ইরান হামলা চালালে উচিত জবাব দেব: সৌদি আরব

সৌদি প্রশাসনের এক শীর্ষ কর্মকর্তা বলেছেন, ‘সৌদি আরব ইরানের সঙ্গে যুদ্ধ চায় না। তবে ইরান যদি শুরু করার সিদ্ধান্ত নেয় তবে শক্তি ও দৃঢ়তার সঙ্গে জবাব দেওয়া হবে।’

এর আগে গত শনিবার ইরানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী মোহাম্মদ জাভেদ জারিফ বলেন, তিনি বিশ্বাস করেন না এই অঞ্চলে সহসা যুদ্ধ দেখা দেবে। কেননা, তেহরান কারো সঙ্গে দ্বন্দ্বে জড়াতে চায় না। কোনও দেশ এমন কোনও বিভ্রমও সৃষ্টি করতে পারবে না যা ইরানকে যুদ্ধের মুখোমুখি দাঁড় করায়। ইরানের পররাষ্ট্রমন্ত্রীর ওই বক্তব্যের পর সৌদি প্রশাসনের শীর্ষ কর্মকর্তার সর্বশেষ বক্তব্য উপসাগরীয় অঞ্চলে উত্তেজনাকর পরিস্থিতিই প্রতিফলিত।

ইরানের সঙ্গে ক্রমবর্ধমান উত্তেজনার পরিপ্রেক্ষিতে এরইমধ্যে উপসাগরীয় অঞ্চলে বিমান চলাচলে সতর্কতা জারি করেছে যুক্তরাষ্ট্র।শুক্রবার মার্কিন ফেডারেল অ্যাভিয়েশন অ্যাডমিনিস্ট্রেশনের (এফএএ) প্রতি এ ব্যাপারে সতর্কতা জারি করা হয়। ইরাকের রাজধানী বাগদাদে নিয়োজিত দূতাবাসের ৫০ কর্মকর্তাকে দেশে ফিরিয়ে নেওয়ার প্রক্রিয়াও শুরু করেছে যুক্তরাষ্ট্র।

রবিবার ভোরে রিয়াদে সৌদি পররাষ্ট্রমন্ত্রী আদেল আল-জুবায়ের সংবাদ সম্মেলনে বলেন, ‘আমরা কোনোভাবেই যুদ্ধ চাই না। কিন্তু একই সঙ্গে আমরা ইরানকে তার শত্রুতাপূর্ণ নীতি চালিয়ে যেতে দেব না যা আমাদের জন্য ক্ষতিকর হয়।’ তিনি বলেন, ‘আমরা শান্তি ও স্থিতিশীলতা চাই।’

সাম্প্রতিক কয়েকটি সন্ত্রাসী হামলার পরিপ্রেক্ষিতে হঠাৎ করেই মধ্যরাতের পর আল-জুবায়ের ওই সংবাদ সম্মেলন ডাকেন। ওই হামলার প্রতি ইঙ্গিত করে সংবাদ সম্মেলনে তিনি বলেন, ‘গত কয়েক দশকে সৌদি আরবে এসব সন্ত্রাসী হামলার পেছনে ইরানের ভূমিকা রয়েছে। ইরান সরকার ‘এই অঞ্চলে স্থিতিশীলতা বা নিরাপত্তা চায় না’।

সৌদি পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ইয়েমেনের হুতি বিদ্রোহীরা ইরান সমর্থিত। গত কয়েক বছরে সৌদি আরবে ২০০টিরও বেশি মিসাইল হামলা চালিয়েছে তারা। গত সপ্তাহে সৌদি পাম্প স্টেশনে ড্রোন হামলার পেছনেও ছিল হুতি। ওই ড্রোন ইরান সরবরাহ করেছিল বলে দাবি করেন তিনি।

অ্যারামকো কম্পানির পাম্পিং স্টেশনের ওপর হামলার কারণে দেশটি গুরুত্বপূর্ণ পূর্ব-পশ্চিম পাইপলাইন সাময়িক বন্ধ রাখা হয়। তবে তা উপসাগরীয় অঞ্চলে আরও উত্তেজনা বাড়িয়েছে। ঘটনার পর যুক্তরাষ্ট্র ইরানের বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞা কঠোর করেছে। একইসঙ্গে মধ্যপ্রাচ্যে সন্ত্রাসীদের সমর্থন দেওয়া বন্ধ করারও দাবি করেছে দেশটি।

