অবশেষে দুবাইতে বাস দুর্ঘটনায় ১৭ জন নিহত হওয়ার কারণ উদঘাটন হল !

বাসের ড্রাইভারটি উচ্চতা সীমাবদ্ধতা বাধাগ্রস্ত হয়ে নোটিশ বোর্ড লক্ষ্য করতে বার্থ হয় এবং 17 জন যাত্রীকে মৃতর কোলে ফেলে দেয়। মস্কাট-দুবাই রুটে দুর্ঘটনার সময় তার ছেলে বাসে ছিল এবং খালেজ টাইমসকে বলেছেন চালক সাঈদ মোহাম্মদ,

স্থিতিশীল অবস্থার মধ্যে পুনরুদ্ধার করছেন। বৃহস্পতিবার আল রাশিদিয়া মেট্রো স্টেশনের কাছে সংঘটিত দুর্ঘটনায় পলিশের কাছে বলে “দিনের বেলা সূর্য থেকে ড্রাইভারের চোখ রক্ষা করার জন্য উইন্ডশীল্ডে একটি পর্দা রাখা ছিল , যার ফলে আমার বাবা সাইনবোর্ডটি লক্ষ্য করতে ব্যর্থ হন বলে জানান।

আল রাশিদিয়া রাস্তায় কেবল ফিরতি গাড়িগুলি চলার অনুমোদিত ছিল আর ভুল করে এই রাস্তায় বাসটি ঢুকে পরে এই মারাত্মক দুর্ঘটনায় পতিত হয় । বাসটির গতি সীমা বেশি থাকায় বাস থামাতে পারিনি, “তার ছেলে হায়থাম বলেন।

পুলিশ আরো জানায়, চালক রাস্তায় 40 কিলোমিটার গতির সীমা অতিক্রম করছিলেন।
প্রভাবটি এমন ছিল যে বাধাটি বাসের বাম দিক দিয়ে আঘাত প্রাপ্ত হয় এবং বামদিকে থাকা ১৭ জন নিহত হয় । চালকের অসতর্কতার কারণেই এই দুর্ঘটনা হয়।