এবার আরব আমিরাতের ওপর ক্ষেপে যা বললেন ইমরান খান।

সম্প্রতি ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে বিশেষ সম্মাননা দিয়েছে মধ্যপ্রাচ্যের দেশ আরব আমিরাত। এতে ক্ষেপেছে পাকিস্তান। কাশ্মীর প্রসঙ্গে পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান বলছেন, ভারতে মুসলিমদের ওপর অত্যাচার চলছে। অথচ এমন পরিস্থিতিতেই মোদির হাতে আরব আমিরাত সম্মাননা তুলে দিয়েছে। এটা একেবারেই মেনে নিতে পারছে না ইসলামাবাদ।

পাক প্রধানমন্ত্রীর তথ্য ও সম্প্রচার-সংক্রান্ত বিশেষ উপদেষ্টা ড. ফিরদৌস আশিক আওয়ান বলেন, আন্তর্জাতিক মহলে কাশ্মীর ইস্যুকে বিশেষভাবে তুলে ধরার চেষ্টা করছে পাকিস্তান। কিন্তু দুঃখজনকভাবে মুসলিম দেশগুলো স্বার্থপরতার কারণে এ ইস্যুটি এড়িয়ে যাচ্ছে।কাশ্মীরিদের ওপর অত্যাচারের বিষয়টিকে পুরো বিশ্ব গুরুত্ব দিচ্ছে না বলেও উল্লেখ করেন এই পাক প্রধানমন্ত্রী। কাশ্মীর পরিস্থিতি নিয়ে জাতিসংঘ এবং অন্যান্য মানবাধিকার সংগঠনকে এগিয়ে আসার আহ্বান জানিয়েছেন তিনি।

নরেন্দ্র মোদির হাতে সর্বোচ্চ বেসামরিক সম্মাননা ‘অর্ডার অব জায়েদ’ তুলে দিয়েছে সংযুক্ত আরব আমিরাত। দ্বিপাক্ষিক সম্পর্কের ক্ষেত্রে বড় ভূমিকা রাখায় শনিবার মোদিকে এ বিশেষ সম্মাননা দেওয়া হয়। বর্তমানে বিদেশ সফরে রয়েছেন মোদি।এ সফরেই তাকে বিশেষ সম্মাননায় ভূষিত করা হয়। তার সফরের আগেই এই পুরস্কারের কথা ঘোষণা করেছিল আমিরাত। এদিকে আরব আমিরাত সফর বাতিল করেছেন পাক সিনেটের সভাপতি সাদিক সাঞ্জারানি।

আমিরাত সরকারের আমন্ত্রণে রোববার থেকে বুধবার পর্যন্ত তিনদিনের সফরের কথা ছিল সাদিক সাঞ্জারানিসহ পাক প্রতিনিধি দলের।সেখানে গিয়ে একাধিক সরকারি কর্মকর্তাদের সঙ্গে বৈঠক হওয়ার কথা ছিল তাদের। কিন্তু কাশ্মীর নিয়ে ভারতকে সমর্থন করায় আমিরাতে এই সফর বাতিল করা হয়েছে।

পাবনায় ৩য় শ্রেণীর স্কুলছাত্রীকে ধ’র্ষণ অতঃপর ধ’র্ষককে ছেড়ে দিলেন চেয়ারম্যান !

পাবনার সুজানগর উপজেলার ভায়না ইউনিয়নে তৃতীয় শ্রেণির এক ছাত্রী ধর্ষ’ণের শিকার হয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। এই ঘটনায় শিশুটির বাবা সুজানগর থানায় মামলা করেছেন।ভিকটিমের পরিবার ও স্থানীয়দের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, গত শুক্রবার দুপুরে বাড়ির পাশে বড়ই বাগানে প্রতিবেশী জয়দেব কুমার দাস (৪০) ওই শিশুটিকে একা পেয়ে ধ’র্ষণ করে। এরপর ধর্ষণের কথা কাউকে না বলার জন্য ভয়ভীতি দেখিয়ে বাড়িতে পাঠিয়ে দেয়।

