ছাত্রীদের ওড়না দিয়ে মুখ মুছতেন শিক্ষক, মাঝে মাঝে গোপন স্থানেও হাত লাগাতো তিনি।

মেয়েদের শরীরের ওড়না দিয়ে মুখ মোছাসহ নানা অপকর্মের অভিযোগ উঠেছে ঝিনাইদহের কালীগঞ্জ উপজেলার সলিমুননেছা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের এক শিক্ষকের বিরুদ্ধে।গত বুধবার অভিযুক্ত শিক্ষক মো. হাফিজুর রহমানের বিরুদ্ধে বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সভাপতির কাছে বিচার চেয়ে লিখিত অভিযোগ করেছেন অভিভাবকরা।

অভিভাবকরা বলছেন, ওই শিক্ষকের বিরুদ্ধে ইতিপূর্বেও অনেক অভিযোগ রয়েছে। মেয়েদের শরীরের স্পর্শকাতর স্থানে হাত দেয়া, মেয়েদের শরীরের ওড়না দিয়ে মুখ মোছাসহ নানা অপকর্ম করে চলছেন ওই শিক্ষক। এবার বাড়ি থেকে তথ্য ফরম পূরণ করে না আনায় বিদ্যালয়ের কমপক্ষে ১৫ জন ছাত্রীকে বেধড়কভাবে পিটিয়েছেন ওই শিক্ষক।তারা আরও অভিযোগ করেন, গত ১৮ মার্চ সলিমুননেছা মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণির ছাত্রীদের মাঝে পারিবারিক তথ্য সংগ্রহের জন্য একটি ফরম বিতরণ করা হয়। তাদের দ্রুত ফরমগুলো বাড়ি থেকে পূরণ করে নিয়ে আসতে বলা হয়। ১৯ মার্চ ক্লাসে আসেন সহকারী শিক্ষক হাফিজুর রহমান।

তিনি ছাত্রীদের কাছে পূরণ করা ফরম চান। অনেক ছাত্রী ফরম পূরণ করে আনলেও নানা কারণে ১৫ থেকে ১৬ জন ছাত্রী ফরম দিতে না পারায় তাদের লাইনে দাঁড় করিয়ে বেত দিয়ে শরীরের বিভিন্ন স্থানে বেধড়কভাবে মারতে শুরু করেন শিক্ষক।একদিন পরই ফরমগুলো জমা দেবে বলে ছাত্রীরা না মারার জন্য অনুরোধ করলেও শিক্ষক হাফিজুর রহমান তা শোনেননি। পরদিনই ফরম জমা দিতে হবে এটা তারা বুঝতে পারেনি বললেও মারপিট অব্যাহত থাকে।

অভিভাবক আ. য. ম আব্দুস সামাদ জানান, মেয়েদের শরীরে এতটা জোরে আঘাত করা হয়েছে আঘাতের স্থানে ক্ষত ও দাগ হয়ে গেছে। অভিভাবক হিসেবে মেয়ের অবস্থা দেখে স্থির থাকা যায় না। তাই আমরা বিচার চেয়েছি।আবুল কালাম আজাদ নামে আরেক অভিভাবক জানান, পড়ালেখার জন্য নয়, ফরম পূরণ নিয়ে এই মারপিট কোনোভাবেই মানা যায় না।অভিভাবকরা অভিযোগ করেন, দীর্ঘদিন যাবত শিক্ষক হাফিজুর রহমান মেয়েদের সঙ্গে অশালীন আচরণ ও কুরুচিপূর্ণ কথা বলে আসছেন।

এ বিষয়ে অভিযুক্ত শিক্ষক হাফিজুর রহমান বলেন, এভাবে মারপিটের কোনো ঘটনা ঘটেনি। তবে উচ্ছৃঙ্খলতার কারণে তাদের শাসন করা হয়েছে। কোনো মেয়ের সঙ্গে তিনি কখনও খারাপ আচরণ করেন না বলেও তিনি দাবি করেন। তার বিরুদ্ধে অন্য যে সকল অভিযোগ করা হচ্ছে সেগুলোও মিথ্যা বলে তিনি জানান।এ বিষয়ে বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটিরি সভাপতি ও স্থানীয় সংসদ সদস্য আনোয়ারুল আজিম আনারের কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, লিখিত অভিযোগের ভিত্তিতে ২৭ মার্চ কমিটির সভা আহ্বান করা হয়েছে।

