সংবাদ সম্মেলন করে যা বললেন ট্রাম্প !

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প বলেছেন, ইরানের ভালো ভবিষ্যত আশা করে যুক্তরাষ্ট্র। তাই তাদের সঙ্গে যুদ্ধ নয়, এক হয়ে পথ চলার আহ্বান জানাচ্ছি। বুধবার (৮ জানুয়ারি) স্থানীয় সময় সকালে হোয়াইট হাউজে দেয়া এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ কথা বলেন।

ইরানের ছোড়া মিসাইলের কথা উল্লেখ করে ট্রাম্প বলেন, ইরানি মিসাইল হামলায় কোনো ক্ষয়ক্ষতি ও প্রাণহানি হয়নি। কারণ পূর্বেই প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা নেয়া হয়েছিল। এ জন্য চৌকস ও দক্ষ সেনাদের ধন্যবাদ।

ইরানকে সন্ত্রা**** সবাদের পৃষ্ঠপোষক হিসেবে উল্লেখ করে তিনি বলেন, আমেরিকানদের জীবন হু মকির মধ্যে ফেলেছিল, এমন একজনকে আমরা গত সপ্তাহে হ** ত্যা করেছি। সে হিজবুল্লাহসহ স *** ন্ত্রাসীদের প্রশিক্ষণ দিত। রাস্তার পাশে বোমা পুঁতে রেখে অনেক সৈন্যকে হ*** ত্যা করেছে।

ট্রাম্প বলেন, সোলাইমানির নির্দেশে বাগদাদে মার্কিন অ্যাম্বাসিতে হামলা হয়। সে আরো বড় হামলার পরিকল্পনা করেছিল কিন্তু আমরা তাকে প্রতিহত করে দিয়েছি।ট্রাম্প আরো বলেন, ইরানকে বুঝতে হবে তাদের স **ন্ত্রাসের রাজত্ব আর মেনে নেয়া হবে না। ন্যাটোকে আমি আহ্বান জানাব, মধ্যপ্রাচ্যে তাদের আরো সম্পৃক্ত হতে হবে।

ট্রাম্প উল্লেখ করেন তার শাসনামলে মার্কিন সমরসজ্জা আরো শক্তিশালী হয়েছে। তিনি বলেন, আমাদের মিসাইলগুলো বড় ও শক্তিশালী। তবে আমরা তা ব্যবহার করতে চাই না।

ট্রাম্প জানান, আইএসের ধ্বংস যুক্তরাষ্ট্র ও ইরানের জন্য মঙ্গলজনক ছিল। ইরানিরা ভালো ভবিষ্যতের যোগ্য। তাদের শাসকরা তা বুঝতে পারলে একসঙ্গে পথ চলতে আপত্তি নেই তার।

অবশেষে সংযুক্ত আরব আমিরাতে ৫ বছরের ট্যুরিস্ট ভিসা দেওয়ার কারণ প্রকাশ করল !

গত সোমবার সংযুক্ত আরব আমিরাতের মন্ত্রিসভা কর্তৃক ঘোষিত সংযুক্ত আরব আমিরাতের সকল জাতীয়তার জন্য পাঁচ বছরের বহু-ব্যবহারিক ব্যবসায়ী সম্প্রদায় ট্যুরিস্ট ভিসার প্রশংসা করেছে । সোমবার, হাইনেস শেখ মোহাম্মদ বিন রশিদ আল মাকতুম, সহ-রাষ্ট্রপতি

এবং সংযুক্ত আরব আমিরাতের প্রধানমন্ত্রী এবং দুবাইয়ের রুলার ঘোষণা করেছেন যে সংযুক্ত আরব আমিরাতের এখন পর্যটন ভিসা পাঁচ বছরের জন্য দেওয়া হবে। সংযুক্ত আরব আমিরাতের পর্যটন অর্থনীতিকে সমর্থন করার জন্য এবং এই বৈশ্বিক পর্যটন কেন্দ্র হিসাবে দেশটির অবস্থান নিশ্চিত করার জন্য এই পদক্ষেপ এসেছে। শিল্প আধিকারিক এবং বিশ্লেষকরা বিশ্বাস করেন যে দীর্ঘকাল স্থায়ী থাকার কারণে পর্যটকদের ব্যয় যথেষ্ট পরিমাণে বৃদ্ধি পাবে এবং রিয়েল এস্টেট খাতটি তাদের আবাসিক হিসাবে আকৃষ্ট করে উপকৃত হতে পারে।