পরে মেয়েটির যৌ’নাঙ্গ থেকে প্রচুর র’ক্তক্ষরণ দেখে তার মা জিজ্ঞাসা করলে ধর্ষ’ণের বিষয়টি জানতে পারেন। মেয়েটির বাবা ঘটনাটি ভায়না ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যানকে জানালে তিনি মীমাংসার কথা বলে সময়ক্ষেপণ করেন।একপর্যায়ে ঘটনাটি জানাজানি হলে শনিবার সুজানগর থানার উপপরিদর্শক (এসআই) অর্জুন সাহা ঘটনাস্থলে তদন্তে এসে জয়দেব কুমার দাসকে আটক করে। এ সময় ইউপি চেয়ারম্যান মো. আমিন উদ্দিন ও সাবেক ই্উপি সদস্য ইমরুল হোসেন সামাজিকভাবে সমঝোতার কথা বলে জয়দেব দাসকে পুলিশের কাছ থেকে ছাড়িয়ে নেন। কিন্তু মেয়েটির দরিদ্র ভ্যানচালক বাবা পুলিশের কাছে যেতে চাইলে চেয়ারম্যান ও ইউপি সদস্য তাঁকে বাধা দেন।

ঘটনার বিষয়ে শিশুটির মা বলেন, ‘আমার নাবালিকা শিশু বাচ্চা মেয়ের সাথে এই রকম ঘটনায় আমি মর্মাহত। কাউকে কিছু বলতে পারছি না। মেয়ের বাবাসহ পরিবারের সবাই এলাকার চেয়ারম্যানের কাছে গিয়েছিল। আমরা মেয়েকে ডাক্তারের কাছে নিতে চেয়েছিলাম। কিন্তু চেয়ারম্যান-মেম্বাররা যেতে দেয়নি। আমরা গরিব মানুষ, আমার মেয়ের ভবিষ্যৎ কী হবে? আমার শিশু মেয়ের সাথে যে এই জ’ঘন্য কাজ করেছে আমি তার কঠিন বিচার চাই।’ঘটনার বিষয়ে ভায়না ইউপি চেয়ারম্যান আমিন উদ্দিন বলেন, ‘বিষয়টি আমি সামাজিকভাবে বসে ঠিক করার কথা বলেছিলাম। পরে সমাধান করতে পারব না বলে জানিয়েছি ওই পরিবারকে।

মেয়েটির বাবা আমার কাছে এসেছিলেন। আমি তাঁকে আইনগত ব্যবস্থার গ্রহণের কথা বলেছি। ঘটনার পরে পুলিশ ত’দন্তে এসেছিল, তখন অভি’যুক্ত জয়দেব দাস ঘটনাস্থলে পুলিশের সঙ্গে উপস্থিত ছিল। ভিকটিমের পরিবার তখন পুলিশের কাছে কোনো অভি’যোগ করেনি। সেই কারণে পুলিশ তাকে ছেড়ে দেয়। আমি জয়দেব দাসকে ছেড়ে দেওয়ার জন্য কোনো ধরনের তদবির করিনি।’সুজানগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শরিফুল আলম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, ‘প্রাথমিক পর্যায়ে ভিকটিমের পরিবার বিষয়টি থানাকে জানাতে চায়নি। আমরা ভিকটিমের পরিবার ও ভিকটিমের সঙ্গে কথা বলেছি। ভিকটিমের বাবা বাদী হয়ে থানায় ধর্ষ’ণের মামলা করেছেন। আমরা ধর্ষ’ককে গ্রে’প্তা’রের জন্য চেষ্টা করছি।’

এ ব্যাপারে পাবনার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার গৌতম কুমার বিশ্বাস বলেন, এই বিষয়ে একটি অভি’যোগের কথা শুনেছি। সংশ্লিষ্ট থানাকে বিষয়টি গুরুত্ব সহকারে দেখার জন্য বলেছি। ধ’র্ষ’ক যেই হোক তার বিরু’দ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

কাশ্মীর সমস্যা সৃষ্টি করা সত্ত্বেও মোদীকে সর্বোচ্চ সম্মাননা দিলো আরব আমিরাত !

ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে সর্বোচ্চ বেসামরিক সম্মাননা ‘অর্ডার অব জায়েদ’-এ ভূষিত করেছে সংযুক্ত আরব আমিরাত। ‘ভারত ও আরব আমিরাতের সম্পর্ক দৃঢ়করণে অনন্য প্রচেষ্টার স্বীকৃতি’ হিসেবে শনিবার আবুধাবিতে এক অনুষ্ঠানে মোদীর হাতে এই সম্মাননা তুলে দেওয়া হয়। পরে ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

কাশ্মীরের স্বায়ত্তশাসন কেড়ে নেওয়ার সিদ্ধান্তে নরেন্দ্র মোদীর বিরুদ্ধে বিভিন্ন পরিসরে পাকিস্তানের নালিশ-অভিযোগের মধ্যেই মুসলিমপ্রধান আরব আমিরাত এই সম্মাননা দিলো।এর আগে এই সম্মাননা পেয়েছিলেন রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন, ব্রিটেনের রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথ ও চীনের প্রেসিডেন্ট শি জিনপিংয়ের মতো নেতারা।

ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের বিবৃতিতে বলা হয়, ‘আরব আমিরাতের জাতির জনক শেখ জায়েদ বিন সুলতান আল নাহিয়ানের নামের এ বিশেষ সম্মাননা তার জন্মশতবার্ষিকীতে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে দেওয়া হয়েছে।’ কিন্তু গত ৫ আগস্ট নরেন্দ্র মোদির সরকার কাশ্মীরের বিশেষ মর্যাদা (ভারতীয় সংবিধানের ৩৭০ অনুচ্ছেদ) বাতিল করে দিয়েছে। একই সঙ্গে জম্মু-কাশ্মীরকে ভেঙে দুটি অঞ্চল কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল গঠন করা হয়েছে।

কাশ্মীরী সংগঠনগুলো বলেছে, জম্মু-কাশ্মীরের বিশেষ মর্যাদা বাতিলের অর্থ হলো সেখানকার অধিবাসীদের বিরু*দ্ধে যু*দ্ধ ঘোষণা।৩৭০ ধারা বাতিলকে কেন্দ্র করে কাশ্মীরে গত ১৬ দিন যাবত কারফিউ জারি করে রেখেছে ভারতীয় প্রশাসন।
বি’ক্ষোভ ঠেকাতে দেশের বাকি অংশের সঙ্গে হিমালয় অঞ্চলটির সব ধরনের যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন করে দেয়া হয়েছে। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির হিন্দুত্ববাদী সরকার কাশ্মীরের বিশেষ মর্যাদা বাতিলের ঘোষণাকে সামনে রেখে কাশ্মীরের ফোন ও ইন্টারনেট সংযোগ সম্পূর্ণ বিচ্ছিন্ন করে দেয়া হয়।

ভারত নিয়ন্ত্রিত জম্মু-কাশ্মীর বিশ্বের সবচেয়ে সামরিকীকৃত এলাকায় পরিণত হয়েছে। সেনাবাহিনী, আধা-সামরিক বাহিনী ও পুলিশ সদস্য মিলিয়ে সেখানে ৭ লক্ষাধিক নিরাপত্তাবাহিনীর সদস্য মোতায়েন রয়েছে। অস্থায়ী কারাগার বানানো হয়েছে হোটেল, গেস্ট হাউস, সরকারি ও বেসরকারি বিভিন্ন ভবনকে। কাশ্মীরের পুরো উপত্যকাটি যেন পরিণত হয়েছে একটি কারাগারে।অপরদিকে নরেন্দ্র মোদি বিশ্বের বিভিন্ন মুসলিম দেশে ভ্রমণ করে তাদের কাছ থেকে পাচ্ছে সর্বোচ্চ সম্মাননা !

বেড়ে যাচ্ছে আমিরাতসহ সব দেশের রেট ! দেখে নিন আজকের টাকার রেট !

এই মুহূর্তে দেশে ও দেশের বাইরে যে যেখান আছেন সবাইকে “আমার বাংলাদেশ”এর পক্ষ থেকে স্বাগতম !যারা দেশের বাইরে কাজ করছেন তারা দেশের জন্য অত্যান্ত উপকার করছেন । কারন বাংলাদেশের রেমিটেন্সের সবচেয়ে বড় অবদান রাখছেন আপনারা প্রবাসী যারা প্রতিনিয়ত দেশে টাকা পাঠাচ্ছেন। দেশে টাকা পাঠানোর পূর্বে টাকার রেট ভালোভাবে দেখে নিন। আজ ২৫/০৮/২০১৯ তারিখ দেখে নিন আজকের টাকার রেট !
,

