মারাই গেলেন হোয়াইট হাউসের পাশে নিজ গায়ে আগুন দেওয়া সেই লোকটি

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের সরকারি দপ্তর ও বাসভবন হোয়াইট হাউজের সামনে এক ব্যক্তি গায়ে আগুন দিয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা করেছে।

তবে নিরাপত্তাকর্মীরা দ্রুত ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে চিকিৎসা দেয়ার পরও বাঁচানো যায়নি তাকে। যুক্তরাষ্ট্রের রাজধানী ওয়াশিংটন ডিসি’র এলিপস পার্কে বুধবার বিকেলে দর্শকদের সামনে নিজের গায়ে আগুন ধরিয়ে দেন তিনি।

এলিপস পার্ক পুলিশ তার মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেছে। পুলিশ কর্মকর্তারা জানান, মৃত ওই ব্যক্তির নাম অর্নব গুপ্ত। তিনি যুক্তরাষ্ট্রের মেরিল্যান্ড স্টেটের বেদেসদা এলাকায় থাকতেন। তাঁর পরিচয় এখনো জানা যায়নি। তবে তিনি দক্ষিণ এশীয় বলে ধারণা করা হচ্ছে।

নিজের শরীরে আগুন লাগানোর কারণ তাৎক্ষণিকভাবে জানাতে পারেনি পুলিশ।

৫২ একর জমিতে গড়ে ওঠা এলিপস পার্কটি হোয়াইট হাউসের দক্ষিণে অবস্থিত। এর অবস্থান ওয়াশিংটন ডিসি’র কেন্দ্রস্থলে, ন্যাশনাল মলের উত্তরে এবং ওয়াশিংটন স্মৃতিস্তম্ভ’র ঠিক উত্তরে।

আগুন লাগানোর পর দেশটির সিক্রেট সার্ভিস’র মুখপাত্র জেফ্রে অ্যাডামস এক বিবৃতিতে বলেছিলেন, ‘খবর পেয়ে মুহূর্তেই সংশ্লিষ্ট বিভাগের নিরাপত্তাকর্মীরা ঘটনাস্থলে পৌঁছান। তারা ওই ব্যক্তির শরীরের আগুন নিভিয়ে তাকে প্রাথমিক চিকিৎসা দেন। পরে তাকে স্থানীয় হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়।

একজন প্রত্যক্ষদর্শী জানান, তিনি ন্যাশনাল মলের দিকে যাচ্ছিলেন। হঠাৎ এক ব্যক্তিকে এলিপস পার্কের ভেতর দৌড়ে যেতে দেখেন। এরপরই দেখা যায় ওই ব্যক্তির সারা শরীরে আগুন জ্বলছে। কয়েক মুহূর্তের মধ্যেই ঘটনাস্থলে সংশ্লিষ্ট বিভাগের নিরাপত্তাকর্মীরা আগুন নিভিয়ে তাকে উদ্ধার করেন।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ঘটনার ওপর একটি ভিডিও ব্যাপক সাড়া ফেলেছে। ভিডিওটিতে দেখা যায়, দাউ দাউ করা আগুনে জ্বলন্ত শরীর নিয়ে হেঁটে যাচ্ছেন অর্নব গুপ্ত।

এর আগে গত ১২ এপ্রিল হোয়াইট হাউসের গেইটের সামনে একটি ইলেকট্রিক স্কুটারে চেপে নিজের জ্যাকেটে আগুন ধরিয়েছিলেন এক ব্যক্তি।