সেখানে নির্যাতিত শিক্ষার্থী, অভিযুক্ত ও অভিযোগকারীগণ থাকবেন। প্রমাণ হলে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

ইসরায়েলকে আমরা রাষ্ট্র হিসেবে স্বীকৃতি দিতে পারি না : মাহাথির মোহাম্মদ ,

পাকিস্তানে তিনদিনের সফর শেষে দেশে ফিরে যাওয়ার আগে স্থানীয় একটি টেলিভিশন চ্যানেলকে দেয়া সাক্ষাৎকারে মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রী মাহাথির মোহাম্মদ বলেছেন, ইসরায়েল ছাড়া বিশ্বের সব দেশের সঙ্গে মালয়েশিয়ার বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক রয়েছে।

তিনি বলেন, আমরা ইহুদিদের বিরুদ্ধে নই, কিন্তু ফিলিস্তিনি ভূখণ্ড দখলের দায়ে ইসরায়েলকে আমরা রাষ্ট্র হিসেবে স্বীকৃতি দিতে পারি না।
মাহাথির বলেন, আপনি অন্য দেশের ভূখণ্ড দখল করে একটি রাষ্ট্র গঠন করতে পারেন না। এটা লুটেরা রাষ্ট্রের কাজ।গোলান মালভূমিকে ইসরায়েলি ভূখণ্ড হিসেবে স্বীকৃতি দিতে এখনই উপযুক্ত সময় বলে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প মন্তব্য করার একদিন পর মালয়েশিয়ার এই প্রধানমন্ত্রী এসব কথা বললেন। ১৯৬৭ সাল থেকে গোলান মালভূমি দখল করে আছে ইসরায়েল।

মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রী ড. মাহাথির মোহাম্মাদ পাকিস্তান ডে প্যারেডে অংশ নিয়ে তিনদিনের সফর শেষে শনিবার দেশে ফিরে গেছেন। পাকিস্তানের গণমাধ্যম মাহাথিরের এ সফরকে সফল বলে মন্তব্য করেছে।
আগামী সপ্তাহে যুক্তরাষ্ট্রে সফরে যাওয়ার কথা রয়েছে ইসরায়েলের প্রধানমন্ত্রী বেঞ্জামিন নেতানিয়াহুর। তার এই সফরের আগে ট্রাম্প গোলান মালভূমিকে স্বীকৃতি দেয়ার ব্যাপারে যুক্তরাষ্ট্রের আগ্রহের কথা জানান।

১ম বাংলাদেশি হিসেবে আইপিএল এ ইডেনের ঘণ্টা বাজালেন সাকিব আল হাসান

ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগের (আইপিএল) চলতি দ্বাদশ আসরের দ্বিতীয় দিনে আজ মাঠে নেমেছে সাকিবের দল সানরাইজার্স হায়দরাবাদ। ইডেন গার্ডেনে তাদের প্রতিপক্ষ স্বাগতিক কলকাতা নাইট রাইডার্স। প্রথম ম্যাচেই মাঠে নেমেছেন সাকিব।

শুধু মাঠেই নামেননি; রীতিমতো ঘণ্টা বাজিয়ে ম্যাচ শুরু করেছেন। বিশ্বসেরা অল-রাউন্ডারের আজ জন্মদিন; এই কারণেই তার হাতে ঘণ্টা বাজানোর দায়িত্ব তুলে বিরল সম্মান জানিয়েছে সানরাইজার্স হায়দরাবাদ এবং ইডেন গার্ডেন কর্তৃপক্ষ।কলকাতার ইডেন গার্ডেন্সে খেলা শুরুর আগে ঘণ্টা বাজানোর রীতি পুরোনো।