সৌদি পাইপলাইনটি আবারও চালু করা হয়েছে। তবে একইসঙ্গে আল-জুবাইর বলেছেন, ‘আমরা আমাদের হাত গুটিয়ে বসে থাকবো না।’ তিনি বলেন, বল এখন ইরানের কোর্টে। সুতরাং, ইরানকেই এখন নির্ধারণ করতে হবে তারা কোন পথে যাবে।’সূত্র : ব্রিসবেন টাইমস

দুবাইয়ে বিমান বিধ্বস্ত,বিমানটির সব আরোহী নিহত হয়েছে !

৫ বছরের এই শিশুটিকে ধর্ষন করে এভাবেই বাশ বাগানে ঝুলিয়ে ফেলে পালিয়ে যায় ধর্ষক। বিস্তারিত আসছে…
কোন হিংস্র পশু ও এমনটা করতে পারে না ৫ বছরের এই শিশুটিকে ধর্ষন করে এভাবেই বাশ বাগানে ফেলে রেখে যায় ধর্ষক।

পুলিশ লাশটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্ত করার জন্য ময়মনসিংহ মেডিকেল হাসপাতালে পাঠিয়েছে।এই ঘটনা ঘটেছে পাঁচগাও নামক এলাকায়। কি অপরাধ ছিল এই অসহায় শিশুটির? সংগ্রহীত।
বিস্তারিত আসছে…

৩৫ বছর ধরে মানুষকে বিনা খরচে কোরআন শিক্ষা দিচ্ছেন হাফেজ আবদুল হান্নান !

মানুষকে কোরআন শিক্ষা দেয়াই তার পেশা। তবে কোরআন শিক্ষা দেয়ার জন্য মানুষের কাছ থেকে কোনো পারিশ্রমিক গ্রহণ করেন না তিনি। নিজের তেমন কোনো জমি না থাকলেও বাবার থেকে প্রাপ্ত এক কাঠা জমির ওপর নিজের অর্থেই গড়ে তুলেছেন মক্তব ঘর।

প্রভাতের আলো ফুটে উঠতেই প্রতিদিন সেখানে কোরআন শিক্ষা দেন তিনি। কুষ্টিয়ার মিরপুর পৌরসভার ১নং ওয়ার্ড সুলতানপুর গ্রামে নীরবে-নিভৃতে দীর্ঘ ৩৫ বছর ধরে মানুষকে কোরআন শিক্ষা দিচ্ছেন হাফেজ আবদুল হান্নান।হাফেজ আবদুল হান্নান জানান, ১৯৮৪ সালে সর্বপ্রথম বাড়ির উঠানে গ্রামের ছেলেমেয়েদের কোরআন শেখানো শুরু করেন। এরপর ব্যাপক হারে শিক্ষার্থী বেড়ে যাওয়ায় ১৯৮৬ সালে বাড়ির পাশে রাস্তার ধারে একটি মাটির ছাপড়াঘর তৈরি করে সেখানে কোরআন শিক্ষা অব্যাহত রাখেন।

পরে ১৯৯৫ সালে বাবা মৃত আবদুল আজুজ শেখ তাকে এক কাঠা জমি দিলে সেখানে একটি ঘর নির্মাণ করে কোরআন শিক্ষা দেন।
তিনি জানান, এখন পর্যন্ত নিজের গ্রাম ছাড়াও আশপাশের এলাকার প্রায় ১০ হাজার শিক্ষার্থীকে তিনি বিনা পারিশ্রমিকে কোরআন শিক্ষা দিয়েছেন।
হাফেজ আব্দুল হান্নান বলেন, আমি নিজে কোরআন শিক্ষা গ্রহণ করেছি।