সৌদি রিয়াল (SAR) =22.60৳

মালয়েশিয়ান রিংগিত (MYR) = 20.70৳

দুবাই দেরহাম (AED ) = 23.10৳

বাহরাইন দিনার (BHD ) = 225.12৳

সিঙ্গাপুর ডলার ( SGD) = 62.20 ৳

ওমানি রিয়াল (OMR) = 219.25৳

ব্রিটিশ পাউনড (GBP) = 111.85৳

কুয়েতি দিনার (KWD ) = 276.80 ৳

কাতারি রিয়াল(QAR) =23.30৳

ইউএস ডলার (USD) = 84.45৳

ইউরো (EUR) = 95.35 ৳

মালদ্বীপিয়ান রুপিয়া (MVR ) = 4.95৳

অস্ট্রেলিয়ান ডলার( AUD)=59.40৳

নিউজিল্যান্ড ডলার(NZD) = 57.80৳

কানাডিয়ান ডলার (CAD) = 62.55৳

ইন্ডিয়া রূপি (INR) = 1.21৳

সাউথ আফ্রিকান রেন্ড (ZAR) =5.51৳

ইরাকি দিনার (IQD) = 0.070৳

দক্ষিণ কোরিয়ান উয়ান(WAN)= 0.074৳

জাপানিজ (YEN) = 0.739৳

চাইনিজ উয়ান ( YUAN) =12.11৳

আফগানিস্তান  (AFN) = 1.09 ৳

সোমালিয়া (SOS ) = 0.14 ৳

প্রতি মুহূর্তে আন্তর্জাতিক বাজারে লেনদেনের তারতম্যের সাথে সাথে টাকার রেট উঠানামা করে।হুন্ডি বা অবৈধ পথে টাকা পাঠাইয়া নিজে ঝুঁকিতে থাকবেন না । তাতে আপনি যেমন উপকৃত হবেন, দেশ ও উপকৃত হবে।
বিভিন্ন দেশ থেকে বৈধ পথে বাংলাদেশে টাকা পাঠানোর বিভিন্ন এজেন্ট আছে যেমন মানি গ্রাম , ওয়েস্টার্ন ইউনিয়ন , রিয়া ইত্যাদি ।কিছু কিছু কোম্পানিতে রেট আপডেট করতে সময় নেয় তাই দেশে টাকা পাঠানোর আগে ভালোভাবে রেট যাচাই করে নিন ।

আরব আমিরাতে ‘গোল্ডেন ভিসা’ পেলেন আরো ৩ বাংলাদেশি প্রবাসী !

স্থায়ী আবাসনের জন্য ১০ বছর মেয়াদি ‘গোল্ডেন ভিসা’ পেলেন সংযুক্ত আরব আমিরাতে বসবাসরত একই পরিবারের তিন বাংলাদেশি ব্যবসায়ী। সম্প্রতি দেশটির সরকার তাদের দশ বছর মেয়াদি ভিসা দিয়ে সম্মানিত করেন।তিন ব্যবসায়ী হলেন- বিশ্বখ্যাত আল হারামাইন পারফিউম গ্রুপ অব কোম্পানির চেয়ারম্যান ও ব্যবস্থাপনা পরিচালক, এনআরবি ব্যাংকের চেয়ারম্যান সিআইপি মাহতাবুর রহমান নাসির। তার ছেলে এমাদুর রহমান ও ভাই এম অলিউর রহমান।

চলতি মাসের প্রথম সপ্তাহে আল হারামাইন গ্রুপের ভাইস চেয়ারম্যান অলিউর রহমান এবং ডেপুটি ম্যানেজিং ডিরেক্টর এমাদুর রহমান গোল্ডকার্ড লাভ করেন। এর আগে, গত ১৬ জুন এই ভিসা লাভ করেন এই পরিবারের আরেক সদস্য আল হারামাইন গ্রুপের চেয়ারম্যান মাহাতাবুর রহমান।
এ তিনজনসহ এ পর্যন্ত মোট পাঁচ বাংলাদেশি ব্যবসায়ী আমিরাতের এই সম্মানজনক ভিসা লাভ করলেন।এর আগে, গোল্ডকার্ড ভিসাপ্রাপ্ত অন্য দুই বাংলাদেশি হলেন- দুবাইভিত্তিক ব্যবসায়ী মাহবুবুল আলম মানিক এবং রাস আল খাইমায় বসবাসরত ব্যবসায়ী আখতার হোসাইন।

