আমিরাতে দ্বিতীয় বাংলাদেশি হিসেবে গোল্ড কার্ড পেলেন মাহবুব আলম মানিক !

আমিরাতে দ্বিতীয় বাংলাদেশি হিসেবে গোল্ড কার্ড পেলেন মাহবুব আলম মানিক। এর আগে আল হারামাইন গ্রুপের কর্ণধার মাহাতাবুর রহমান নাসির প্রথম বাংলাদেশি হিসেবে এ গোল্ড কার্ড পেয়েছেন।

সং*যুক্ত আরব আমিরাত সরকার ঘো*ষিত আমিরাতে বসবাসরত গুরুত্বপূর্ণ ব্যবসায়ী হিসেবে গোল্ডকার্ড পেয়েছেন টোকিও সেট গ্রুপ অব কোম্পানির চেয়ারম্যান মাহবুব আলম মানিক।বৃহস্পতিবার সকালে দুবাই ইমিগ্রেশন তাকেসহ তার পুরো পরিবারকে গোল্ড কার্ড তথা ১০ বছরের আমিরাতের ভিসা প্রদান করে।

মাহবুব আলম মানিকের বাড়ি কুমিল্লার কোতয়ালী থানার ধনুয়াখলা গ্রামে। ১৯৯২ সালে সৌদি আরব দিয়ে প্রবাস জীবনের যাত্রা শুরু। ২০০০ সালে তিনি আমিরাতে বসতি শুরু করেন। অল্প সময়ের মধ্যে বাংলাদেশি কমিউনিটিসহ আরব আমিরাতের বাজারে টোকিওসেট গ্রুপ দিয়ে খ্যাতি অর্জন করেছেন তিনি। তিনি ২০১৬ এবং ২০১৭ সালে বাংলাদেশ ব্যাংক রেমিটেন্স অ্যাওয়ার্ড লাভ করেছেন। তার সহধর্মিনী জেসমিন আক্তারও মধ্যপ্রাচ্যের প্রথম মহিলা সিআইপি হিসেবে গৌরব অর্জন করেছেনতিনি বাংলাদেশ বিজনেস কাউন্সিল দুবাইয়ের সহ সভাপতির দায়িত্বে রয়েছেন।

এর আগে প্রথম বাংলাদেশি হিসেবে বাংলাদেশ বিজনেস কাউন্সিল দুবাইয়ের সভাপতি আল হারামাইন গ্রুপের কর্ণধার মাহতাবুর রহমান নাসির সিআইপি এ গোল্ডকার্ড পান।এদিকের দ্বিতীয় বাংলাদেশির গোল্ডকার্ড প্রাপ্তিতে বাংলাদেশ কমিউনিটিতে খুশির বন্যা নেমেছে। আমিরাতে নিজেদের গৌরব নিয়ে বাংলাদেশের ইমেজ দিন দিন বাড়ছে বলে অনেকে সন্তোষ প্রকাশ করেন।

দুবাইতে এশিয়ান ড্রাইভার মূল্যবান সম্পদ ফেরৎ দেওয়ায় পুলিশ তাকে যে সার্টিফিকেট প্রদান করল।

দুবাই পুলিশ সম্প্রতি ট্যাক্সি ড্রাইভার শাফাত খান আব্দুল রাশিদকে তার সততার জন্য সম্মানিত করেছে, কারণ তার ট্যাক্সিতে ডেনিশ পরিবারের ফেলে যাওয়া নগত 21,000 ডলার নগদ, একটি মোবাইল ফোন এবং কয়েকটি পাসপোর্ট আল রাশিদিয়া ফেরত দিয়েছেন।

আল রশিদিয়া থানার ওসি ব্রিগেডিয়ার সৈয়দ হামাদ বিন সুলাইমান আল মালেক, বাহিনীর পক্ষ থেকে ওই এশিয়ান চালকের ধন্যবাদ জানান এবং সমাজ ও পুলিশের মধ্যে সহযোগিতার গুরুত্বকে জোর দিয়ে তার ইতিবাচক প্রতিক্রিয়া প্রশংসা করেন।