ইতিহাস থেকে জানা যায়, ২০১৬ সাল থেকে ইডেন গার্ডেন্সে ঘণ্টা বাজানোর প্রচলন হয়। সেখানে প্রথম ঘণ্টার বাড়িটা রেখেছিলেন ভারতীয় কিংবদন্তি কপিল দেব। আজ ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগের সানরাইজার্স হায়দরাবাদ ও কলকাতা নাইট রাইডার্সের মধ্যকার ম্যাচেও ঘণ্টা বাজানো হয়। আজকে প্রথম বাংলাদেশি হিসেবে ইডেনের ঘণ্টা বাজালেন বাংলাদেশি অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান।

নিউজিল্যান্ডে বিমান বিধ্বস্ত, দুই পাইলটের প্রাণহানি !!

নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চে মসজিদে হামলার পর এবার ঘটেছে বিমান বিধ্বস্তের ঘটনা। উত্তরাঞ্চলের তুরাঙ্গি এলাকায় যাত্রীবাহী একটি ছোট বিমান বিধ্বস্তে অন্তত দু’জনের প্রাণহানি ঘটেছে। স্থানীয় সময় শনিবার রাতে কাইমানাওয়া রেঞ্জের কাছে বিমানটি বিধ্বস্ত হয়।পরে রবিবার সকালের দিকে বিমানটির ধ্বংসাবশেষের সন্ধান পাওয়া যায়।

বিমান বিধ্বস্তের এ ঘটনায় দু’জন নিহত হয়েছে বলে নিশ্চিত করেছে দেশটির পুলিশ। বিমানের ধ্বংসাবশেষের ভেতর থেকে তাদের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে।শনিবার রাতে বিমানটি পালমারস্টন নর্থ থেকে তাপু হয়ে অকল্যান্ডের আর্ডমোরের উদ্দেশে যাত্রা শুরু করে। পরে বিমানটি তাপুতে যাওয়ার আগে বিধ্বস্ত হয়।দেশটির পুলিশের জ্যেষ্ঠ সার্জেন্ট টনি জিরিসেন রবিবার সকাল সাড়ে ১১টার দিকে বিমানের ধ্বংসাবশেষের খোঁজ পাওয়া যায় বলে নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, প্রতিকূল আবহাওয়ার কারণে শনিবার রাতে এবং রবিবার সকালের দিকে উদ্ধার অভিযান বাধাগ্রস্ত হয়।

দেশটির উদ্ধার সমন্বয় দফতরের একজন মুখপাত্র বলেছেন, বিমানটি পাওয়া গেছে এবং পুলিশ কর্মকর্তারা ঘটনাস্থলে পৌঁছে উদ্ধার অভিযান শুরু করেছেন। বিমানটি সর্বশেষ অবস্থান ছিল তুরাঙ্গির ২৪ কিলোমিটার দক্ষিণ-পূর্বাঞ্চলের কাইমানাওয়া রেঞ্জের আকাশে।রবিবার সকালের দিকে পুলিশ একটি হেলিকপ্টার নিয়ে উদ্ধার অভিযান শুরু করে। কিন্তু আবহাওয়া পরিস্থিতি অনুকূলে না থাকায় প্রথমে উদ্ধার তৎপরতা চালানো না গেলেও পরবর্তীতে বিমানটির খোঁজ পায় পুলিশ।

দেশটির স্থানীয় বিমান সেবাদানকারী প্রতিষ্ঠান আর্ডমোর ফ্লাইং স্কুলের ডায়ামন্ড ডিএ-৪২ বিমানটি রাডারের সঙ্গে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয় শনিবার রাত সাড়ে ১০টার দিকে। পুলিশের কাছে বিমানের সঙ্গে রাডারের যোগাযোগবিচ্ছিন্ন হওয়ার খবর আসে রাত সাড়ে ১১টায়।দুই ইঞ্জিন বিশিষ্ট বিমানটিতে অভিজ্ঞ দুই পাইলট ছিলেন। তারা দু’জনই মারা গেছেন। তবে বিমানটিতে দুই পাইলট ছাড়া অন্য কোনো যাত্রী ছিলেন না।