গোল্ডকার্ড ভিসা হচ্ছে আমিরাতে ১০ বছর মেয়াদি ভিসা। আমিরাতের ভাইস প্রেসিডেন্ট ও প্রধানমন্ত্রী দুবাই’র শাসক শেখ মোহাম্মদ বিন রাশেদ আল মাকতুম ঘোষিত ‘গোল্ড কার্ড’র ১ম ধাপে যোগ্যতা সম্পন্ন ৬ হাজার ৮০০ জন প্রবাসীর একটি তালিকা তৈরি করা হয়েছিল।যাদের মধ্যে রয়েছে- বিনিয়োগকারী, উদ্যোক্তা, গবেষক, বিজ্ঞানী ও মেধাবী শিক্ষার্থী। স্থায়ী বসবাসের অংশ হিসেবে এসব প্রবাসীকে সম্মানসূচক ‘গোল্ড কার্ড’ প্রদান করবে আমিরাত সরকার।

বিনিয়োগকারীরা দেশটিতে ১০ মিলিয়ন দেরহাম বিনিয়োগ করলে গোল্ড কার্ডের জন্য যোগ্য বলে বিবেচিত হবেন। যেখানে উদ্যোক্তা এবং বিশেষ মেধা সম্পন্নরা এই পরিমাণ অর্থ বিনিয়োগ করলে পাঁচ বছরের ভিসার জন্য বিবেচিত হবেন।

আরব আমিরাত আবুধাবীর ম’র্গে ১মাস ধরে আজাদের লা’শ, মায়ের আহাজারী !

আরব আমিরাতের আবুধাবিতে গত ২৫ জুলাই থেকে ম’র্গে পড়ে আছে মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জের আজাদ মিয়ার লা’শ! একজন রেমিট্যান্স যুদ্ধার লা’শের দায়িত্ব নিতে বাংলাদেশ দূতাবাস অস্বীকৃতি জানাচ্ছে!আশ্চর্যের বিষয় আজাদ মিয়া একজন বৈ*ধ কাগজ পত্র ও সে দেশের আই ডি ধারী একজন বাংলাদেশী রেমিট্যান্স যোদ্ধা হওয়ার পরও বাংলাদেশ দূতাবাস কতৃক তার লা’শ দরিদ্র ও বিধবা মায়ের কাছে পাঠানো হচ্ছেনা।

দীর্ঘ একমাসের উপরে আবুধাবির খলিফা হাসপাতালের ম’র্গে পড়ে আছে অসহায় পরিবারের একমাত্র উপার্জনক্ষম যুবকের লা’শটি।ইউ এ ই’র বিভিন্ন সামাজিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দের প্রতি আকূল আবেদন জানাচ্ছেন আজাদের বৃদ্ধা মা তার মৃ**ত ছেলের লা’শটি একনজর দেখার জন্য।দেশের সকল সাংবাদিক,সরকার ও প্রশাসনের সকল দায়িত্বশীল ব্যাক্তির কাছে আজাদের মায়ের আকুতি যেনো তার ছেলের লা’শটি দেশে পাঠানোর ব্যবস্হা করা হয়। আজাদের মা অভিযোগ করে বলেন আবুধাবির বাংলাদেশ হাই কমিশনের কর্মকর্তারা আমার ছেলের সাথে

অমানবিক আচরণ করছেন তিনি বলেন আমার ছেলের সকল বৈধ কাগজ-পত্র ছিলো তার পরও সরকারের নিয়োগকৃত কর্মকর্তারা কেনো আমার ছেলের লা’শের সাথে এমন নিষ্ঠুরের মতো আচরণ করছে?উল্লেখ্য আজাদ মিয়া সংযুক্ত আরব আমিরাতে বৈধ ভিজিট ভিসায় গিয়ে সে দেশের চলমান আইন অনুযায়ী বিজনেস ভিসা অর্থাৎ ইনভেস্টার পার্টনার প্রফেশনে (এক্বামা) আই ডি লাগান এবং কাজ করছিলেন।

গত ২৫ জুলাই আলাইন শহরের এক কাজের সাইডে তিনি ডিউটিতে ছিলেন এবং সে সময় একটি শেওল গাড়ি স্টিলের একটি রেডিমেট ঘরে ধাক্কা দিলে ঘরটি সাথে সাথে বি*দ্ধস্ত হয়ে আজাদের উপরে পড়ে যায় এবং আজাদের মাথা ও শরীর থেতলে যায়, প্রচন্ড আঘাতে ঘটনাস্থলেই আজাদের মৃ**ত্যু হয়! অথচ আজাদের মেডিকেল রিপোর্টে বলা হয়েছে সে নাকি স্টোক করে মা*রা গেছে? যা সম্পূর্ণভাবে মি*৮থ্যা ও বানোয়াট।

