পিতা-মাতা সীমারেরও ভক্ত, রাজাকারের মতো যে তুই করলি বেইমানি, বাংলাদেশে জন্ম যে তোর স্বভাব পাকিস্তানি, দেশের প্রতি প্রেমের প্রতি ছিলো না যে টান,তবু তোর প্রতি আছে আমার আজও অনেক সম্মান, লোকে বলে বলেরে অঞ্জনা বড় বেইমান’ এমনই কথার গানটি লেখার পাশাপাশি সুর ও

সংগীতায়োজন করেছেন মিল্টন খন্দকার।মনির খান বলেন, অঞ্জনাকে নিয়ে এটা তার গাওয়া ৪৩তম গান। বুধবার বিকেলে গানটি প্রকাশ হয়েছে এমকে মিউজিক২৪ এর ব্যানারে।নতুন গান নিয়ে মনির খান বলেন, ‘প্রায় দুই বছর বিরতি দিয়ে অঞ্জনা সিরিজের গান প্রকাশ করলাম। অনেকেই আমাকে বলছিলেন অঞ্জনাকে নিয়ে নতুন গান পাচ্ছি না। মিল্টন ভাইয়ের সঙ্গে এ বিষয়টি নিয়ে ১৫-২০ দিন ধরেই আলোচনা চলছিল।গানটিতে বেইমানের প্রতীক

হিসেবে রাজাকার, মিরজাফর, সীমার, পাকিস্তানি, নমরুদ এমন বেশকিছু শব্দ ব্যবহার করা হয়েছে।’বছরের নতুন পরিকল্পনা নিয়ে মনির খান বলেন, ‘২০১৯ সালের শেষ দিকে আমি ও মিল্টন ভাই মিলে ১০০ নতুন গান করার পরিকল্পনা করেছি। এর মধ্যে প্রায় ৩০টির মতো গানের রেকর্ডিং শেষ হয়েছে। এমকে মিউজিক টুয়েন্টি ফোর ইউটিউব চ্যানেলে প্রকাশ হবে।’

শ্রীদেবীর ছোট মেয়ের কাছে পাত্তাই পেলো না শাহরুখের ছেলে

বলিউড বাদশাহ শাহরুখ খানের ছেলে আরিয়ান খানকে যেন পাত্তাই দিলেন না প্র‍য়াত সুপারস্টার শ্রীদেবীর ছোট মেয়ে খুশি কাপুর। শোনা যাচ্ছে বড় বোন জাহ্নবী কাপুরের মতো খুশি কাপুরেরও স্বপ্ন রুপালি পর্দার তারকা হিসেবে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করার।আর সে স্বপ্নের পালে দোলা লাগে যখন শোনা যায়

বলিউড পরিচালক ও প্রযোজক করণ যোহর তাকে অভিষেক করাতে আগ্রহী। গুঞ্জন শোনা যাচ্ছিল করণের হাত ধরেই অভিষেক ঘটবে খুশি কাপুর ও শাহরুখ পুত্র আরিয়ান খানের। কিন্তু আরিয়ানের ব্যাপারে কোনো আগ্রহ দেখা গেলো না খুশির।সম্প্রতি নেহা ধুপিয়ার উপস্থাপনায় টিভি শো ‘নো ফিল্টার নেহা’ তে উপস্থিত হয়েছিলেন শ্রীদেবীর দুই কন্যা জাহ্নবী আর খুশি।সেখানেই এ বিষয়ে নেহা জানতে চান শাহরুখ খানের ছেলে আরিয়ান খান, চাঙ্কি পান্ডের ভ্রাতুষ্পুত্র অহন পান্ডে ও জাভেদ জাফরির ছেলে মিজান জাফরি এ তিন তরুণের মাঝে নিজের অভিষেক সিনেমায় সহকর্মী হিসেবে কাকে চান

খুশি?সবাইকে অবাক করে দিয়ে আরিয়ান খানকে এড়িয়ে গিয়ে অহনের কথা বললেন খুশি। আরিয়ানের ব্যাপারে কোনো মন্তব্যই করলেন না।খুশি কাপুর
আরও জানান, তার প্রথম ছবির নায়ক কে হবে, তা ঠিক করে দেবেন বাবা বনি কাপুর। যদি খুশির পছন্দে বাবা আগ্রহ না দেখান, তবে বোঝানোর চেষ্টা করবে কাপুর কন্যা।‘আমি কনভিন্স করতে পারব, কারণ আমি বাবার ফেভারিট,’ বলেন খুশি।