জয়লুক্কাস গ্রুপের চেয়ারম্যান ও ব্যবস্থাপনা পরিচালক জয়লুক্কাস এই সিদ্ধান্তের প্রশংসা করেছেন কারণ এটি “পর্যটন ও খুচরা খাত, বিশেষত স্বর্ণ ও গহনা ব্যবসায়কে উত্সাহিত করবে”। “দুবাই স্বর্ণ ও গহনা ব্যবসায়ের কেন্দ্রবিন্দু। বিশেষত এই পদক্ষেপটি ব্যবসায়কে বাড়িয়ে তুলবে ভারতীয় পরিবারগুলি পাঁচ বছরের ভিসা হাতে নিয়ে তারা খুব বেশি বেশি দুবাই সফর করতে সক্ষম হবে সুতরাং, খুচরা শিল্প, বিশেষত স্বর্ণ ও গহনা শিল্পের দৃষ্টিভঙ্গি সম্পর্কে খুব আশাবাদী, কারণ বড় ক্রেতারা উপমহাদেশ থেকে আসে তিনি বলেন, ভারত, পাকিস্তান, বাংলাদেশ এবং শ্রীলঙ্কা সহ সব দেশের মানুষ “।

সাত গুরু হোল্ডিংস লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক দীপক বাবানী বলেন, আরও বেশি পর্যটক আনতে এবং অর্থনীতিকে জোরদার করতে পদক্ষেপ নেওয়া হচ্ছে। “স্থানীয় অর্থনীতির উপর নির্ভরতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে একের পর এক পদক্ষেপ আসছে। এই উদ্যোগ বেসরকারী খাতের ব্যবসায় যেমন খুচরা, খাদ্য ও পানীয়, ছুটির অ্যাপার্টমেন্ট ইত্যাদিকে উত্সাহিত করবে,” তিনি উল্লেখ করেছিলেন।

“এই দীর্ঘমেয়াদী ভিসা দুবাইয়ের জন্য প্রচুর নতুন নতুন পর্যটন কেন্দ্রের উদ্বোধন করবে অনেক লোক শেষ মুহুর্তে সিদ্ধান্ত নেয়, তাই তাদের যদি ভিসা থাকে,

তবে তাদের জন্য সংযুক্ত আরব আমিরাত ভ্রমণ করা আরও সহজ করবে নিরাপদ এবং ভারত এবং চীনের কাছাকাছি – আরও পরিবার এখানেও আসবে। ”

সংযুক্ত আরব আমিরাত বার্ষিক 21 মিলিয়নেরও বেশি পর্যটক গ্রহণ করে এবং এটি নিজেকে একটি শীর্ষস্থানীয় বিশ্ব পর্যটন গন্তব্য হিসাবে প্রতিষ্ঠা করার লক্ষ্য নিয়েছে। প্রায় 25 মিলিয়ন দর্শনার্থী একা ছয় মাসের দীর্ঘ এক্সপোতে আসবেন বলে আশা করা হচ্ছে। সওকালাল ডটকমের সিইও আম্বারীন মুসা বলেছিলেন, এটি অর্থনীতিকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার জন্য সরকার সত্যই আগ্রহী।

“এই উদ্যোগের ফলস্বরূপ, সংযুক্ত আরব আমিরাতে পর্যটকদের ব্যয় সময় বাড়বে,” তিনি বলেছিলেন। “পাঁচ বছরের ভিসা অর্থনীতিতে একাধিক গুণ প্রভাব ফেলবে কারণ আরও বেশি পরিদর্শন খরচ এবং ক্রিয়াকলাপ বৃদ্ধি করবে, তাই সামগ্রিকভাবে অর্থনীতিকে সহায়তা করবে I এটি এমন একটি উদ্যোগ যা কেবল পর্যটনকে বাড়িয়ে তুলবে না বরং অনেক বাসিন্দার জীবনমানকে বাড়িয়ে তুলবে যেহেতু তাদের পরিবার এবং বন্ধুবান্ধব তাদের প্রায়শই ঘন ঘন দেখতে পাবে এটি দেশে প্রবাসে দীর্ঘকাল থাকার জন্যও উত্সাহিত করতে পারে, “মুসা আরও যোগ করেন।

