সহবাসের পর গোসল না করে সেহেরি খেলে কি রোজা হবে?

রমজানে রাতের বেলা স্বপ্নদোষ বা স্বামী স্ত্রী সহবাসের পর অনেক সময় গোসলের সময় থাকে না। কিন্তু এ দুই অবস্থায় গোসল করা ফরজ। এ ফরজ গোসল না করে যদি সেহরি খাওয়া হয় তাহলে কি রোজার কোনো ক্ষতি হবে। এই নিয়ে অনেকের মনে দ্বিধা দ্বন্দ্ব রয়েছে। আসুন জেনে রাখি মাসআলাটি।

ফিকহবিদদের মতে, গোসল ফরজ হওয়া সত্ত্বেও গোসল না করেই সেহরি খেয়ে রোজা রাখলে রোজা সহি হবে। তবে ফজরের ওয়াক্ত থাকতেই গোসল করে সময় মতো নামাজ আদায় করে নিতে হবে। সব সময়ই মনে রাখতে হবে, গোসল ফরজ হওয়া সত্ত্বেও বিনা ওজরে গোসল না করে অপবিত্র অবস্থায় এক ওয়াক্ত নামাজের সময় অতিবাহিত হয়ে যাওয়া মারাত্মক গোনাহ। (মুসলিম হাদিস নং ২৫৯২, বাদায়ে, ১/১৫১)

বিষয়টির প্রমাণ রাসুলের সহধর্মিণী উম্মুল মোমিনীন আয়েশা রা. বর্ণিত হাদিস— ﻛﺎﻥ ﺍﻟﻨﺒﻲ ﺻﻠﻰ ﺍﻟﻠﻪ ﻋﻠﻴﻪ ﻭ ﺳﻠﻢ ﻳﺪﺭﻛﻪ ﺍﻟﻔﺠﺮ ﻓﻲ ﺭﻣﻀﺎﻥ ﻭﻫﻮ ﺟﻨﺐ ﻣﻦ ﻏﻴﺮ ﺣﻠﻢ، ﻓﻴﻐﺘﺴﻞ ﻭﻳﺼﻮﻡ .

রমজান মাসে স্বপ্নদোষ ব্যতীতই অপবিত্র অবস্থায় রাসুল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম সুবহে অতিক্রম করতেন। অত:পর তিনি গোসল করে রোজা রাখতেন। [বোখারি : ১৮২৯, মুসলিম : ১১০৯।] রাসুলের অপর স্ত্রী উম্মুল মোমিনীন উম্মে সালামা রা. বর্ণনা করেন:— ﻛﺎﻥ ﻳﺪﺭﻛﻪ ﺍﻟﻔﺠﺮ ﻭﻫﻮ ﺟﻨﺐ ﻣﻦ ﺃﻫﻠﻪ ﺛﻢ ﻳﻐﺘﺴﻞ ﻭﻳﺼﻮﻡ.

সহবাসের ফলে না-পাকি অবস্থায় রাসুল সুবহে সাদিক অতিক্রম করতেন, অত:পর গোসল করে রোজা রাখতেন। [বোখারি : ১৯২৬]

একই হুকুম-ভুক্ত হায়েজ ও নেফাসগ্রস্ত নারীরা। ফজর হওয়ার পূর্বেই যদি তারা পবিত্র হয়ে যায়, তবে গোসল না করেই নিয়ত করে নিবে।

অদিতি আইনগতভাবে স্ত্রী না থাকলেও সে আমার সন্তানের মা: অপূর্ব

লকডাউনের মধ্যে শোবিজ পাড়ায় ভাঙনের সুর। জনপ্রিয় অভিনেতা জিয়াউল ফারুক অপূর্ব ও তার স্ত্রী নাজিয়া হাসান অদিতি তাদের ৯ বছরের সংসারের ইতি টেনেছেন সম্প্রতি। অপূর্বের স্ত্রী অদিতি বিচ্ছেদের বিষয়টি প্রকাশ্যে আনেন।

ফেসবুক পোস্টে তিনি লিখেছেন, ‘অপূর্ব একজন আদর্শ বাবা, প্রেমময় ভাই, দায়িত্বশীল পুত্র এবং একজন ভালো মানুষ। তিনি মিলিয়ন ফ্যানদের কাছে একজন সুপার ট্যালেন্টেড ব্যক্তি, এটা তিনি নিজেই অর্জন করেছেন। আমার মনে হয়, তিনি সেখানেই সবচেয়ে যোগ্য। ফলে তার ব্যক্তিগত জীবন নিয়ে নয়, দয়া করে তার অসাধারণ কাজগুলো নিয়ে তাকে বিচার করুন।’ নিজেদের একসঙ্গে না থাকতে পারা প্রসঙ্গে তার ভাষ্য, ‘তিনি আমাকে জীবনের সেরা উপহার দিয়েছেন, তা হলো আমার ছেলে আয়াশ। দুর্ভাগ্যক্রমে অসংখ্য কারণে একসঙ্গে থাকছি না আমরা। তবে আমি সবসময় তার সুখী ও সমৃদ্ধ জীবন কামনা করছি।’