তার নৈতিক আচরণ, সততা ও ভালো আচরণের স্বীকৃতিস্বরূপ, শাফাফত খান আব্দুল রাশিদকে কৃতজ্ঞতা প্রতীক হিসেবে একটি সার্টিফিকেট প্রদান করা করেন ।ব্রিগেডিয়ার আল মালেকও পরিবারের সাথে সাক্ষাত করেন যারা দুবাই পুলিশকে তাদের হারানো মালামাল ফেরত পায় এবং সৎ ট্যাক্সি ড্রাইভারকে তাদের মূল্যবান জিনিস ফেরত দেওয়ার জন্য কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন।

আরব আমিরাতের পালিশ বাহিনীর পক্ষ থেকে তাকে সম্মানিত করে এবং আরব আমিরাতে তার মতো সৎ ট্যাক্সি ড্রাইভার দেশের সুনাম বজায় রাখবে বলে আশা করে। আরব আমিরাতে প্রতি বছর হাজার হাজার পর্যটক আসে তারা এদেশে স্বাধীন ভাবে চলাচল করতে পারবে বলে ব্রিগেডিয়ার সৈয়দ হামাদ বিন সুলাইমান আল মালেক গর্ব বোধ করে ।

আরব আমিরাতে নতুন ভিসা সার্ভিস আরম্ব ! মাত্র এক ঘন্টায় আবেদন সম্পন্ন করে !

আরব আমিরাতের আজমানে একটি নতুন ভিসা কেন্দ্রে খোলা হয়েছে আবেদনকারীরা মাত্র এক ঘন্টায় তাদের সমস্ত ভিসা সম্পর্কিত সব পদ্ধতি সম্পন্ন করতে পারবে ।

লাইক ভিসা সমন্বিত কেন্দ্র ফিটনেস সার্টিফিকেট, আমিরাত আইডি, ইমিগ্রেশন আনুষ্ঠানিকতা এবং পাসপোর্টে ভিসা স্ট্যাম্প সহ সমস্ত স্ক্রীনিং ভিসা পরিষেবা সরবরাহ করবে। কর্মকর্তারা বলেন, পুরো ক্লায়েন্ট ভিসা স্ট্যাম্পিংয়ের জন্য ফিটনেস স্ক্রীনিং দিয়ে শুরু করে, মাত্র এক ঘন্টা সময় নেয়।

কেন্দ্রীয় মেডিক্যাল সার্ভিসের পরিচালক নূর আল শমরি বলেন, এটি সরকারি অ্যাক্সিলারেটর স্থাপন করতে অক্টোবর 2016 সালে জারি করা মন্ত্রিসভার একটি সিদ্ধান্ত বাস্তবায়নের প্রচেষ্টার অংশ ।এটি রেসিডেন্সি ভিসা, ভিসা পুনর্নবীকরণ এবং অন্যান্য সম্পর্কিত পরিষেবাদি পাওয়ার জন্য দ্রুত সেবা প্রদান করে।

এই সেবাগুলি হেলথ অ্যান্ড প্রিভেনশন মন্ত্রক, আইমিট্রেট আইডেন্টিটি অ্যান্ড নাগরিকেশন অথরিটি, রেজিডেন্সি ও বিদেশী বিষয়ক মহাপরিচালক, টেলিকম রেগুলেটরি অথরিটি এবং অর্থ মন্ত্রণালয় সব কিছু এখানে সম্পন্ন করা হচ্ছে। Laiq Visa Comprehensive Centre azman . সূত্র : খালিজ টাইমস

আমিরাতের তেল ট্যাংকার হরমুজ প্রণালীতে গায়েব করেছে ইরান :মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র

হরমুজ প্রণালী থেকে আমিরাতের তেলের ট্যাংকার ইরান গায়েব করেছে বলে সন্দেহ করছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র। জাহাজের ট্রাকিং তথ্য দেখাচ্ছে, শনিবার ওই এলাকায় সংযুক্ত আরব আমিরাতভিত্তিক পানামানিয়ান পতাকাবাহী তেলের জাহাজটি থেমে ছিল। খবর আরব নিউজ। সবশেষ জাহাজের এমন ঘটনা ওই এলাকায় মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ও ইরানের মধ্যে কয়েকমাস ধরে চলমান উত্তেজনা আরও বাড়িয়ে তুলছে।মধ্যপ্রাচ্যে পরমাণু কর্মসূচি ও বিদেশি আগ্রাসনের নীতির বিরুদ্ধে ইরানের ওপর মার্কিন অর্থনীতি ও সামরিক চাপ বাড়ানোয় তেহরান কয়েকটি তেলের ট্যাংকারের হামলার ঘটনায় জড়িত বলে সন্দেহ করা হচ্ছে।