কোরআন শিক্ষাগ্রহণের সময় আমাদের শিক্ষক শিখিয়েছিলেন ‘যে নিজে কোরআন শিক্ষাগ্রহণ করে এবং অন্যকে শিক্ষা দেয় সে রাসূল (সা.)-এর কাছে উত্তম ব্যক্তি’। আমি তখন থেকেই সিদ্ধান্ত নেই মানুষকে বিনা খরচে কোরআন শিক্ষা দেব। তাই আমি এখন পর্যন্ত করে যাচ্ছি, এবং যত দিন বেঁচে থাকব তত দিন কোরআন শিক্ষাদানের এই মহান কাজটি করে যাব।তিনি আরও বলেন, আমার মক্তবে বিভিন্ন বয়সের মানুষ কোরআন শিক্ষাগ্রহণ করেছেন। তাছাড়াও যেসব শিক্ষার্থীর কোরআন শরিফ কেনার সামর্থ্য নেই তাদেরকেও বিনামূল্যে কোরআন শরিফ দেয়া হয়।

নিজের আয় সম্পর্কে আব্দুল হান্নান জানান, নিজের আয় বলতে স্থানীয় একটি মসজিদের ইমামতি করে বছরে ২০ মণ ধান পাই। এছাড়াও নিজের দুই বিঘা জমিতে চাষাবাদ করে সংসার চলে।

আরব আমিরাতে অবৈধ প্রবাসীদের জন্য নতুন ভিসা পদ্ধতি চালু করেছে।

সংযুক্ত আরব আমিরাত দীর্ঘমেয়াদী ভিসা চাওয়া নন আরব আমিরাত অধিবাসীদের জন্য ছয় মাসের একাধিক-এন্ট্রি অন্তর্বর্তী ভিসা চালু করেছে।

বুধবার সরকার ঘোষণা করে যে দীর্ঘ মেয়াদী ভিসার জন্য যোগ্য এবং বর্তমানে সংযুক্ত আরব আমিরাতে বসবাসকারীরা তাদের বিদ্যমান পারমিটগুলি যদি তারা শর্ত পূরণ করে বিনিয়োগকারী ভিসার কাছে হস্তান্তর করতে পারে তাহলে ভিসা পাওয়ার উপযোগী হবে ।

মন্ত্রিপরিষদ ডিক্রি নং (56) এর অধীনে দীর্ঘমেয়াদী ভিসার জন্য যোগ্য ব্যক্তি, বিশেষজ্ঞ এবং প্রতিভাধর শিক্ষার্থী – পাঁচ থেকে দশ বছর পর্যন্ত – অন্তর্বর্তী ভিসার “তাদের ক্ষেত্রে সুযোগ সনাক্ত করতে এবং তৈরি করতে পারেন। তাদের পরিবারের জন্য উপযুক্ত সিদ্ধান্ত “, ফেডারেল অথরিটি ফর আইডেন্টিটি অ্যান্ড সিটিজানশিপ একটি প্রেস বিবৃতিতে এ কথা জানায়বিভিন্ন প্রতিভা ও ব্যবসায়ীরা তাদের কোম্পানিতে কর্মী নিয়োগ দিতে বিভিন্ন শর্তে অবৈধ প্রবাসীদের ভিসা সংশোধন করে কর্মে নিয়োগ দিতে পারবে।।

কর্তৃপক্ষ জানায়, এটি তার পোর্টালে তিনটি নতুন পরিষেবা চালু করেছে: একজন বিনিয়োগকারীর বাসস্থানের পদ্ধতিগুলি সম্পন্ন করার জন্য একাধিক এন্ট্রি সহ ছয় মাসের ভিসা, উভয় উদ্যোক্তাদের জন্য দীর্ঘমেয়াদী বাসস্থানের পদ্ধতিগুলি সম্পন্ন করার জন্য একাধিক এন্ট্রি সহ

ছয় মাস ভিসা এবং অসামান্য ছাত্র, এবং প্রতিভাধর ব্যক্তিদের বাসস্থান পদ্ধতি সম্পন্ন করার জন্য একটি একক এন্ট্রি সহ ছয় মাসের ভিসা বাসিন্দাদের আইসিএ পোর্টাল তাদের আবেদন জমা দিতে পারেন।কর্তৃপক্ষ জানায় যে এটি ঘোষণার প্রথম সপ্তাহে দীর্ঘমেয়াদী ভিসার জন্য প্রায় 6,000 অ্যাপ্লিকেশন গ্রহণ করেছে।

বিদেশি বিষয়ক ও বন্দর মহাপরিচালক মেজর জেনারেল সাঈদ রাকান আল রশিদী বলেন, নতুন সুবিধার জন্য একটি বড় চাহিদা রয়েছে কারণ এটি একটি সুনির্দিষ্ট বিনিয়োগ গন্তব্য হিসাবে সংযুক্ত আরব আমিরাতের আকর্ষণকে বাড়িয়ে তোলে।

চ্যাম্পিয়ন হয়ে যা কিছু পেলেন অধিনায়ক মাশরাফি !