অদিতি আরও বলেন, ‘দয়া করে বিয়ে বিচ্ছেদের সিদ্ধান্তের ওপর আমাদের কাউকে বিচার করবেন না। আপনারা সবাই আমাদের সুখে-দুঃখে সবসময় ভালোবেসেছেন, সমর্থন দিয়েছেন। আমরা আশা করি, তা অব্যাহত থাকবে।’

বিচ্ছেদের খবর নিয়ে এরইমধ্যে নেতিবাচকভাবে উপস্থাপন শুরু হয়েছে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ও গণমাধ্যমে। যা নিয়ে সবাইকে সচেতন থাকতে বলেছেন অপূর্ব।

তিনি বলেন, ‘ব্যক্তিগত জীবন নিয়ে গসিপ করা এবং তীর্যক, মিথ্যা বানোয়াট মন্তব্য করে কষ্ট বাড়িয়ে দেওয়ার মতো খারাপ কাজ থেকে সবাই বিরত থাকবেন। এর মধ্যে রসালো কোনো গল্প তৈরি করে সংবাদ করার চেষ্টা করবেন না, প্লিজ।’

আরও পড়ুন: সমতার ভিত্তিতে সুলভ মূল্যে করোনার ওষুধ দিতে হবে: হু’কে স্বাস্থ্যমন্ত্রী

অপূর্ব আরও বলেন, ‘অত্যন্ত সম্মানের সঙ্গে জানাচ্ছি, আমি এবং আমার স্ত্রী অদিতি অত্যন্ত শান্তিপূর্ণ সমাধানের মধ্য দিয়ে আমাদের সম্পর্কের আইনগতভাবে ইতি টেনেছি। কোনো সংবাদমাধ্যম এই ব্যাপারটাতে তৃতীয় কাউকে জড়িয়ে কোনো ধরনের ভুল সংবাদ প্রকাশ করলে আমি তাদের বিরুদ্ধে আইসিটি অ্যাক্টে আইনগত ব্যবস্থা নেবো। অলরেডি প্রকাশিত কিছু সংবাদের লিঙ্ক আমি সংগ্রহ করেছি। এখানে আরও উল্লেখ্য, আমি অদিতিকে সম্মান করি এবং আজীবন করবো। সুতরাং কোনোভাবেই অদিতিকে অসম্মান করে তার পাশে অন্য কারও নাম আমি সহ্য করবো না। ভুলে যাবেন না অদিতি আইনগতভাবে স্ত্রী না থাকলেও সে আমার সন্তানের মা।’

ইত্তেফাক/আরআই

বাংলাদেশে যে ওষুধে খেয়ে ‘করোনায় সুস্থের হার বাড়ছে’ !

ইভারমেকটিন, ডক্সিসাইক্লিন ব্যবহারে করোনা মুক্তির হার বেড়েছে কয়েক গুণ। রাজধানীর কেন্দ্রীয় পুলিশ হাসপাতালে দেড় হাজার আক্রান্ত রোগীর ওপর এই ওষুধ ব্যবহার করে এমন দাবি করছেন চিকিৎসকরা।

তবে বিশেষজ্ঞরা এর ব্যবহারকে স্বাগত জানালেও গুরুত্ব দিচ্ছেন গবেষণায়। স্বাস্থ্য বিভাগও বলছে, বিষয়টি নিয়ে কাজ করছেন তারা।

করোনায় ফ্রন্ট লাইন যোদ্ধাদের মধ্যে সবচেয়ে বেশি আক্রান্ত পুলিশ। সংখ্যাটা দুই হাজারের বেশি। প্রথমদিকে প্রতিদিন গড়ে বিশ থেকে ত্রিশজন রোগী সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন। তবে গত চার পাঁচদিনে সেই সংখ্যা প্রতিদিন প্রায় এক’শ।

হাসাপাতালের চিকিৎসকদের দাবি, ইভারমেকটিন, ডক্সিসাইক্লিন ব্যবহারের ফলেই বাড়ছে সেরে ওঠা রোগীর সংখ্যা।

রোগী শনাক্তের প্রথম দিনেই দেয়া হচ্ছে দুটি ইভারমেকটিন আর ডক্সিসাইক্লিন দেয়া হচ্ছে সাত দিনে সাতটি। তাতেই মিলছে সুফল।