এ মাসে সিরিয়াতে তেল হস্তান্তর করতে যাওয়া ইরানের একটি তেলের জাহাজকে ব্রিটিশ নৌবাহিনী জাবাল আল-তারিক প্রণালীর কাছে আটক করে। এ ঘটনায় ইরান প্রতিশোধের হুমকি দিয়েছিল।মার্কিন প্রতিরক্ষা কর্মকর্তা এপিকে বলেছেন, নিখোঁজ জাহাজ ‘রিয়া’ গেশম দ্বীপের কাছে ইরানি ভূখণ্ডের জলসীমার মধ্যে রয়েছে, যেখানে ইরানের বিপ্লবী বাহিনীর ঘাঁটি রয়েছে। তিনি আরও বলেন, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র সন্দেহ করছে ইরান জাহাজটি আটক করেছে।

ওই কর্মকর্তা বলেন, দীর্ঘ সময় ধরে তাদের সঙ্গে কোনো যোগাযোগ করা যাচ্ছে না, এটি উদ্বেগ বাড়িয়ে তুলছে। এদিকে ইরানের দাবি, তিন দিন আগে জাহাজটি হরমুজ প্রণালিতে ঢুকে এটির লোকেশন ট্রান্সমিশন বন্ধ করে বসেছিল। ৫৮ মিটার লম্বা তেলের ট্যাংকার ‘রিয়া’ শনিবার হরমুজ প্রণালীর কাছে কোনো অঘটনে পড়ে।

ডাটা ফার্ম রেফিনিটিভের ক্যাপ্টেন রনজিৎ রাজা এপিকে বলেন, ট্যাংকারটি সংযুক্ত আরব আমিরাতে চারপাশে ৩ মাস ভ্রমণ করেছিল। এর মধ্যে কখনো ট্রাকিং সুইচ অফ করেনি। এটি লাল পতাকাবাহী।আমিরাতে এক কর্মকর্তা আল আরাবিয়াকে বলেছে, তেলের ট্যাংকারটি আমাদের না, আমরা এটি পরিচালনা করতাম। আমরা আমাদের আন্তর্জাতিক অংশীদারদের সঙ্গে ঘটনা পর্যবেক্ষণ করছি।

দুবাই এক ইন্ডিয়ান ছাত্র তার আরাবিক বান্ধবীকে ধ*র্ষ*ণের অভি*যোগে কারাদণ্ড !

দুবাই ফৌজদারী আদালতে ২২ বছর বয়সের একজন ইন্ডিয়ান ছাত্র তার 16 বছর বয়সী আরাবিক বান্ধবীকে ধ*র্ষ*ণের অভি*যোগে বিচারের সম্মুখীন হয়েছিল। মেয়েটির নাম আল নাহদা।

পাবলিক প্রসিকিউশনের জিজ্ঞাসাবাদ মতে, এই ঘটনাটি গত এপ্রিলে ঘটে। অভিযুক্ত ছাত্র এবং মেয়েটি একই স্কুলে পড়াশুনা করে তখন তারা দূরে কোথায় ঘুরতে যাওয়ার সম্মত হয় ।যখন তখন ছেলেটি তাকে আল মামজার বিচ পারে নিয়ে যায় ।

সমুদ্র সৈকতে কিছু সময় কাটানোর পর, তিনি মেয়েটিকে তার গাড়ীর পেছনে বসতে বলেছিলেন। পরে যুবকটি এসে মেয়েটিকে চু*ম্বন শুরু করলো এবং তাকে শারী*রিক নি*র্যা*তন করল। মেয়েটি বাধা দিয়েছিলো কিন্তু সে মেয়েটিকে জোর করে যৌ*ন নি*র্যাতন করেছিল।