কর্মস্হলের যারা কতৃপক্ষ তারা ক্ষতিপূরণ আদায় না করতে এমন মি*থ্যা ও ঘৃণিত বা*নোয়াট রিপোর্ট করিয়েছে, একটি অসহায় পরিবারকে তার মরণোত্তর ক্ষতিপূরণ থেকে বঞ্চিত করার জন্য।এই মর্মান্তিক বিষয়টির সঠিক তদারকি করার ও প্রতিকার প্রপ্তির একমাত্র মাধ্যম ছিলো সে দেশে অবস্হিত বাংলাদেশ হাই কমিশনের লেবার কাউন্সিল কর্মকর্তারা, কিন্তু তারা সে দায়িত্ব পালন না করে উল্টো বলছে যারা ইনভেস্টার ভিসায় আছেন তাদের দায়িত্ব নাকি দূতাবাস কতৃপক্ষ নেবেনা যা সম্পূর্ণa বে-আইনি কথা।

একজন বৈ**ধ কাগজধারী প্রবাসে নিজ দেশের দূতাবাসের মাধ্যমে সকল প্রকার সুযোগ সুবিধা পাওয়ার কথা এবং মৃ*ত্যুবরণ করলে নিজের লা*শ দূতাবাস কতৃক দেশে পাঠানোর সার্ভিস সে পাওয়ার কথা।বিষয়টি সংশ্লিষ্ট কতৃপক্ষকের নজরে আনার জন্য এবং তড়িৎ বিহীত ব্যবস্হা গ্রহনের জন্য আজাদ মিয়ার বৃ*দ্ধা মাতা সকলের সহযোগিতা কামনা করছেন।

নারী সহকর্মীর সঙ্গে ডিসির আ’পত্তিকর ভিডিও, যে সিদ্ধান্ত নিলো মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ !

এক নারী অফিস সহকারীর সঙ্গে জামালপুরের জেলা প্রশাসক (ডিসি) আহমেদ কবীরের আ**পত্তিকর ভিডিও প্রকাশের বিষয়ে অবগত আছে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ। বিভাগের কর্মকর্তারা প্রাথমিকভাবে বিষয়টি খতিয়ে দেখছেন।অফিস খুললে বিষয়টি তদন্তের জন্য কমিটি গঠন করবে মাঠ প্রশাসনের দেখভালের দায়িত্ব থাকা মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ।

শনিবার (২৪ আগস্ট) সকালে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের অতিরিক্ত সচিব (জেলা ও মাঠপ্রশাসন অনুবিভাগ) আ. গাফ্ফার খান গণমাধ্যমকে এসব তথ্য জানান।জামালপুরের ডিসির একটি আপত্তিকর ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে। ভিডিওটিতে ডিসি আহমেদ কবীরের সঙ্গে তার অফিসের এক নারীকর্মীকে অন্তরঙ্গ অবস্থায় দেখা যায়। গত বৃহস্পতিবার মধ্যরাতে খন্দকার সোহেল আহমেদ নামের একটি ফেসবুক আইডি থেকে জেলা প্রশাসকের আপত্তিকর ভিডিওটি পোস্ট করা হয়।

তবে অভিযোগ অস্বীকার করে বিষয়টিকে সাজানো দাবি করেছেন জেলা প্রশাসক। ওই ঘটনায় জামালপুরের মানুষের মাঝে ক্ষোভ ছড়িয়ে পড়েছে।
এ বিষয়ে দৃষ্টি আকর্ষণ করলে অতিরিক্ত সচিব গাফ্ফার খান বলেন, ‘বিষয়টি কর্তৃপক্ষের নলেজে আছে।’তিনি বলেন, ‘তদন্ত কমিটি হবে, এখন দু’দিন বন্ধ যাচ্ছে। অফিস খুললেই এটা হবে। তবে এটা নিয়ে বিভিন্নভাবে তদন্ত হচ্ছে, বিভিন্ন সংস্থা-কর্তৃপক্ষ সেটা করছে। আরও অনেক অথরিটি আছে, তারাও দেখছে।’‘এটা আমাদের নলেজেও আছে। বিষয়টি দেখা হচ্ছে’ বলেন অতিরিক্ত সচিব।

আরব আমিরাতে স্বামী অতিরিক্ত বেশি ভালোবাসেন তাই আদালতে গিয়ে ডিভোর্স চাইলেন স্ত্রী !