কেন্দ্রীয় পুলিশ হাসপাতালের চিকিৎসক পুলিশ সুপার মো. এমদাদুল হক বলেন, ‘আমরা লক্ষ করছি কয়েকদিন ধরে রোগী সেরে উঠছে প্রতিদিন প্রায় ১০০ করে। দুটি ইভারমেকটিন, ডক্সিসাইক্লিন ১০০ মিলিগ্রাম এই ওষুধে সুফল মিলছে।’

এমন জরুরি সময়ে এসব ওষুধ ব্যবহারে নিষেধ নেই বিশেষজ্ঞদের। তবে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেয়ার আগে বিস্তর গবেষণার তাগিদ তাদের।

বাংলাদেশ ফার্মাকোলজিক্যাল সোসাইটি চেয়ারম্যান অধ্যাপক ডা. সায়েদুর রহমান বলেন, ‘এ ওষুধ দিয়ে ভালো ফলাফল পাওয়া যাচ্ছে এ ধরনের প্রচারণা বিভ্রান্তি সৃষ্টি করবে। তাই গবেষণা করা ফলাফলের জন্য অপেক্ষা করা প্রয়োজন।’

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের ভারপ্রাপ্ত মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. নাসিমা সুলতানা বলছেন, বিষয়টি আমলে নিয়ে কাজ করছেন তারা।

প্রায় দেড়মাস বেশ কয়েকজন রোগীর ওপর গবেষণা শেষে দেশে এই ওষুধ দুটি ব্যবহারের সুফল তুলে ধরেন বক্ষব্যাধি বিশেষজ্ঞ অধ্যাপক ডা. তারেক আলম।

যে কারণে ভেঙে গেল অপূর্বর দ্বিতীয় সংসার |ডিভোর্সের কারন জানালনে অদিতি |

২০১০ সালের ১৯ আগস্ট অভিনেত্রী সাদিয়া জাহান প্রভাকে বিয়ে করেছিলেন অপূর্ব। ২০১১ সালের ফেব্রুয়ারিতেই ডিভোর্স হয়ে যায় তাদের। ওই বছরের ১৪ জুলাই অপূর্ব পারিবারিক ভাবে নাজিয়া হাসান অদিতিকে বিয়ে করেন। এরপর দীর্ঘ ৯ বছর সংসারের পরভেঙে গেছে অভিনেতা জিয়াউল ফারুক অপূর্ব ও নাজিয়া হাসান অদিতির সংসার। রোববার (১৭ মে) ফেসবুকের মাধ্যমে বিষয়টি সবাইকে জানিয়েছেন অদিতি।বিচ্ছেদ নিয়ে বেশ কয়েকবার অদিতির সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে এই নিয়ে তেমন কোনো মন্তব্য করতে রাজি হননি তিনি। তবে ফেসবুকে স্ট্যাটাসের মাধ্যমে অপূর্বের সুখী জীবন কামনা করেছেন তিনি।

নাজিয়া হাসান অদিতির স্ট্যাটাসটি পাঠকদের জন্য তুলে ধরা হলো:-
মোহাম্মদ জিয়াউল ফারুক অপূর্ব একজন অসাধারণ বাবা, স্নেহশীল ভাই, দায়িত্বশীল পুত্র এবং একজন ভালো মানুষ। নিজের অসাধারণ মেধা দিয়ে তিনি লক্ষ লক্ষ ভক্ত তৈরি করেছেন। তিনি যেখানে থাকার যোগ্য, ঠিক সেখানেই রয়েছেন। ব্যক্তিগত জীবন দিয়ে নয়, দয়া করে তার অসাধারণ কাজগুলো দিয়ে তাকে বিচার করুন।দুর্ভাগ্যবশত আমরা এখন আর একসঙ্গে থাকছি না, এর অসংখ্য কারণ রয়েছে। তবে আমি তার জন্য সুখী ও সমৃদ্ধ জীবন

কামনা করছি। তিনি আমাকে আমার ছেলে আয়াশ এবং পরিবারের সদস্যদের অনেক ভালোবাসা দিয়েছেন। এটা আমার কাছে তার থেকে পাওয়া সেরা উপহার।দয়া করে এই সিদ্ধান্ত দিয়ে আমাদের বিচার করবেন না। আপনারা আমাদের সবসময় ভালোবেসেছেন এবং সমর্থন দিয়েছেন। আশা করছি আপনারা এই ধারা অব্যাহত রাখবেন।এছাড়া তাদের নিয়ে ভুয়া সংবাদ প্রকাশ না করার জন্যও অনুরোধ করেছেন অদিতি।

সৌদিতে একদিনে আক্রান্ত ১৭শ’

সৌদি আরবে দিন দিন বাড়ছে করোনার প্রকোপ। সর্বশেষ শুক্রবার (০৮ মে) দেশটিতে সংক্রমিত রোগী শনাক্ত হয়েছেন ১ হাজার ৭০১ জন।

সৌদি স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় থেকে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

শুক্রবারের এই সংখ্যাসহ সব মিলিয়ে দেশটিতে শনাক্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৩৫ হাজার ৪৩২ জনে। এদের মধ্যে সুস্থ হয়ে ঘরে ফিরেছেন ৯,১২০ জন

দেশটিতে মোট আক্রান্তের মধ্যে বাংলাদেশিদের সংখ্যা উল্লেখযোগ্য। করোনায় সৌদিতে এ পর্যন্ত মৃত্যু হয়েছে ২২৯ জনের। এর মধ্যে ৬৬ জন বাংলাদেশি।

স্কুলের শ্রেণিকক্ষে মিলল নিখোঁজ নবম শ্রেণির ছাত্রীর মস্তকবিহীন দেহ !

