এবার রিফাত হ*ত্যা*য় স্ত্রী মিন্নীকে নিয়ে নতুন নাটকের উন্মোচন

মিন্নি নিরা*পত্তার নামে তাকে রাখা হয়েছে নজরবন্দি। ভাইরাল হওয়া ফুটে*জে*র নানা ব্যাখ্যা তৈরি করে ছড়িয়ে দেওয়া হচ্ছে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে।

মিন্নির পরিবারের অভিযোগ, রিফাত হ*ত্যা*কা*ন্ডে মিন্নির নেপথ্য কোনো ভূমিকা আছে কিনা তা অনু*সন্ধানে ব্যস্ত হয়ে আইন*শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী আইনের ফাঁকফোকর দিয়ে খু*নিদের রেহাই পাওয়ার সুযোগ করে দিচ্ছে। বরগুনার বিশিষ্টজনেরা বলছেন, রিফাত শরী*ফের সব খু*নি*কে আগে আইনের আওতায় আনা হোক।

মিন্নিকে দো*ষারোপ করা মানেই হলো খু*নি*দের কৌশলে রক্ষা করা। তারা খু*নি*দের গ্রে*ফতার করে বিচারের বিষয়ে সোচ্চার হওয়ার আহ্বান জানান। তবে পুলিশ বলছে, এটি একটি নার*কীয় রো*ম*হর্ষক হ*ত্যা । মিন্নি এ মামলার এক নম্বর সাক্ষী। কোনো ব্যক্তি*কে টা*র্গেট করে ত*দন্ত হচ্ছে না।

দিনের আলোয় কয়েক শ মানুষের সামনে ধা*রালো অ*স্ত্র দিয়ে রিফাতকে যখন স*ন্ত্রা*সীরা এলো*পাতাড়ি কো*পাচ্ছি*ল, তখন সাহায্যে মিন্নি ছাড়া আর কেউ এগিয়ে আসেনি। স্বামীর জীবন বাঁচাতে নিজেই জীবন বাজি রেখেছিলেন সেদিন।

তিনি প্রথমে আশপাশে দাঁড়ানো পথচা*রীদের উদ্দেশে ‘হেল্প হেল্প’ বলে চিৎকার করতে থাকেন। কেউ এগিয়ে না এলে একাই স*শ*স্ত্র যুব*কদের নি*বৃত্ত করার চেষ্টা চালান। স*শস্ত্র একজনকে জাপটে ধরে রাখলেও, অন্য দিক থেকে আরেকজন কো*পা*তে থাকে রিফাতকে। সেদিকে আবারও ছুটে যান মিন্নি। ধা*রা*লো অ*স্ত্রসহ জা*পটে ধরে বাধা দেন।

কিন্তু একা মিন্নি আর কজনকে বাধা দিয়ে রাখবেন? পারেননি তিনি। কয়েকজন মিলে কো*পা*তে থাকে রিফাতকে। প্রকাশ্যে র*ক্তে*র হো*লি খেলায় মেতে ওঠে সশ*স্ত্র স*ন্ত্রা*সীরা। রিফাতকে বাঁচা*নো যায়নি। বরগুনা শহরের এ পৈ*শাচিক ঘটনার দুটি ভিডিও ফুটেজ সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমগুলোয় এখন ভাইরাল।

বিয়ের মাত্র দুই মা*সের মাথায় স*শস্ত্র সন্ত্রা*সী*দের হাত থেকে স্বামী*কে বাঁ*চাতে যে মেয়েটি জীবন বাজি রেখেছিলেন, সেই তাকেই এখন মামলায় ফাঁ*সা*নোর চেষ্টা চলছে। চোখের সামনে স্বা*মীকে খু*ন হতে দেখে মিন্নির জীবন যখন দু*র্বিষহ, ঠিক তখনই তাকে নানাভাবে হ*য়*রানি করা হচ্ছে।