লন্ডন ভিত্তিক স্ট্র্যাটেজিক এয়ারো রিসার্চের সিনিয়র বিশ্লেষক সাজ সাজ আহমদ বলেছেন, এত দীর্ঘ সময়ের জন্য এ জাতীয়ভাবে ভিসা দেওয়ার ফলে সংযুক্ত আরব আমিরাতের আবেদন সংখ্যা আরও বাড়বে এবং দেশে ট্র্যাফিক বাড়বে ।

“অনেক দেশগুলির যাদের জটিল আবেদন ফর্মগুলির প্রয়োজন ছিল এখন একাধিকবার পরিদর্শন করা এবং এটি করা আরও সহজ হবে তদুপরি, সমস্ত জাতীয়তার জন্য দেশটি খোলার ফলে সংযুক্ত আরব আমিরাত সরকার নতুন দ্বিপাক্ষিক আলোচনা শুরু করার সম্ভাবনা উন্মুক্ত করে যা নতুন বিমান চলাচলের পথ উন্মুক্ত করতে পারে আমিরাত ও ইতিহাদের জন্য, “তিনি বলেছিলেন।

এবার দুবাইয়ে হা*ম*লা করবে ইরান!

ইরাকে মার্কিন সামিরক স্থাপনায় হাম*লার জেরে যদি পা*ল্টা কোনো হাম*লা হয় তাহলে এবার সংযুক্ত আরব আমিরাতের দুবাই ও ইসরাইলে হা*মলা করবে ইরানের ইসলামিক বিপ্লবী গার্ড বাহিনী (আইআরজিসি)।

আইআরজিসি তাদের টেলিগ্রাম চ্যানেলে এমন হুম*কি দিয়েছে বলে খবর প্রকাশ করেছে ইসরাইলভিত্তিক সংবাদমাধ্যম জেরুজালেম পোস্ট।ইরানের বার্তা সংস্থা তাসনিমকে উদ্ধৃ*ত করে জেরুজালেম পোস্ট জানিয়েছে, মার্কিন সেনাবাহিনী ইরানের ওপর আর কোনো হা*মলা চালালে আইআরজিসি ছাড়াও ইসরাইলের হা*মলা করবে হিজবুল্লাহ।

আইআরজিসি এক বিবৃ*তিতে হুঁশি*য়ারি দিয়েছে। তাতে বলা হয়েছে, অ*পরাধ*মুলক কর্ম*কা8ন্ডে যুক্তরাষ্ট্র থেকে আলাদা করে দেখা হবে না জায়নবাদী ইসরাইলকে।
এতে আরো বলা হয়, আমরা প্র*চ*ণ্ড শয়তান, রক্তপিপাসু ও অহংকারী মার্কিন শাসকদের সত*র্ক করে দিচ্ছি। যদি ইরানের বি*রুদ্ধে আর কোনো আ*গ্রাসন চালানো হয়, তাহলে আরো বে*দনা*ময় ও ক*ঠোর জবাব দেয়া হবে।

এদিকে আইআরজিসে তাদের টেলিগ্রাম চ্যানেলে *সত8র্কতা দিয়ে বলেছে, যদি ইরানের মাটিকে টার্গে*ট করা হয় তাহলে সংযুক্ত আরব আমিরাতের দুবাই এবং ইসলাইলের হাইফাতে হা*ম*লা চালাবে তারা।

মার্কিনিদের পা কে*টে ফেলার হু*ম*কি ইরানের

ইরানি জেনারেল কাশেম সোলাইমানিকে হ*ত্যা*র বদলা হিসেবে মার্কিনিদের পা কে*টে ফেলার *হু8মকি দিয়েছেন ইরানের প্রেসিডেন্ট হাসান রুহানি।

বুধবার (০৮ জানুয়ারি) রুহানি এ হু*মকি দিয়েছেন বলে খবর প্রকাশ করেছে ইরানভিত্তিক সংবাদমাধ্যম তেহরান টাইমস।