পরে, মেয়েটি র*ক্তপা*ত দেখে সে তাকে তার এলাকায় গিয়ে নামিয়ে দিয়ে আসে । মেয়েটি বাড়ি ফিরলে সে তার বোনকে পুরো ঘটনা সম্পর্কে বলে । তার বোন বাবাকে জানালেন, যিনি বিষয়টি পুলিশকে জানিয়েছিলেন। পরে পুলিশ ত*দন্ত শুরু করে।আদালত ছেলেটিকে ১ বছরের কারা*দণ্ড দিয়েছে।

একজন ইন্ডিয়ান ছাত্র তার আরাবিক বান্ধবীকে ধ*র্ষ*ণের অভি*যোগে কারাদণ্ড !

দুবাই ফৌজদারী আদালতে ২২ বছর বয়সের একজন ইন্ডিয়ান ছাত্র তার 16 বছর বয়সী আরাবিক বান্ধবীকে ধ*র্ষ*ণের অভি*যোগে বিচারের সম্মুখীন হয়েছিল। মেয়েটির নাম আল নাহদা।

পাবলিক প্রসিকিউশনের জিজ্ঞাসাবাদ মতে, এই ঘটনাটি গত এপ্রিলে ঘটে। অভিযুক্ত ছাত্র এবং মেয়েটি একই স্কুলে পড়াশুনা করে তখন তারা দূরে কোথায় ঘুরতে যাওয়ার সম্মত হয় ।যখন তখন ছেলেটি তাকে আল মামজার বিচ পারে নিয়ে যায় ।

সমুদ্র সৈকতে কিছু সময় কাটানোর পর, তিনি মেয়েটিকে তার গাড়ীর পেছনে বসতে বলেছিলেন। পরে যুবকটি এসে মেয়েটিকে চু*ম্বন শুরু করলো এবং তাকে শারী*রিক নি*র্যা*তন করল। মেয়েটি বাধা দিয়েছিলো কিন্তু সে মেয়েটিকে জোর করে যৌ*ন নি*র্যাতন করেছিল।

পরে, মেয়েটি র*ক্তপা*ত দেখে সে তাকে তার এলাকায় গিয়ে নামিয়ে দিয়ে আসে । মেয়েটি বাড়ি ফিরলে সে তার বোনকে পুরো ঘটনা সম্পর্কে বলে । তার বোন বাবাকে জানালেন, যিনি বিষয়টি পুলিশকে জানিয়েছিলেন। পরে পুলিশ ত*দন্ত শুরু করে।আদালত ছেলেটিকে ১ বছরের কারা*দণ্ড দিয়েছে।

আজ সকালে আবুধাবিতে বাস দুর্ঘটনায় প্রাণে বেঁচে গেল ৫২ জন হজযাত্রী !

আজ মঙ্গলবার সকালে আরব আমিরাতে ৫২ জন হজ্জ্ব যাত্রীসহ একটি বাস দুর্ঘটনা ঘটে কিন্তু ভাগ্যক্রমে বড় ধরণের দুর্ঘটনার হাত থেকে বেঁচে যায় ৫২ হাজী সহ বাসটি ।

আবুধাবি পুলিশ কর্তৃক জারি করা একটি বিবৃতি অনুসারে, ৫২ জন হজ্জ্ব যাত্রী পবিত্র শহর মক্কা থেকে উমরাহ পালন করে আবুধাবি হয়ে ওমানের সুলতানতে পৌঁছানোর সময় বাসে এ দুর্ঘটনা ঘটে । একটি সংযুক্ত আরব আমিরাত মহাসড়কে বাসটি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে মেটাল বাধ ভেঙে গিয়ে বাইরে চলে যায় । ওমানের দিকে আবুধাবি শেখ খলিফা বিন জায়েদ রোড এ দুর্ঘটনা ঘটে।

এ দুর্ঘটনায় কারো কোন হতাহতের ঘটনা বা আঘাতের খবর পাওয়া যায়নি। আবুধাবি ট্রাফিক পুলিশের বহিরাগত অঞ্চলের ট্রাফিক বিভাগের পরিচালক জানান, হজ্জ্ব যাত্রীদের উদ্ধারের জন্য অবিলম্বে দুর্ঘটনাস্থলে পৌঁছে ।