অবশেষে স্কুলে ফিরেছে সংগ্রামী সেই রাফিয়া

সম্প্রতি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ছোট্ট রাফিয়ার একটি হাসির ছবি ভাইরালের পর শত বাধা পেরিয়ে স্কুলে ফিরেছে সংগ্রামী রাফিয়া আফরিন কানিজ।

এই ছোট্ট রাফিয়ার একটি হাসির ছবি পুরো সামাজিক মাধ্যম ব্যবহারকারীদের মনকে আন্দোলিত করলেও নিরাপত্তার জন্য বন্ধ হয়ে গিয়েছিল তার ঝিনুক বিক্রি ও স্কুলে যাওয়া।

এ নিয়ে গণমাধ্যমে সংবাদ প্রকাশের পর নিজের ইচ্ছে শক্তিতেই আবারও স্কুলে যায় রাফিয়া। আজ (২৩ মার্চ) শনিবার বেলা ১১ টা থেকে বিকেল চারটা পর্যন্ত তার স্কুল কক্সবাজারের কলাতলী সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ক্লাস করেন রাফিয়া।

এ সময় রাফিয়া বলেন, ‘আমি ব্যাংকার হতে চাই। আমার স্বপ্ন আমি ভঙ্গ হতে দেব না। তাই আমি আজ থেকে প্রতিদিন স্কুলে আসব। পড়াশোনা চালিয়ে যাব ইনশাল্লাহ।’

এ সময় রাফিয়ার বাবা আব্দুল করিম গণমাধ্যমকে বলেন, ‘সকালে ঘুম থেকে ওঠার পর নিজের ইচ্ছায় শত প্রশ্ন উড়িয়ে দিয়ে স্কুলে গেছে রাফিয়া। আশা করছি সব ভুলে গিয়ে প্রতিদিন স্কুলে যাবে সে।

ভারতে দিনে-দুপুরে ঘরে ঢুকে মুসলিম পরিবারকে নির্যাতন (ভিডিও সহ)

ভারতের গুরগাঁওয়ে ঘরে ঢুকে মুসলিম পরিবারের ওপর নির্যাতনে ভিডিও প্রকাশ হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (২১ মার্চ) বিকাল ৫টার দিকে গুরগাঁওয়ের ভোন্দসি নামক এলাকায় এক মুসলিম পরিবারের সদস্যরা এমন সন্ত্রাসবাদের শিকার হয়।
খবর এনডিটিভির।

ওই মুসলিম পরিবারের ওপর সন্ত্রাসীদের অত্যাচারের ভিডিও ইতিমধ্যে সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল।এ ঘটনায় তীব্র নিন্দা জানিয়েছেন দেশটির নেট জনতা। ঘটনার তীব্র নিন্দা জানিয়ে দ্রুত বিচারের দাবি জানান দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল।

ভাইরাল ওই ভিডিওতে দেখা গেছে, প্রায় ৪০ জনের একটি দল এসে লোহার রড এবং হকি স্টিক দিয়ে পরিবারের পুরুষ সদস্যদের বেধড়ক পেটাচ্ছে। এসময় তাদেরকে না পেটাতে অনুরোধ জানান পরিবারের নারী সদস্যরা।টাইমস অব ইন্ডিজানিয়েছে, হোলির দিন ক্রিকেট খেলা নিয়ে তৈরি হওয়া বাক-বিতন্ডার জেরে এই ঘটনা ঘটেছে। কট্টরপন্থী হিন্দুত্ববাদী সংগঠনের মদতে এ নির্যাতন চালানো হয়েছে বলে দাবী জানিয়েছে ভুক্তভোগী পরিবার।