সৌম্য যেদিন খেলবে সেদিন অন্যরা দর্শক হয়ে থাকবে’- সৌম্য সরকারের ওপর এমন বিশ্বাস অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজার। সৌম্য করে দেখালেন। প্রমাণ করলেন নিজেকে, সত্যি প্রমাণিত করলেন অধিনায়কের কথা। আর এমন মঞ্চে করলেন যেখানে মাশরাফির হাতে উঠল শিরোপা।

যে শিরোপা পেতে অপেক্ষা করতে হয়েছে বছরের পর বছর! ২০০৯ থেকে ২০১৮ সাল পর্যন্ত রঙিনে পোশাকের দুই ফরম্যাট মিলিয়ে মোট ছয়টি ফাইনাল খেলেছে বাংলাদেশ।কী আশ্চর্য্য, ছয় ফাইনালের একটিতেও শেষ হাসি হাসতে পারেনি বাংলাদেশ। প্রতিটি ফাইনালে দুঃস্বপ্ন ফিরে আসতো প্রেতের মতো, অশরীরী হয়ে। এবার কোনো বাধা মাশরাফির দলের সামনে দেয়াল হয়ে দাঁড়াতে পারেনি। এবার স্বপ্নভঙ্গের বেদনায় পোড়েনি বাংলাদেশ।

উৎসবের মঞ্চে উৎসব করল। ‘চ্যাম্পিয়ন’ লেখা বোর্ডের সামনে করল ওয়ালটন ত্রিদেশীয় সিরিজ জয়ের উৎসব। সাত নম্বর দিয়ে ফাইনালের গেরো খুলল বাংলাদেশ।আয়ারল্যান্ডের তিনজাতি ক্রিকেট টুর্নামেন্টে খেলতে যাওয়ার আগে মাশরাফি বলেছিলেন-‘বিশ্বকাপের জন্য এটা হবে আমাদের প্রস্তুতি।’ তো সেই প্রস্তুতিটা এতোই ভালো হলো যে এখন বিশ্বকাপের মতো কঠিন টুর্নামেন্টকে খুব কঠিন কিছু মনে হচ্ছে না তার।

তবে ট্রফি জয়ের দিনেও বিশ্বকাপ বাস্তবতা ঠিকই মনে করে দিলেন অধিনায়ক- ‘বিশ্বকাপের মাঠের উইকেট হবে আরো রানের উইকেট। সেখানকার কন্ডিশন হবে আরো কঠিন। তবে হ্যাঁ এই টুর্নামেন্ট থেকে আমরা ট্রফি জেতার সঙ্গে যা পেয়েছি তার নাম আত্মবিশ্বাস। বিশ্বকাপের লড়াইয়ে এই আত্মবিশ্বাসটাই আমাদের অনেক কাজে লাগবে।’মাশরাফি জানেন বিশ্বকাপের প্রায় প্রতিটি ম্যাচে সাফল্য পেতে হলে দুটি বিষয় আবশ্যিক। আগে ব্যাটিং করলে স্কোরবোর্ডে বড় সঞ্চয় জমা করতে হবে। আর পরে ব্যাটিং করলে বড় রান তাড়া করে ম্যাচ জিততে হবে।

পরে ব্যাটিং করে ম্যাচ জেতার ভালো অভ্যাসটা অন্তত আয়ারল্যান্ডের এই টুর্নামেন্ট থেকে পেয়ে গেলো বাংলাদেশ। মাশরাফি সেই প্রসঙ্গে বলছিলেন-‘দেখুন যে কোনো টুর্নামেন্টে অপরাজিত চ্যাম্পিয়ন হওয়া সহজ বিষয় নয়। আমরা এবার সেটা করে দেখাতে পেরেছি। পুরো দলের আত্মবিশ্বাস এতে অনেক বাড়বে। তাছাড়া বড় রান করে বাংলাদেশ যে ম্যাচ জিততে পারে, সেই বিশ্বাস, সেই শক্তি আমরা এই টুর্নামেন্ট থেকে নিয়ে যাচ্ছি।’