একটি বিকল্প পরিবহন ব্যবস্থা করা হয় না হওয়া পর্যন্ত তাদের বিভিন্ন সেবা , খাবার এবং পানীয় সরবরাহ করা হয়েছে।পুলিশ নিয়মিত যানবাহন চালানোর জন্য সতর্কতা অবলম্বন করে এবং দুর্ঘটনা এড়াতে ট্র্যাফিকের নিয়ম ও স্পিড সীমাগুলি অনুসরণ করতে নির্দেশ দিয়েছে ।

আরব আমিরাতে যে কারণে পুলিশি অভি*যানের লক্ষ্যে বাংলাদেশী প্রবাসীরা !

শারজাহ পুলিশের ফৌজদারি ত*দন্ত বিভাগের পরিচালক কর্নেল ইব্রাহিম আল আজিল বলেন, গত ৩ মাসে মোট ৩৭ জন এশিয়ান ধ*রেছে যারা রাস্তায় মোবাইল প্রিপেইড লোড রকেট বিক্রি করে ।মোবাইল প্রিপেইড বিক্রয়কারীদের উপর ব্যাপক পুলিশি অভি*যান সত্ত্বেও, প্রিপেইড ক্রেডিট প্রদানকারীদের এখনও শারজাহ রাস্তায় দেখছে, কর্তৃপক্ষ এবং অধিবাসীরা বলেছে।

পুলিশ জানায়, “গ্রে*প্তারকৃত বেশিরভাগই ছিল বাংলাদেশী শ্রমিক এবং অ*বৈধ বাসিন্দা । কিছু লোককে বিশেষভাবে এই কাজ করার জন্য আরব আমিরাতে আসছে “।শারজায় বিভিন্ন রাস্তায় যেমন – রোল, গুয়াইয়ার, মুসাল্লা, মায়সলন এবং বান্টাইনের কিছু নির্দিষ্ট স্থানে তারা প্রায়ই দাঁড়িয়ে থাকে। ন্যূনতম প্রিপেইড ক্রেডিট ২৫ দিরহাম দিয়ে কেনার সামর্থ্য রাখে এমন শ্রমিকদের লক্ষ্য করে এবং তারা রাস্তায় মানুষকে থামিয়ে ২ , ৩ , ৫ ,১০ দিরহাম বা বিভিন্ন অংকের ক্রেডিট ট্রানফার দিয়ে থাকে।

বাসিন্দাদের অভিযোগ : ওই এলাকার বেশিরভাগ বাসিন্দারা তাদের এলাকার রাস্তায় এসব লোকদের উপস্থিতির বিষয়ে পুলিশের কাছে উ*দ্বেগ প্রকাশ করেছেন, কারণ মধ্যরাত পর্যন্ত তাদের রাস্তায় গাড়ি থামিয়ে তাদের কাছ থেকে লোড কিনতে অনুরোধ করতে দেখা যায়। একজন অধিবাসী তিনি রোলায় থাকেন ও সেখানে কাজ করেন , তিনি বলেন, তার অফিসে প্রতিদিন তার হাঁটার সময় তাকে প্রিপেইড লোড করার জন্য অফার করে থামাত।

শীর্ষে, গবেষক ও আইন উপদেষ্টা খালেদ আল মাজমি বলেন, ত*দন্তে দেখা গেছে যে এই ধরনের এটি একটি বড় অপরাধের অংশ। রাস্তায় প্রিপেইড ক্রেডিট বিক্রি মূলত অ*বৈধ কারণ এই ধরনের ব্যবসায়ের জন্য কোন লাইসেন্স হয়নি এবং এটি একটি নিরাপ*ত্তা হু*মকি হয়ে দাঁড়িয়েছে।

শরজাহ মিসডেমার কোর্টে সাম্প্রতিক একটি মামলায়, এশিয়ান এক লোক একজন আরব নারীর কাছ থেকে ৩৮০০ দিরহাম মোবাইল ক্রেডিট কার্ড নিয়েছে । আরব মহিলাকে ফোন করে বলেছে তিনি ১ মিলিয়ন দিরহাম পুরস্কার পেয়েছেন এই অর্থ পেতে তাকে ক্রেডিট কার্ড কিনতে বলে এবং ভুল বুঝিয়ে তার নম্বর নিয়ে তাদের মোবাইল নিয়ে যায়।