গুরগাঁও পুলিশ জানিয়েছে, এ হামলা পরিকল্পিত। ঘটনাস্থলে আমরা পৌঁছার পূর্বেই দুষ্কৃতিকারীরা পালিয়ে যায়।তবে অভিযোগের ভিত্তিতে এখন পর্যন্ত ৬ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে বলে জানায় গুরগাঁও পুলিশ।

সম্প্রতি বিশ্বজুড়ে মুসলিম সম্প্রদায়ের ওপর বর্ণবাদীদের হামলা ও অত্যাচার বেশ পরিলক্ষিত। নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চের দুই মসজিদে শ্বেতাঙ্গ বর্ণবাদী হামলা ঘটনার বিশ্ব স্তব্ধ।

সে হামলার লাইভ ভিডিওচিত্র ফেসবুকে প্রকাশ করে উগ্রপন্থী হামলাকারী ব্রেনটন টেরেন্ট।

সেই রেশ কাটতে না কাটতেই সোশ্যাল মিডিয়ায় আবারও এমন ভিডিও প্রকাশ পেল

পাকিস্তানে যা’ বলে ঘরে ঢুকে মুসলিম পরিবারকে নির্মম নির্যাতন

ভারতের গুরগাঁওয়ে ঘরে ঢুকে মুসলিম পরিবারের ওপর নির্যাতনে ভিডিও প্রকাশ হয়েছে। বৃহস্পতিবার (২১ মার্চ) বিকাল ৫টার দিকে গুরগাঁওয়ের ভূপ সিংহ নামক এলাকায় এক মুসলিম পরিবারের সদস্যরা এমন সন্ত্রাসবাদের শিকার হয়। খবর এনডিটিভির।
ওই মুসলিম পরিবারের ওপর সন্ত্রাসীদের অত্যাচারের ভিডিও ইতিমধ্যে সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল।

এ ঘটনায় তীব্র নিন্দা জানিয়েছেন দেশটির নেট জনতা। ঘটনার তীব্র নিন্দা জানিয়ে দ্রুত বিচারের দাবি জানান দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল।
ভাইরাল ওই ভিডিওতে দেখা গেছে, প্রায় ৪০ জনের একটি দল এসে লোহার রড এবং হকি স্টিক দিয়ে পরিবারের পুরুষ সদস্যদের বেধড়ক পেটাচ্ছে। এসময় তাদেরকে না পেটাতে অনুরোধ জানান পরিবারের নারী সদস্যরা।
টাইমস অব ইন্ডিয়া জানিয়েছে, হোলির দিন ক্রিকেট খেলা নিয়ে তৈরি হওয়া বাক-বিতন্ডার জেরে এই ঘটনা ঘটেছে।

কট্টরপন্থী হিন্দুত্ববাদী সংগঠনের মদতে এ নির্যাতন চালানো হয়েছে বলে দাবী জানিয়েছে ভুক্তভোগী পরিবার।
মারধরের সময় দুষ্কৃতিকারীরা ‘পাকিস্তানে যা’ বলে হুমকি দিচ্ছিল বলে জানান তারা।গুরগাঁও পুলিশ জানিয়েছে, এ হামলা পরিকল্পিত। ঘটনাস্থলে আমরা পৌঁছার পূর্বেই দুষ্কৃতিকারীরা পালিয়ে যায়। তবে অভিযোগের ভিত্তিতে এখন পর্যন্ত ৬ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে বলে জানায় গুরগাঁও পুলিশ। ভিডিও ফুটেজ দেখে বাকিদের খোঁজ করা হচ্ছে।

গুরগাঁওয়ের এসিপি শামসের সিংহ বলেন, ‘বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় ঘটনাটি ঘটেছে। আক্রান্তেরা সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের। তারা বাড়ির বাইরে ক্রিকেট খেলার সময়ই এই ঘটনা ঘটেছে। অভিযুক্তদের সনাক্ত করার চেষ্টা চলছে।’
সম্প্রতি বিশ্বজুড়ে মুসলিম সম্প্রদায়ের ওপর বর্ণবাদীদের হামলা ও অত্যাচার বেশ পরিলক্ষিত। নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চের দুই মসজিদে শ্বেতাঙ্গ বর্ণবাদী হামলা ঘটনার বিশ্ব স্তব্ধ। সে হামলার লাইভ ভিডিওচিত্র ফেসবুকে প্রকাশ করে উগ্রপন্থী হামলাকারী ব্রেনটন টেরেন্ট।