শুক্রবারের বৃষ্টিবাধায় পড়া ফাইনালে ওয়েস্ট ইন্ডিজ তোলে ১৫২ রান। কিন্তু বৃষ্টিতে ম্যাচের ওভার করে যাওয়ায় ডার্কওয়ার্থ লুইস মেথেড অনুযায়ী বাংলাদেশের টার্গেট বেড়ে যায় অনেক। ২৪ ওভারে করতে হবে ২১০ রান। ওভার প্রতি প্রায় ৮ রানের বেশি। যে কোনো হিসেবে এটা কঠিন টার্গেট।কিন্তু সেই কঠিন টার্গেটই ৫ উইকেট অক্ষত এবং ৭ বল বাকি থাকতেই টপকে যায় বাংলাদেশ। এই ম্যাচ জয়ের কৃতিত্ব দলের সবাইকে ভাগ করে দিলেন অধিনায়ক-‘ব্যাটিংয়ের শুরুটা আমাদের চমৎকার হয়েছে।

সৌম্য মারকুটে ভঙ্গিতে ব্যাট করেছে। মুশফিক ও মিঠুন মাঝে কার্যকর ইনিংস খেলেছে। আর শেষের দিকে মাহমুদউল্লাহ ও মোসাদ্দেক দুর্দান্ত ফিনিশিং দিয়েছে।’শুরু, মাঝে এবং শেষে-ব্যাটিংয়ের তিন স্তরে দুর্দান্ত পারফরমেন্স দেখিয়ে বাংলাদেশ এই ম্যাচ জিতেছে।ট্রফি হাতে নিয়ে বিজয় মঞ্চে উল্লাসের জন্য পুরো দলকে ডেকে নিয়ে এলেন মাশরাফি। ট্রফি উঁচিয়ে জানালেন-ধন্যবাদ দল, এই সাফল্যের আমাদের বড্ড প্রয়োজন ছিলো।

আজ ১৮/০৫/২০১৯ দিনের শুরুতে দেখে নিন বিভিন্ন দেশের টাকার রেট !

এই মুহূর্তে দেশে ও দেশের বাইরে যে যেখান আছেন সবাইকে “আমার বাংলাদেশ”এর পক্ষ থেকে স্বাগতম !যারা দেশের বাইরে কাজ করছেন তারা দেশের জন্য অত্যান্ত উপকার করছেন । দেশে টাকা পাঠানোর পূর্বে টাকার রেট ভালোভাবে দেখে নিন। আজ ১৮/০৫/২০১৯ তারিখ দিনের শুরুতে দেখে নিন আজকের টাকার রেট !
,

সৌদি রিয়াল (SAR) =22.55৳

মালয়েশিয়ান রিংগিত (MYR) = 20.74৳

দুবাই দেরহাম (AED ) = 23.20৳

বাহরাইন দিনার (BHD ) = 224.82৳

ব্রিটিশ পাউনড (GBP) = 111.95৳

কুয়েতি দিনার (KWD ) = 277.76 ৳

কাতারি রিয়াল(QAR) =23.30৳

সিঙ্গাপুর ডলার ( SGD) = 62.38 ৳

ওমানি রিয়াল (OMR) = 217.15৳

 