খবরে বলা হয়েছে, প্রেসিডেন্ট রুহানি যুক্তরাষ্ট্রকে উদ্দেশে করে বলেছেন, তোমরা সোলাইমানির হা*ত কেটেছো। কিন্তু আমরা তোমাদের পা কে*টে ফেলবো। এই এলাকায় তোমার চলার শক্তি থাকবে না।

তিনি বলেন, সোলাইমানিকে হ*ত্যা*র মাধ্যমে যুক্তরাষ্ট্র এই এলাকায় প*তন ডেকে এনেছে। তাদের আর উঠে দাঁ*ড়া*তে দেয়া হবে না।

যেভাবে শনা*ক্ত ধshoর্ক মজনু

কুর্মিটোলায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রীকে ধsh*ণের অভিযোগে গ্রে*ফতার মজনুর সামনের দাঁত ভাঙা। আর এই ভা*ঙা দাঁ*তের সূত্র ধরেই প্রথমে মজনুকে শনাক্ত করে র‌্যাব। বুধবার (০৮ জানুয়ারি) দুপুরে সংবাদ সম্মেলনে এ কথা জানান র‌্যাবের লিগ্যাল অ্যান্ড মিডিয়া উইংয়ের পরিচালক সারোয়ার বিন কাসেম।

ব্রিফিংয়ে লেফটেন্যান্ট কর্নেল সারোয়ার বিন কাসেম জানান, ধsshর্ক মজনুর সামনের দাঁত ভাঙা— এটিই ছিল তাকে শনাক্ত করার প্রধান ক্লু। ১২ বছর আগে ট্রেন থেকে পড়ে দাঁত ভেঙে যায় তার। আর এটিই আমাদের কাছে গুরুত্বপূর্ণ হয়ে উঠেছিল।

র‌্যাব বলছে, ৭ জানুয়ারি রাতে কুরাতলী এলাকা থেকে নি*র্যা*তিত শিক্ষার্থীর মোবাইল ফোন উ8দ্ধা*র হয় খাইরুল নামে এক রিকশা চালকের কাছ থেকে। খাইরুল সেটি কেনেন অরুনা নামে এক নারীর কাছ থেকে।

অরুনার কাছে ফোনটি বিক্রি করে মজনু। এই তথ্যের ভিত্তিতে গ্রে*ফতার করা হয় তাকে। উ8দ্ধা*র হয় শিক্ষার্থীর ব্যাগ, মোবাইল ফোনসহ অন্যান্য সামগ্রী।

র‌্যাব কর্মকর্তা কাসেম জানান, নি*র্যা*তিতা মেয়েটির দেয়া তথ্য এবং অরুনার দেয়া তথ্য মিলিয়ে বোঝা যায় যে, ধর্ণshকারী ও অরুনার কাছে মোবাইল বিক্রিকারী একই ব্যক্তি। দুজনের বর্ণনাতেই সামনে দাঁত না থাকা, নোয়াখালীর স্থানীয় ভাষায় কথা বলা, চুল কোঁ*কড়া এবং খর্ব*কায় একজন ব্যক্তির কথা উঠে আসে।

সংবাদ সম্মেলনে র‌্যাবের এই কর্মকর্তা বলেন, অরুনার দেওয়া তথ্য ও ভিকটিমের কাছ থেকে পাওয়া তথ্যে বুঝতে পারি উভয়ই একই ব্যক্তি। পরবর্তীতে বেশ কয়েকবার ভিকটিমের সঙ্গে কথা বলা হয়েছে, আমি নিজেও কথা বলেছি। ভিকটিম বলেছেন, পৃথিবীর সব চেহারা ভুলে যেতে পারি, এই লোককে ভুলবো না।

তিনি আরো জানান, র‌্যাবের জিজ্ঞাসাবাদে মজনু ধ shণের কথা স্বী*কার করেছে। স্বী*কার করেছে সে একাই ছিল, ভিকটিমও তেমনই বলেছে।