পরে ফোন কেটে দিয়ে আর কল ধরে না।
আদালতে ওই লোকটি এসব স্বীকার করেছে এবং বলেছে যে তিনি রাস্তায় মানুষের কাছে ক্রেডিট বিক্রি করেছে।পুলিশ জানায় গত কয়েক বছরে অনেকগুলো কেস পাওয়া গেছে যারা ফোন করে বিভিন্ন লোকের কাছ থেকে পুরুস্কারে অর্থের কথা বলে কয়েক লক্ষ দিরহাম নিয়েছে। তাই পুলিশ সকল বাসিন্দাদের এই ধরণের ফোন কল থেকে সতর্ক থাকার আহ্বান করেছে।

সংযুক্ত আরব আমিরাতে মাসে এক লাখ টাকা বেতনের চাকরি, নির্বাচিত হল ৩০ যুবক !

দুবাইয়ে মাসে এক লাখ টাকা বেতনের চাকরি নীলফামারীর ৩০ যুবক কারিগরি প্রশিক্ষণকেন্দ্র থেকে আটজনের পর এবার ৩০ যুবক দুবাইয়ে যাওয়ার জন্য নির্বাচিত হয়েছেন। রাজধানী ঢাকায় এ সংক্রান্ত পরীক্ষা শেষে তাদের উত্তীর্ণ হিসেবে নির্বাচিত করা হয়েছে।

নীলফামারী টিটিসি সূত্র হতে জানা যায়, এসইআইপি প্রকল্পের চার মাস ও স্বনির্ভর কোর্সের আওতায় দুই মাসের প্রশিক্ষণ শেষে দুই ব্যাচ থেকে ২০ জন করে ৪০ জনকে চূ*ড়ান্ত পরীক্ষার জন্য পাঠানো হয় ঢাকায়।এদের মধ্যে ৩০ জন উত্তীর্ণ হন। নির্বাচিতরা সরকারিভাবে দুই লাখ টাকায় সংযুক্ত আরব আমিরাতে যেতে পারবেন। সেখানে ট্যাক্সিচালক হিসেবে মাসে অন্তত এক লাখ টাকা উপার্জন করতে পারবেন বলে সূত্রটি জানায়।

স্কিলস ফর এমপ্লয়মেন্ট ইনভেস্টমেন্ট প্রোগ্রাম (এসইআইপি) প্রকল্পের চার মাসের কোর্সটি গত জানুয়ারি থেকে মার্চ এবং স্বনির্ভর কোর্সটি এপ্রিল থেকে মে পর্যন্ত হয়। দুই কোর্সে ২০ জন করে ৪০ জন প্রশিক্ষণার্থী ছিলেন।সোমবার নীলফামারী কারিগরি প্রশিক্ষণকেন্দ্রের অধ্যক্ষ জিয়াউর রহমান জানান, প্রতিষ্ঠানটির চালক প্রশিক্ষণ কোর্সের প্রথম ব্যাচ থেকে দুবাই যেতে আটজন ভিসাপ্রাপ্ত হয়েছে। তারা যেকোনো সময় পাড়ি জমাবে বিদেশের মাটিতে।

তিনি আরও বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রতিশ্রুতি অনুযায়ী প্রত্যেক উপজেলা থেকে এক হাজার দক্ষ শ্রমিক বিদেশে পাঠানোর যে লক্ষ্য সেটি পূরণে কাজ করছি আমরা। দক্ষ জনশক্তি বিদেশ গেলে পিছিয়ে পড়া উত্তরের নীলফামারী জেলাতে বেকারত্বের হার কমবে। আর্থ-সামাজিক উন্নয়নে বিশেষ ভূমিকা রাখবে এ জেলাটি।

আরব আমিরাতে যে কারণে এশিয়ান প্রবাসীদের পুলিশি অভি*যান !