সেই রেশ কাটতে না কাটতেই সোশ্যাল মিডিয়ায় আবারও এমন ভিডিও প্রকাশ পেল।

Share

যানজট নিরসণে নয়, চাঁদাবাজিতে ব্যস্ত ট্রাফিক পুলিশ!

তাঁত শিল্প খ্যাত সিরাজগঞ্জের বেলকুচি আঞ্চলিক সড়কের মুকুন্দগাঁতি থেকে কলেজ গেট পর্যন্ত অতি ব্যস্ত জনপদ হিসাবে পরিচিত। দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে ব্যবসায়ীগন সোহাগপুর কলেজ হাটে আসেন মালামাল ক্রয় করার জন্য।

বানিজ্যিক এই এলাকার সড়কের ব্যহাল দশার কারনে ভোগান্তিতে পরতে হয় তাদের। অপ্রসস্ত সড়ক ও মাত্রাতিরিক্ত যানবহন হওয়া এই আঞ্চলিক সড়কে প্রতিনিয়ত যানজট লেখেই থাকে।

এই দূর্ভোগ নিরসনের জন্য স্থানীয় প্রশাসনের উদ্যোগে দুই জন ট্রাফিক পুলিশ নিযুক্ত করা হয়। যদিও ট্রাফিক পুলিশের কাজ যানজট নিরসন করা, তবে যানজট নিরসনের নামে করছে বিভিন্ন যানবাহনের চালকদের কাছে চাঁদাবাজি।

ডিউটি চলাকালীন সময়ে দেখা যায় তারা সিএনজি, অটোভ্যান, রিক্সা, স্যালোইঞ্জিন চালিত গাড়ি, ট্রাক, বাস থেকে প্রতিদিন ১০ থেকে ২০ টাকা করে চাঁদা নিচ্ছে। এতে যানজট নিরসনতো দুরের কথা আরও যানজট সৃষ্টি করছে।

অটোভ্যান সহ বিভিন্ন যানবহনের চালকের কাছে জানতে চাইলে তারা বলেন, প্রতিদিন আমরাদেরকে ১০ থেকে ২০ টাকা ট্রাফিক পুলিশকে দিয়ে গাড়ি চালাতে হয়।

যদি তা না দেই, ট্রাফিকরা আমাদের উপর ক্ষেপে গিয়ে মারধর করে এবং গাড়ি ভেঙ্গে ফেলার হুমকি দেয়। কি করবো আমরা পেটে দায়ে গাড়ি চালাই। তাই এদের টাকা দিয়ে চলতে হয়।

এ বিষয়ে সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার (বেলকুচি সার্কেল) রেজা সারোয়ার জানান, উপযুক্ত প্রামন পেলে আমরা প্রযোজনীয় পদক্ষেপ নেব।

Share

মক্কা-মদিনায় নিউজিল্যান্ডে নিহতদের গায়েবানা জানাজা আদায়

শুক্রবার জুমার নামাজের পর পবিত্র কাবা শরীফ ও মসজিদে নববীতে নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চে বন্দুকধারীদের গুলিতে নিহত ৫০ জনের গায়েবানা জানাজা আদায় করা হয়েছে।

এদিন মুসলিমদের প্রধান দু’টি মসজিদে নিহতদের জন্য বিশেষ দোয়াও করা হয়। আল আরাবিয়্যার খবর।

কাবা শরীফে অনুষ্ঠিত জানাজায় হারামাইনের অন্যতম ইমাম শাইখ মাহির আল মুয়াইকলি ইমামতি করেন। আর মদিনার মসজিদে নববীতে শাইখ আবদুল্লাহ আল বুয়াইজান জানাজা পড়ান।