কাসেম বলেন, মজনু জানিয়েছে, স্ত্রী মা*রা যাওয়ার পর তার অবস্থার কারণে সে আর বিয়ে করতে পারেনি। এরপর থেকে সে বিভিন্ন প্রতিবন্ধী নারী এবং ভিক্ষুককে ধর্ণsh করেছে।র‌্যাবের দাবি, হাতিয়ার নোয়াখালীর মজনু দশ বছর আগে জীবিকার সন্ধানে ঢাকায় আসে। হকারের কাজ ছেড়ে এক পর্যায়ে ছি*নতাই শুরু করে। হয়ে পড়ে মাদকাসক্ত। কাসেম আরো বলেন, সে পেশায় দিনমজুর ও হকার বললেও এর পাশাপাশি ছিনতাই ও চু*রি করে। ঘটনার দিন কুর্মিটোলা হাসপাতালের কাছ থেকে অনুসরণ করে শিক্ষার্থী*টিকে।

র‌্যাবের দাবি, ভবঘুরে এই ছিনতাইকারী ঘটনার দিন রাতে এয়ারপোর্ট রেলস্টেশন থেকে ট্রেনে চেপে চলে যায় নরসিংদী। পরে ফেরত আসে ঢাকায়। ঘুরতে থাকে বনানী রেলস্টেশনে। বুধবার (৮ জানুয়ারি) ভোরে এখান থেকেই তাকে গ্রে*ফতার করে র‌্যাব।

এর আগে গত রোববার (৫ জানুয়ারি) রাজধানীর কুর্মিটোলায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের বাস থেকে নামার পর এক ছাত্রীকে রাস্তা থেকে তুলে নিয়ে ধর্ণsh করে অজ্ঞা*ত এক যুবক। এ ঘটনায় ওই ছাত্রীর বাবা বাদী হয়ে ক্যান্টনমেন্ট থানায় মা*মলা করেন। মা*ম8লায় অজ্ঞাত ৩০-৩৫ বছরের এক ব্যক্তি আসামি করা হয়।

মাহাথিরকেও হ*ত্যা** করতে পারে যুক্তরাষ্ট্র!

ইরাকের মাটিতে ইরানি জেনারেল কাসেম সোলাইমানিকে যেভাবে ড্রোন থেকে হ*ত্যা করা হয়েছে তাতে আর কেউ নিরা*পদ নয় বলে মন্তব্য করেছেন মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রী ড. মাহাথির মোহাম্মদ।

সোলাইমানির মতো মার্কিন ড্রোন এখন মাহাথির মোহাম্মদকেও টার্গেট বা হ*ত্যা করতে পারে বলেও মন্তব্য করেন বিশ্বের সবচেয়ে প্রবীণ এ প্রধানমন্ত্রী।

মঙ্গলবার (৭ জানুয়ারি) কুয়ালালামপুরে এক সামিট অনুষ্ঠানে বক্তব্য দেয়ার সময় জেনারেল কাসেম সোলেইমানি হ*ত্যা*কা*ণ্ডের *তী*ব্র নি*ন্দা জানিয়ে তিনি এসব কথা বলেন।

মালয়েশিয়ার সংবাদমাধ্যম প্রেসটিভির খবরে বলা হয়েছে, মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘জেনারেল সোলাইমানির ওপর মার্কিন ড্রো*ন হা*ম*লা আন্তর্জাতিক আই8নের ল*ঙ্ঘ*ন। আমরা এখন আর নিরাপদ নই। মুসলিমদের ঐ*ক্য8বদ্ধ হওয়ার এটাই উপযুক্ত সময়।’

তিনি বলেন, ‘কাউকে অ*পমা8ন করেন বা কারো ব্যাপারে কোনো কিছু বলেন, যেটা তার পছন্দ নয়; তাহলে ওই ব্যক্তিকে হ8ত্যা*র জন্য অন্য দেশ থেকে একটি ড্রো8ন পাঠিয়ে দেন। আমাকেও এ ড্রো*ন নিশানা বানাতে পারে।’

৭২ ঘণ্টার মধ্যে কুয়েত ছাড়ছে মার্কিন সেনাবাহিনী

আগামী ৭২ ঘণ্টার মধ্যে কুয়েত থেকে সব সৈন্য প্রত্যা*হার করে নিচ্ছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র। কুয়েতে মার্কিন শি*বির কমান্ডার এ সংক্রান্ত একটি চিঠি দিয়েছে কুয়েতের প্রতি*রক্ষা*মন্ত্রীকে।