স্বামীর ভালোবাসা খুব পবিত্র ব্যাপার, যার দেখা সবাই পায় না। সবার জীবনে ভালোবাসা কমবেশি মেলে, কিন্তু স্বামীর অতি ভালোবাসা দেখা পায় খুব সৌভাগ্যবান নারী।সাম্প্রতি সংযুক্ত আরব আমিরাতের ফুজাইরার শরিয়াহ আদালতে এক নারী তা’লাকের আবেদন জানিয়েছেন।

কারণ হিসেবে ওই নারী উল্লেখ করেন, তার স্বামী তাকে অতিরিক্ত বেশি ভালোবাসে। তার সঙ্গে ঝ’গড়া করে না। স্বামীর দয়ার মানসিকতায় তিনি বি’রক্ত।ওই নারী অভি’যোগে আরো জানিয়েছেন, সে আমার উপর চি’ৎকার করে না। অপমান করে না। ঘরবাড়ি পরিষ্কারেও আমায় সাহায্য করে। এত ভালোবাসায় আমার দ’মব’ন্ধ হচ্ছে।জানা গেছে, এক বছরের বেশি সময়ের বিয়েতে কোনো ঝ’গড়া হয়নি স্বামী-স্ত্রীর।

এমনকী প্রায়ই স্ত্রীর জন্য রান্না করে দেন স্বামী। স্বামীর এতো ভালোবাসাই তার জন্য ন’রক সমান হয়ে গেছে বলে আদালতে জানিয়েছেন ওই মহিলা।স্বামীর অতিরিক্ত ওজন নিয়ে একবার আপত্তি করেছিলেন স্ত্রী। এরপর স্ত্রীর ইচ্ছাপূরণে কঠিন ডায়েট ও ব্যায়াম শুরু করেন ওই ব্যক্তি। এর জেরে পা ভে’ঙে হাসপাতালে যেতে হয়েছিল তাকে।সব ঘটনা মেনে নিলেও তা দোষ কীভাবে হচ্ছে, তা জানতে চেয়েছেন ওই নারীর স্বামী।

আদালতে ওই স্বামীর আবেদন, ওকে বুঝিয়ে মামলা তুলে নিতে বলুন। সবাই ভুল করে। বিয়ের একবছরেই এভাবে সম্পর্কের বিচার সঠিক নয়।
আদালত আপাতত মামলা খারিজ করে দিয়েছে। তাদেরকে দ্বিতীয় সুযোগ কাজে লাগানোর পরামর্শ দিয়েছেন।

সংযুক্ত আরব আমিরাত জুড়ে আবহাওয়ার পূবাভাসে আরো বেশি বৃষ্টিপাত, শিলাবৃষ্টি ও ধূলিঝড়।

আজ শুক্রবার দুপুর সংযুক্ত আরব আমিরাতের সহ দুবাই সহ বেশিরভাগ অংশে শিলাবৃষ্টি ও ধূলিঝড়সহ মাঝারি থেকে ভারী বৃষ্টিপাতের কারণে প্রচণ্ড গরমের গ্রীষ্মের দিনটি একটি বৃষ্টি দিনে পরিণত হয়েছে ।জাতীয় আবহাওয়া কেন্দ্রের (এনসিএম) দুবাইয়ের সিলিকন ওসিস, একাডেমিক সিটি, নাদ আল শেবা এবং আল ওয়ারকায় ভারী বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয়েছে,

দুবাই-আল আইন ও খোরফাক্কান-শারজাহ সড়কগুলিতে মাঝারি থেকে ভারী বৃষ্টিপাত হয়েছে এবং ফাজল আল মুয়ালায় মাঝারি থেকে ভারী বৃষ্টিপাত হয়েছে। আল আমিনে উম্মুল আল কওয়াইন এবং আল শিভায়েব অঞ্চলে ভারী বৃষ্টিপাত এবং নুড়ি বালি আকারের শিলাবৃষ্টি, দুবাই এবং উত্তরাঞ্চলীয় আমিরাতদের কিছু অংশে অনুভূত হয়েছিল বাতাসের ঝোড়ো প্রবাহিত ধুলি এনেছিল যা অনেক বাসিন্দাকে যারা সাপ্তাহিক ছুটি উপভোগ করতে বেরিয়েছিল এবং এর ফলে রাস্তাগুলিতে দৃশ্যমানতা হ্রাস পেয়েছে কর্তৃপক্ষ গাড়িচালকদের একটি সতর্কতা জারি করেছিল।