এ সময় হারামাইনে নিহতদের আত্মার মাগফিরাত ও আহতদের দ্রুত সুস্থতা কামনা করে দোয়া করা হয়।

জানাজার পূর্বে হারামাইন শরিফের ব্যবস্থাপনা কমিটির প্রধান শাইখ আবদুর রহমান সুদাইসি বলেন, সৌদি আরব সবসময় মুসলিম বিশ্বের পাশে ছিল। মুসলমানদের যে কোনো দুর্যোগকে তারা গুরুত্বের সঙ্গে বিবেচনা করে।

সন্ত্রাসবাদের বিপক্ষে আমাদের অবস্থান অত্যন্ত কঠোর। আমরা স্পষ্ট জানাচ্ছি, সন্ত্রাসীদের কোনো ধর্ম নেই।

এপ্রিলের প্রথম সপ্তাহে হবে ‘প্রাথমিকে নিয়োগ পরীক্ষা’

এপ্রিলের প্রথম সপ্তাহে নিয়োগ পরীক্ষা শুরু হতে পারে বলে জানিয়েছে প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তর। প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয় জানায়, আগামী দু’একদিনের মধ্যে মন্ত্রণালয়ে সভা করে পরীক্ষা গ্রহণের তারিখ চূড়ান্ত করা হবে।
গত ১৫ মার্চ নিয়োগ পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা থাকলেও জাতীয় শিক্ষা সপ্তাহ আয়োজনের কারণে তা পিছিয়ে দেওয়া হয়।

প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের (ডিপিই) মহাপরিচালক এ এফ এম মনজুর কাদির বলেন, এ বছর পরীক্ষায় আবেদনকারী বেশি হওয়ায় কয়েকটি ধাপে নিয়োগ পরীক্ষা সম্পন্ন করা হবে। পরীক্ষা নেওয়ার জন্য শতভাগ প্রস্তুতি রয়েছে তার কার্যালয়ের। এবার ১৩ হাজার পদের বিপরীতে আবেদন জমা পড়েছে ২৪ লাখের বেশি।অধিদপ্তর সূত্র জানায়, এবার নিয়োগ পরীক্ষা সম্পূর্ণ ডিজিটাইজড পদ্ধতিতে নেওয়া হবে। নির্ধারিত জেলায় পরীক্ষার আগের রাতে

জেলা প্রশাসকের কাছে ইন্টারনেটের মাধ্যমে প্রশ্নপত্রের সব সেট পাঠানো হবে। পরীক্ষার দিন সকাল ৮টায় প্রশ্নপত্র ছাপিয়ে তা কেন্দ্রে পৌঁছে দেওয়া হবে।
প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের কর্মকর্তারা জানান, এবার সব জেলার ফল একসঙ্গে প্রকাশ করা হবে না। যে জেলার পরীক্ষা আগে শেষ হবে, সেখানে লিখিত পরীক্ষার ফল প্রকাশ করে মৌখিক পরীক্ষা আয়োজন করা হবে।

কর্মকর্তারা জানান, পরীক্ষার হলে পাশাপাশি বসা পরীক্ষার্থীরা যাতে একই সেট না পায় সে জন্য এবার ডিজিটাল পদ্ধতিতে প্রার্থীদের প্রশ্ন সেট নির্ধারণ করা হবে। পরীক্ষার্থীর রোল নম্বরের ওপর প্রশ্ন সেট নির্ধারণ করা হবে।
এবার পরীক্ষা কেন্দ্র পরিদর্শক নিয়োগের ক্ষমতা কেন্দ্র সুপারের কাছে থাকছে না। এক প্রতিষ্ঠানের শিক্ষককে অন্য প্রতিষ্ঠানে কক্ষ পরিদর্শকের দায়িত্ব দেওয়া হবে। কেন্দ্র থেকে দায়িত্ব পাওয়া পরিদর্শকদের শুধু দায়িত্ব বুঝিয়ে দেবেন কেন্দ্র সুপার।