কুয়েতের প্রতিরক্ষামন্ত্রীর বরাত দিয়ে বুধবার (০৮ জানুয়ারি) দেশটির রাষ্ট্রীয় সংবাদ সংস্থা ‘কুনা’ এ খবর দিয়েছে বলে জানিয়েছে বার্তা সংস্থা রয়টার্স। কুনাকে প্রতিরক্ষামন্ত্রী বলেন, আরিফজান ক্যাম্প থেকে এ জাতীয় একটি চিঠি পাওয়া অ*প্রত্যা*শিত। আমরা আরও বিস্তারিত তথ্যের জন্য মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের প্রতিরক্ষা বিভাগের সঙ্গে যোগাযোগ করছি।

ইরান-যুক্তরাষ্ট্রের উ*ত্তে*জনার মধ্যেই অঞ্চলটি থেকে সব মার্কিন সেনা প্র*ত্যাহা*রের ঘোষণাটি গু*রুত্ব*পূর্ণ বলে মনে করছেন বি*শ্লে*ষকরা।

ক্ষে’প’ণাস্ত্র হা’ম’লা হতে পারে ইসরাইলেও

ইসরাইলি প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহু মার্কিন জানিয়েছেন ই’রান হা’ম’লায় প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের পাশে রয়েছেন ইসরাইল।যুক্তরাষ্ট্রের পাশে দাঁড়ানোয় ইসরাইলেও ক্ষে’প’ণাস্ত্র হা’ম’লা হতে পারে বলে আশঙ্কা

করছেন ইসরাইলি প্রধানমন্ত্রী । তাই আগে থেকে সতর্ক হুঁশি’য়ারি দিয়ে যাচ্ছে।আজ বুধবার ভোর সকালে ই’রাকে মার্কিন ঘাঁটিতে ই’রানের হা’ম’লার পরেই জেরুজালেমে তিনি এ কথা বলেন।

এ সময় তিনি মার্কিন হা’মলায় নি”হত ই’রানি কমান্ডার জেনারেল কাসেম সো’লাইমানিকেহ’ত্যা’র ঘটনায় যুক্তরাষ্ট্রের পক্ষে অবস্থান করছেন বলেও পুর্নব্যক্ত করেন।নেতানিয়াহু

বলেন, যে কেউ আমাদের আ’ক্রমণ করার চেষ্টা করলে তাকে সবচেয়ে প্রবল আ’ঘাত করা হবে।

দেশের ইতিহাসের সবচেয়ে বড় মামলার পূর্ণাঙ্গ রায় ঘোষণা করল আদালত

পিলখানা হ’ত্যা মামলার পূর্ণাঙ্গ রায় প্রকাশ করেছেন হাইকোর্ট। আজ বুধবার (৮ জানুয়ারি)

সকালে সংশ্লিষ্ট কোর্টের বিচারপতিদের স্বাক্ষরের পর রায়টি প্রকাশিত হয়। সর্বোচ্চ আদালতের ওয়েবসাইটে দেশের ইতিহাসে সবচেয়ে আলোচিত এ ২৯ হাজার ৫৯ পৃষ্ঠার রায় প্রকাশিত হবে।

সেই ২০০৯ সালের ২৫ ও ২৬ ফেব্রুয়ারি বিডিআর বি’দ্রোহের সময় পিলখানায় সংঘটিত হ’ত্যা’যজ্ঞের মা’মলায় প্রায় দুই বছর আগে হাইকোর্ট রায় ঘোষণা করলেও পূর্ণাঙ্গ রায়

প্রকাশ করার কথা থাকলেও নানাবিধ কারণে প্রকাশিত হয়নি। তবে আজ বুধবার সকালে (৭

জানুয়ারি) এই রায় প্রকাশিত হয়েছে বলে আ’দালত সুত্রে জানা গেছে।

এ রায় প্রকাশ নিয়ে অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম জানিয়েছেন, “আজ পূর্ণাঙ্গ রায় প্রকাশিত হলো। রায়ের পর্যালোচনায় একাধিক দিকনির্দেশনা রয়েছে। রায়ে পিলখানায় ৫৭ সেনা