ইউএস ডলার (USD) = 84.25৳

ইউরো (EUR) = 94.45 ৳

মালদ্বীপিয়ান রুপিয়া (MVR ) = 4.95৳

আফগানিস্তান  (AFN) = 1.09 ৳

নিউজিল্যান্ড ডলার(NZD) = 57.80৳

কানাডিয়ান ডলার (CAD) = 62.55৳

ইন্ডিয়া রূপি (INR) = 1.21৳

সাউথ আফ্রিকান রেন্ড (ZAR) =5.51৳

অস্ট্রেলিয়ান ডলার( AUD)=59.40৳

ইরাকি দিনার (IQD) = 0.07৳

দক্ষিণ কোরিয়ান উয়ান(WAN)= 0.074৳

জাপানিজ (YEN) = 0.739৳

চাইনিজ উয়ান ( YUAN) =12.11৳

সোমালিয়া (SOS ) = 0.14 ৳

কিছু কিছু কোম্পানিতে রেট আপডেট করতে সময় নেয় তাই দেশে টাকা পাঠানোর আগে ভালোভাবে রেট যাচাই করে নিন । হুন্ডি বা অবৈধ পথে টাকা পাঠাইয়া নিজে ঝুঁকিতে থাকবেন না । তাতে আপনি যেমন উপকৃত হবেন, দেশ ও উপকৃত হবে। অবশ্যই লাইক ও শেয়ার দিয়ে ধন্যবাদ !প্রতি মুহূর্তে আন্তর্জাতিক বাজারে লেনদেনের তারতম্যের সাথে সাথে টাকার রেট উঠানামা করে।
বিভিন্ন দেশ থেকে বৈধ পথে বাংলাদেশে টাকা পাঠানোর বিভিন্ন এজেন্ট আছে যেমন মানি গ্রাম , ওয়েস্টার্ন ইউনিয়ন , রিয়া ইত্যাদি ।

বেড়ে গেলো আজকের আরব আমিরাতের রেট ! দেখে নিন এই মুহূর্তের রেট ?

এই মুহূর্তে দেশে প্রবাসে যে যেখানে আছেন আমার বাংলাদেশে এ স্বাগতম ,আজ ১৭ মে ২০১৯ ইং, বাংলাদেশী সময় রাত ১১:২৫ প্রবাসী ভাইরা জেনে নিন এই মুহূর্তের আরব আমিরাতের দিরহাম এ বাংলাদেশি টাকায় কত ।

আজ ১৭ মে রাতের AED (আরব আমিরাতের দিরহাম) 1 দিরহাম = 23.20৳ (তথ্যটি ইন্টারনেট থেকে নেওয়া হয়েছে)
গত ১৫ মে AED (আরব আমিরাতের দিরহাম) 1 দিরহাম = 23.05৳ (তথ্যটি ইন্টারনেট থেকে নেওয়া হয়েছে )
আজ ১৭ মে  রাতের 1 US ডলার = 84.40 ৳
গত  ১৫ মে  1 US ডলার = 83.90 ৳

প্রবাসী ভাইদের উদ্দেশে বলছি, যখন বৈদেশিক মুদ্রার রেট বৃদ্ধি হয় তখন দেশে বৈদেশিক মুদ্রা পাঠালে বেশি টাকা পেতে পারেন।আপনারা বিনিময় মূল্য (রেট) জেনে দেশে টাকা পাঠাতে পারেন।

সে ক্ষেত্রে আমাদের ওয়েব সাইট বা আপনার নিকটস্থ ব্যাংক হতে টাকার রেট জেনে নিতে পারেন।টাকার রেট উঠানামা করে। দেশে টাকা পাঠানোর আগে ভালোভাবে রেট যাচাই করে নিন। হুন্ডি বা অবৈধ পথে টাকা পাঠাবেন না। তাতে আপনি যেমন উপকৃত হবেন, দেশ ও উপকৃত হবে। ভালো থাকুন, সুস্থ থাকুন। অল বিডি সেভেন.কমএর সাথেই থাকুন!”।

আজ সন্ধ্যার পর পরই বাংলাদেশের বিভিন্ন স্থানে ঝড়ে নিহত ৯ আহত বহু সংখ্যক !

হঠাৎ ঝড়-বৃষ্টিতে রাজধানীসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে ৯ জনের মৃত্যুর সংবাদ পাওয়া গেছে। এর মধ্যে রাজধানীতে সন্ধ্যার তীব্র কালবৈশাখী ঝড়ে বায়তুল মোকারম মসজিদ প্রাঙ্গণের দক্ষিণ অংশে স্থাপিত অস্থায়ী তাঁবু ভেঙে পড়ে একজন নিহত এবং অন্তত ২০ থেকে ২২ জন আহত হয়েছেন।

পাশাপাশি রাজধানীর উত্তর বাড্ডায় পার্কিংয়ের দেয়াল ধসে তিনজন নিহতের সংবাদ পাওয়া গেছে। এছাড়া রাজধানীর মোহাম্মদপুরে গাছচাপায় ২ জন আহতের খবর পাওয়া গেছে।অপরদিকে চাঁপাইনবাবগঞ্জ ও নওগাঁ জেলায় ঝড়-বৃষ্টির সময় বজ্রপাতে চারজনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে।

চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর উপজেলার বালিয়াডাঙ্গা ইউনিয়নের শ্রীরামপুর এলাকায় বজ্রপাতে দুইজন হলেন, সদর উপজেলার শ্রীরামপুর গ্রামের মৃত হজরত আলীর ছেলে রেজাউল হোসেন (৪০) ও মোতালেব হোসেনের ছেলে মো. মুসা (৩৫)।
অপরদিকে নওগাঁর পোরশা উপজেলায় বজ্রপাতে নিহত দুইজন হলেন, উপজেলার নিতপুর ইউনিয়নের গানুইর গ্রামের আজাদ হোসেনের ছেলে শফিনুর রহমান বিষু (৩২) এবং জেলার শিবগঞ্জ থানার পিঠাইল গ্রামের মতিউর রহমানের ছেলে হাসান আলী (৩০)।

এসময় এ সময় আহত হয়েছেন হজরত আলী (৬০) নামের আরেকজন। তাকে উদ্ধার করে স্থানীয়রা চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর হাসপাতালে ভর্তি করেছে।এছাড়া রাজশাহীর বানেশ্বরে সাবেক ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) চেয়ারম্যান আব্দুস সোবহান সরকার ঝড়ের কবলে পড়ে মারা গেছেন বলে জানা গেছে।

শুক্রবার সন্ধ্যায় ঝড়ের সময় তিনি বানেশ্বর বাজারের একটি মুড়ির মিলে ছিলেন। পরে ঝড় শুরু হলে একটি ইট এসে তার মাথার ওপর পড়ে।
এতে তিনি গুরুতর আহত হন। তাকে উদ্ধার করে পুঠিয়া স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিলে সেখানে তার মৃত্যু হয়।

ব্রেকিং নিউজ : আরব আমিরাতে দুবাইয়ে বিমান বিধ্বস্ত ,নিহত পাইলটসহ সকল যাত্রী !

দুবাইয়ে ডিএ৪২ মডেলের একটি বিমান বিধ্বস্ত হয়ে তিন ব্রিটিশ এবং দক্ষিণ আফ্রিকার নাগরিকসহ পাইলট নিহত হয়েছেন। আরব আমিরাতের রাষ্ট্রীয় সংবাদ সংস্থা এমিরেটস নিউজ এজেন্সি এ তথ্য নিশ্চিত করেছে।

বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, বিমানটি আন্তর্জাতিক হাব থেকে পাঁচ কিলোমিটার দক্ষিণে বিধ্বস্ত হয়েছে।
বৃহস্পতিবার (১৬ মে) যুক্তরাজ্যের নিবন্ধিত ডায়মন্ড এয়ারক্রাফটের একটি ছোট বিমান দুবাই আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের কাছে বিধ্বস্ত হয়।
এমিরেটস নিউজ এজেন্সির প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, একটি মিশনে অংশ নেয়া চার সিটের বিমানটির সব আরোহী নিহত হয়েছে। বিমানটিতে তিন ব্রিটিশ নাগরিক এবং দক্ষিণ আফ্রিকার এক নাগরিক ছিলেন।

বিধ্বস্ত বিমানটি ইংল্যান্ডের ওয়েস্ট সাসেক্সের শোরহাম বিমাবন্দরের ফ্লাইট ক্যালিব্রেশন পরিষেবাগুলির অন্তরর্ভুক্ত ছিল।
স্থানীয় গণমাধ্যম জানায়, বিমানটি প্রায় স্থানীয় সময় ১৯: ৩০ এই দুর্ঘটনা ঘটে। এতে পাইলট, সহ-পাইলট এবং দুই যাত্রী নিহত হয়েছে।
জেনারেল সিভিল এভিয়েশন অথরিটি (জিসিএএ) জানিয়েছে, প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে, কারিগরি ত্রুটির কারণে বিমানটি বিধ্বস্ত হয়েছে। এই দুর্ঘটনার পর পরই সতর্কতামূলক ব্যবস্থা নেয়া হয়।