যারা আবহাওয়ার আকস্মিক শিফটে ধরা পড়েছিল তাদের মধ্যে দুবাইয়ের ক্রাউন প্রিন্স শেখ হামদান বিন মোহাম্মদ বিন রশিদ আল মাকতুম ছাড়া অন্য কেউ ছিলেন না, যিনি বৃষ্টির হিসাবে গাড়ির ভিতরে নিজের ইনস্টাগ্রাম স্টোরির ভিডিও পোস্ট করেছিলেন এবং দুবাইয়ের ধুলোয় ঝড় বয়ে গেছে যার ভিডিও পোস্ট করেছিলেন । শুক্রবারের গড় তাপমাত্রা সংযুক্ত আরব আমিরাত জুড়ে ৩৯-৪৬ ডিগ্রি সেলসিয়াসের মধ্যে ছিল। এনসিএম পূর্বাভাস অনুযায়ী, আজ এবং আগামীকাল বিকেলে দেশের কয়েকটি জায়গায় আরও বেশি বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা রয়েছে এবং হালকা থেকে মাঝারি দক্ষিণ-পূর্ব এবং উত্তর-পূর্ব বাতাসের কারণে দিনের বেলা ধুলোবালি ও বালু কোন বাতাসে বয়ে যাবে।

আবহাওয়াবিদদের মতে, গ্রীষ্মের সময় শিলাবৃষ্টি আসলে অস্বাভাবিক কিছু নয়। তারা ব্যাখ্যা করেছিলেন যে পৃষ্ঠের তাপমাত্রা উষ্ণ তবে উপরের বায়ুমণ্ডলটি এখনও যথেষ্ট শীতল তাই বৃষ্টি হচ্ছে ।শিলাবৃষ্টি যখন রূপান্তরিত হয় বাতাসের জলের ফোঁটাগুলি যথেষ্ট পরিমাণে বহন করে যেগুলি হিম হয়ে যায়। একটি শক্তিশালী আপডেটআউট শিলাবৃষ্টিগুলি এত বড় আকারে বাড়তে দেয় যে তারা পিছন পড়ে মাটিতে পৌঁছানোর সময় গলে যায় না এবং এভাবে শিলা আকারের বরফের খোসা বা শিলাবৃষ্টি হয়ে যায়।

বিদ্যুতের খুঁটিতে ঝুলছে লাইনম্যানের লা*শ !

১১ হাজারের ভোল্টেজের তার থেকে বিদ্যুৎ বিভাগের লাইনম্যান জালাল ফকিরের (৪১) ঝু*লন্ত লা*৮শ উদ্ধার করা হয়েছে। যশোর শহরের খোলাডাঙ্গার আয়েশা-আবেদ ফাউন্ডেশনের সামনে এই দু*র্ঘ*৮টনা ঘটে।

মঙ্গলবার (২০ আগস্ট) দুপুর ১টার দিকে ফায়ার সার্ভিস ও বিদ্যুৎ বিভাগের লোকজন লা**শ উদ্ধার করে। জালাল ফকির যশোর বিদ্যুৎ বিভাগ-১ এর লাইনম্যান এ চাকুরি করতেন। তিনি নেত্রকোনা জেলার হালিম ফকিরের ছেলে।বিদ্যুৎ বিভাগের সাব ডিভিশনের ইঞ্জিনিয়ার রবিউল করিম জানান, আজ মঙ্গলবার দুপুর পৌনে ১টার দিকে আয়েশা আবেদ ফাউন্ডেশনের সামনে ১১ হাজার ভোল্টেজের তার সংযোগ ঠিক করছিলেন।

লাইনম্যান জালাল ফকির লাইনের সুইচ অফ করার আগেই তিনি তারে হাত দেন। এসময় বিদ্যুতায়িত হন। যশোর ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা জালাল ফকিরের ঝুলন্ত দে**হ উদ্ধার করে যশোর জেনারেল হাসপাতালের জরুরী বিভাগের নিয়ে যায়।জরুরী বিভাগের ডাক্তার আহমেদ তারেক সামস বলেন, হাসপাতালে আনার আগেই তার মৃ**ত্যু হয়েছে।