কর্মকর্তাসহ ৭৪ জনকে হ’ত্যার দায়ে অন্যতম পরিকল্পনাকারী ডিএডি তৌহিদসহ ১৩৯ আসামির মৃ’ত্যুদ’ণ্ডের আদেশ বহাল রাখা হয়। পাশাপশি ১৮৫ জনকে যা’বজ্জীবন এবং

১৯৬ জনকে বিভিন্ন মেয়াদে কা’রাদণ্ড দেওয়া হয়। খালাস পান ৪৯ আসামি।”

এদিকে সুত্রে জানা যায়, যারা খালাস পেয়েছেন তাদের বিরুদ্ধে রাষ্ট্রপক্ষ থেকে ৩০ দিনের মধ্যে আপিল করা হবে।

উল্লেখ্য , পিলখানায় সংঘটিত ওই ঘটনায় ৫৭ সেনা কর্মকর্তাসহ প্রা’ণ হারান মোট ৭৪ জন।

একের পর এক মার্কিন ঘাঁ’টিতে হা’মলা, চি’ন্তিত হোয়াইট হাউজ!

একের পর এক মার্কিন ঘাঁ’টিতে হা’মলা, চি’ন্তিত হোয়াইট হাউজ! ইরাকে অবস্থিত দুটি মার্কিন বিমান ঘাঁ’টিতে র’কেট হা’মলা চা’লিয়েছে ইরান।

যুক্তরাষ্ট্রের প্রতিরক্ষা দফতরের বরাত দিয়ে এ খবর জানিয়েছে যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক সংবাদমাধ্যম

সিএনএন। মঙ্গলবার রাতে ইরাকের আইন-আল আসাদ সামরিক ঘাঁ’টিতে ১২টির বেশি

রকেট হা’মলা চা’লিয়েছে ইরান। এই রকেট হা’মলায় কেউ হ’তাহ’ত হয়েছে কিনা, তা এখনো নিশ্চিত হওয়া যায়নি। এদিকে হা’মলা করার কথা স্বী’কার করেছে তেহরান।

মার্কিন ড্রোন হা’মলায় কুদসপ্রধান ও দেশটির শীর্ষ প্রভাবশালী ব্যক্তিত্ব জেনারেল কাসেম

সোলেইমানিকে হ’ত্যার জবাবে এই হা’মলা চা’লানো হয়েছে।ইরাকের আল-আসাদ নামের ওই বিমান ঘাঁ’টিটি মধ্যপ্রাচ্যে যুক্তরাষ্ট্রের শক্ত একটি ঘাঁ’টি হিসেবে পরিচিত।

ওয়াশিংটন এ ঘটনার ওপর ন’জর রাখছে জানিয়ে হোয়াইট হাউজের মুখপাত্র স্টেফানি গ্রিশাম বলেছেন, ‌ইরাকে অবস্থিত একটি মার্কিন ঘা’টিতে রকেট হা’মলা চা’লানো হয়েছে। এ

ব্যাপারে আমরা সচেতন রয়েছি এবং গভীর পর্যবেক্ষণ করছি। প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পকে এ

ঘটনা অবহি’ত করা হয়েছে। তিনি যুক্তরাষ্ট্রের জাতীয় নিরাপত্তা দল ও প্রতিরক্ষা দফতরের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের সঙ্গে আলোচনা করছেন।

এদিকে হা’মলার পর পর ইরনা নিউজ এজেন্সিতে ইরানের রেভ্যুলশনারি গার্ড এক বিবৃতি

দিয়েছে। বিবৃতিতে বলা হয়েছে, এ হা’মলা কুদসপ্রধান সোলেইমানির হ’ত্যাকা’ণ্ডের বদলা।

আমরা সতর্ক করে দিতে চাই যে, স’ন্ত্রা’সী যুক্তরাষ্ট্রকে যারা তাদের ঘাঁ’টিগুলোকে ব্যবহার করতে দিয়েছে তাদেরকেই লক্ষ্যবস্তু করা হবে।

বিশ্বের যেখান থেকেই ইরানের বি’’রুদ্ধে আ’গ্রাসী কর্মকাণ্ড চা’লানো হবে সেখানেই হা’মলা করা হবে।