এছাড়া দুবাই আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর ৪৫মিনিট বদ্ধ ছিল। প্রসঙ্গত, দুবাই আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর বিশ্বের অন্যতম ব্যস্ত বিমান চলাচল কেন্দ্র।

ব্রিটিশ পররাষ্ট্র দফতরের এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, দুবাইয়ে একটি ছোট বিমান বিধ্বস্ত হওয়ার খবর শুনে আমরা এমিরাত কর্তৃপক্ষের সাথে ঘনিষ্ঠভাবে কাজ করছি।

আজ ১৬ /০৫/২০১৯ আরব আমিরাত ও সৌদি আরব সহ বিভিন্ন দেশের স্বর্ণের রেট দেখে নিন !

এই মুহূর্তে দেশে প্রবাসে যে যেখানে আছেন আমার বাংলাদেশ এ স্বাগতম ! ধনী থেকে গরিব সবাই চায় এটি কাছে রাখতে । কিন্তু অনেক দাম হওয়ার কারনে শুধু ধনী বাক্তিরাই সেটি সংরক্ষন করতে পারে। তবে যারা দেশের বাইরে থাকেন তারাও মাঝে মাঝে ভাল স্বর্ণ কম মূল্যে কিনতে পারে। তার প্রবাসী ভাইদের জন্য এটি বেশ।

ভরি =১১.৬৫৪ গ্রাম

বাংলাদেশ: প্রতি গ্রাম স্বর্ণের দাম (24 ক্যারাট)  =  3535  টাকা । দুবাই: প্রতি গ্রাম স্বর্ণের দাম (24 ক্যারাট) – 1 গ্রাম =  155.65 দেরহাম,  (22 ক্যারাট) – 1 গ্রাম = 146.25 দেরহাম । সৌদি আরব: প্রতি গ্রাম স্বর্ণের দাম (24 ক্যারাট) – 1 গ্রাম =  157.10 সৌদি রিয়্যাল, (22 ক্যারাট) – 1 গ্রাম = 148.20 সৌদি রিয়্যাল ।

কাতার: প্রতি গ্রাম স্বর্ণের দাম (24 ক্যারাট) – 1 গ্রাম = 151.15 কাতারি রিয়্যাল ।

সিঙ্গাপুর: প্রতি গ্রাম স্বর্ণের দাম (24 ক্যারাট) – 1 গ্রাম = 56.45 ডলার ।

মালয়েশিয়া: প্রতি গ্রাম স্বর্ণের দাম (24 ক্যারাট) – 1 গ্রাম = 170.20 রিংগিত ।

ইংল্যান্ড: প্রতি গ্রাম স্বর্ণের দাম (24 ক্যারাট) – 1 গ্রাম = 30.30 ব্রিটেন পাউন্ড ।

বাহরাইন: প্রতি গ্রাম স্বর্ণের দাম (24 ক্যারাট) – 1 গ্রাম = 15.85 দিনার ।

ওমান: প্রতি গ্রাম স্বর্ণের দাম (24 ক্যারাট) – 1 গ্রাম = 16.49 রিয়াল ।

অস্ট্রেলিয়া: প্রতি গ্রাম স্বর্ণের দাম (24 ক্যারাট) – 1 গ্রাম = 58.68 অস্ট্রেলিয়ান ডলার ।

কুয়েত: প্রতি গ্রাম স্বর্ণের দাম (24 ক্যারাট) – 1 গ্রাম = 12.23 দিনার ।

কানাডা :  প্রতি গ্রাম স্বর্ণের দাম (24 ক্যারাট) – 1 গ্রাম =  55.28 কানাডিয়ান ডলার ।

আমেরিকা: প্রতি গ্রাম স্বর্ণের দাম (24 ক্যারাট) – 1 গ্রাম = 41.43 আমেরিকান ডলার ।

যেকোনো সময় স্বর্ণের রেট উঠানামা করতে পারে।প্রতিদিন আপডেট পেতে আমাদের পেজে লাইক, কমেন্ট এবং শেয়ার করে এক্টিভ থাকুন। যে যেখানে আছেন নিরাপদে থাকুন, আনন্দময় হোক আপনার সারাদিন।নতুন নতুন খবর পেতে সবসময় আমার বাংলাদেশের এর সঙ্গে থাকুন। ধন্যবাদ ।