এবার পাসপোর্ট বাতিলের ঘোষণা আ’ত্মগো’পনকারী প্রবাসীদের

মানিকগঞ্জে বিদেশফেরত হোম কোয়ারেন্টাইন না মানা আ’ত্মগো’পনকারী প্রবাসীদের পাসপোর্ট বা’তিল করার ঘো’ষণা দিয়েছেন জেলা প্রশাসক এস এম ফেরদৌস।মঙ্গলবার (২৪ মার্চ) রাতে এক গণবি’জ্ঞপ্তির মাধ্যমে এ ঘো’ষণা দেয়া হয়। এতে বলা হয়, বুধবারের মধ্যে জেলার প’লাতক প্রবাসীরা স্থানীয় প্র’শাসনের স’ঙ্গে যোগাযোগ না করলে তাদের পাসপোর্ট বাতিলের প্রক্রিয়া শুরু হবে।মানিকগঞ্জ জেলা পুলিশের তথ্যমতে, গত ১ মার্চ থেকে ২০ মার্চ পর্যন্ত বিভিন্ন দেশ থেকে বিমানবন্দর ও স্থলবন্দর দিয়ে মানিকগঞ্জে এসেছেন মোট ২ হাজার ৭০০ প্রবাসী।

এর মধ্যে ৮ মার্চ থেকে ২০ মার্চের মধ্যে এসেছেন ১ হাজার ৩৮৮ জন। বুধবার পর্যন্ত মানিকগঞ্জে মোট হোম কোয়ারেন্টাইনের আওতায় এ’সেছেন ৭৯২ জন। একই সময়ে ১৪ দিন পার হওয়ায় হোম কোয়ারেন্টাইন থেকে অ’বমু’ক্ত হয়েছে ২৯৩ জন। মঙ্গলবার পর্যন্ত বাকি ৪৯৯ জন হোম কোয়ারেন্টাইনে র’য়েছেন। কিন্তু অবশি’ষ্ট বিপু’ল সংখ্যক প্র’বাসীদের নিজ নিজ ঠিকানায় পাওয়া যায়নি।তাদের খুঁ’জতে প্র’শাসন মাঠে কাজ করছে জা’নিয়েছেন জেলা প্রশাসক। জেলা প্রশাসক এসএম ফেরদৌস আরও বলেন, মানিকগঞ্জের বিদেশফে’রত এ পর্যন্ত হোম কোয়ারেন্টাইনে না থেকে বাইরে ঘো’রাঘুরির অ’ভিযোগে ১০ জনকে বিভিন্ন অ’ঙ্কের জ’রিমানা করা হয়। আর যাদের নিজ নিজ ঠিকানায় খুঁ’জে পাওয়া যায়নি তাদের বের করতে প্রশাসন মাঠ প’র্যায়ে কাজ করছে।

জেলা থেকে শুরু করে প্রতিটি ইউনিয়নের ওয়ার্ড পর্যায়ে প্রশাসনের নজ’রদারি করেও তাদের না পাওয়ায় ধা’রণা করা হচ্ছে তারা আ’ত্মগো’পন করে র’য়েছেন।এদিকে করোনা সঙ্ক’ট মো’কাবিলায় জেলা প্রশাসনকে স’হায়তার জন্য মানিকগঞ্জে মা’ঠে নে’মে’ছে সেনাবা’হিনী।গণবিজ্ঞপ্তি দিয়ে মানিকগঞ্জ জেলা প্রশাসক মঙ্গলবার থেকে শপিংমল, বানিজ্য কেন্দ্র, রেস্টুরেন্ট, বিনোদন পার্ক, মেলা, সামাজিক অনুষ্ঠান, সাপ্তাহিক হাট, চায়ের দোকানের আড্ডাসহ জনস’মাগম হয় এমন সব স্থান পরবর্তী নির্দে’শ না দেয়া পর্যন্ত বন্ধ রাখার নি’র্দেশ দিয়েছেন।

সব ক্ষুদ্র ঋণ আদায় কার্যক্রমও পরবর্তী নির্দেশ না দেয়া পর্যন্ত ব’ন্ধ থা’কবে।তবে খাদ্য সামগ্রী, ওষুধ, নি’ত্যপ্রয়োজনীয় দ্র’ব্যাদির সব দোকানপাট কাঁ’চা বাজার, চিকিৎসা ব্য’বস্থা যথারীতি খো’লা থাকবে। ওইসব স্থানে ১ মিটার পর্যন্ত নি’রাপদ দূ’রত্ব ব’জায় রাখার নি’র্দেশ দেয়া হয়েছে। মাইকিং করে নির্দে’শ জা’রির পর পর শহরের দোকানপাট ব’ন্ধ হয়ে গেছে।এদিকে পাটুরিয়া-দৌলতদিয়া নৌরুটে ভোর থেকে অসং’খ্য হয়ে মানুষ ঘরে ফে’রছে। যা করোনা ভাইরাস ছ’ড়িয়ে পড়ার ঝুঁ’কিতে রয়েছে ঢাকা-পাটুরিয়া মহাসড়কসহ জেলার অন্যান্য মানুষ।