শারজাহ পুলিশের ফৌজদারি ত*দন্ত বিভাগের পরিচালক কর্নেল ইব্রাহিম আল আজিল বলেন, গত ৩ মাসে মোট ৩৭ জন এশিয়ান ধরেছে যারা রাস্তায় মোবাইল প্রিপেইড লোড রকেট বিক্রি করে ।মোবাইল প্রিপেইড বিক্রয়কারীদের উপর ব্যাপক পুলিশি অভিযান সত্ত্বেও, প্রিপেইড ক্রেডিট প্রদানকারীদের এখনও শারজাহ রাস্তায় দেখছে, কর্তৃপক্ষ এবং অধিবাসীরা বলেছে।

পুলিশ জানায়, “গ্রে*প্তারকৃত বেশিরভাগই ছিল এশিয়ান শ্রমিক এবং অ*বৈধ বাসিন্দা । কিছু লোককে বিশেষভাবে এই কাজ করার জন্য আরব আমিরাতে আসছে “।শারজায় বিভিন্ন রাস্তায় যেমন – রোল, গুয়াইয়ার, মুসাল্লা, মায়সলন এবং বান্টাইনের কিছু নির্দিষ্ট স্থানে তারা প্রায়ই দাঁড়িয়ে থাকে। ন্যূনতম প্রিপেইড ক্রেডিট ২৫ দিরহাম দিয়ে কেনার সামর্থ্য রাখে এমন শ্রমিকদের লক্ষ্য করে এবং তারা রাস্তায় মানুষকে থামিয়ে ২ , ৩ , ৫ ,১০ দিরহাম বা বিভিন্ন অংকের ক্রেডিট ট্রানফার দিয়ে থাকে।

বাসিন্দাদের অভিযোগ : ওই এলাকার বেশিরভাগ বাসিন্দারা তাদের এলাকার রাস্তায় এসব লোকদের উপস্থিতির বিষয়ে পুলিশের কাছে উ*দ্বেগ প্রকাশ করেছেন, কারণ মধ্যরাত পর্যন্ত তাদের রাস্তায় গাড়ি থামিয়ে তাদের কাছ থেকে লোড কিনতে অনুরোধ করতে দেখা যায়। একজন অধিবাসী তিনি রোলায় থাকেন ও সেখানে কাজ করেন , তিনি বলেন, তার অফিসে প্রতিদিন তার হাঁটার সময় তাকে প্রিপেইড লোড করার জন্য অফার করে থামাত।

শীর্ষে, গবেষক ও আইন উপদেষ্টা খালেদ আল মাজমি বলেন, ত*দন্তে দেখা গেছে যে এই ধরনের এটি একটি বড় অপরাধের অংশ। রাস্তায় প্রিপেইড ক্রেডিট বিক্রি মূলত অ*বৈধ কারণ এই ধরনের ব্যবসায়ের জন্য কোন লাইসেন্স হয়নি এবং এটি একটি নিরাপ*ত্তা হু*মকি হয়ে দাঁড়িয়েছে।

শরজাহ মিসডেমার কোর্টে সাম্প্রতিক একটি মামলায়, এশিয়ান এক লোক একজন আরব নারীর কাছ থেকে ৩৮০০ দিরহাম মোবাইল ক্রেডিট কার্ড নিয়েছে । আরব মহিলাকে ফোন করে বলেছে তিনি ১ মিলিয়ন দিরহাম পুরস্কার পেয়েছেন এই অর্থ পেতে তাকে ক্রেডিট কার্ড কিনতে বলে এবং ভুল বুঝিয়ে তার নম্বর নিয়ে তাদের মোবাইল নিয়ে যায়।

পরে ফোন কেটে দিয়ে আর কল ধরে না।
আদালতে ওই লোকটি এসব স্বীকার করেছে এবং বলেছে যে তিনি রাস্তায় মানুষের কাছে ক্রেডিট বিক্রি করেছে।পুলিশ জানায় গত কয়েক বছরে অনেকগুলো কেস পাওয়া গেছে যারা ফোন করে বিভিন্ন লোকের কাছ থেকে পুরুস্কারে অর্থের কথা বলে কয়েক লক্ষ দিরহাম নিয়েছে। তাই পুলিশ সকল বাসিন্দাদের এই ধরণের ফোন কল থেকে সতর্ক থাকার আহ্বান করেছে।