চাঁদপুরে নিখোঁজের ২৫ দিন পর শ্রেণি কক্ষ থেকে নবম শ্রেণির ছাত্রী শারমিন আক্তারের মস্তকবিহীন মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। বুধবার (২২ এপ্রিল) দুপুরে উপজেলার মমরুজকান্দি সপ্তগ্রাম ওক্সফোর্ড একাডেমি নামে একটি স্কুলের শ্রেণি কক্ষ থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করা হয়।

এর আগে, গত ২৫ দিন ধরে নিখোঁজ ছিল ওই ছাত্রী। নিখোঁজের ঘটনায় তার মা রোকেয়া বেগম বাদী হয়ে থানায় সাধারণ ডায়েরি করেছিলেন।

পুলিশ জানিয়েছে, সকালে একদল কিশোর মমরুজকান্দি উচ্চ বিদ্যালয়ের মাঠে ক্রিকেট খেলতে যায়। এ সময় ক্রিকেটের ব্যাটের আঘাতে বলটি পাশের ওক্সফোর্ড একাডেমির একটি কক্ষে ঢুকে পড়ে। ওই বল কুড়াতে গিয়ে কিশোরদের চোখে ধরা পড়ে একটি মরদেহ। বিষয়টি তারা আশপাশের লোকজনদের জানায়। পরে গ্রামের লোকজন থানা পুলিশকে সংবাদ দেয়।

মতলব উত্তর থানার ওসি নাসিরউদ্দিন মৃধা জানান, পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে মস্তকবিহীন মরদেহটির সুরতহাল তৈরি করছিল। এ সময় পাশের গ্রাম থেকে আসা রোকেয়া বেগম নামে এক নারী নিশ্চিত করেন, লাশটি তার মেয়ে নিখোঁজ শারমিন আক্তার কাকলীর।

ওসি আরও জানান, গত ২৮ মার্চ মেয়ে নিখোঁজের ঘটনায় মা রোকেয়া বেগম থানায় সাধারণ ডায়েরি করেন। খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, শারমিন আক্তারের বাবা বজলু বেপারী বিদেশ থাকেন। দুই বোন, এক ভাইয়ের মধ্যে কাকলী সবার বড়। সে মমরুজকান্দি উচ্চ বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণির ছাত্রী ছিল। এই ঘটনায় শারমিন আক্তার কাকলীর মা বুধবার দুপুরে অজ্ঞাতনামাদের আসামি করে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেছেন।

পুলিশ মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য চাঁদপুর জেনারেল হাসপাতাল মর্গে পাঠিয়েছে।

আরব আমিরাতে পবিত্র রমজান উপলক্ষে ৮৭৪ কারা বন্দিদের মুক্তি দেওয়ার আদেশ দিয়েছে।

আজ বুধবার সংযুক্ত আরব আমিরাতের ভাইস প্রেসিডেন্ট এবং সংযুক্ত আরব আমিরাতের প্রধানমন্ত্রী এবং দুবাইয়ের শাসক শেখ মাহমুদ বিন রশিদ আল মাকতুম পবিত্র রমজান উপলক্ষে ৮৭৪ জন কারা বন্দিদের মুক্তি দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন।

দুবাইয়ের অ্যাটর্নি জেনারেল, চ্যান্সেলর এসসাম ইসা আল হুমায়দান বলেছেন, বন্দীদের ক্ষমা করার আদেশের ফলে তাদের পরিবার সুখ বয়ে আনবে এবং ক্ষমা করা ব্যক্তিদের জীবন নতুন করে শুরু করতে এবং সমাজে পুনরায় একত্রিত হতে সহায়তা করবে।

অ্যাটর্নি জেনারেল আরও বলেছিলেন যে শেখ মোহাম্মদের আদেশ বাস্তবায়নে পাবলিক প্রসিকিউশন দুবাই পুলিশের সাথে সমন্বয় করে আইনী প্রক্রিয়া শুরু করেছে।

রাষ্ট্রপতি, হাইসনেস শেখ খলিফা বিন জায়েদ আল নাহায়ান সংযুক্ত আরব আমিরাতে বিভিন্ন সাজা প্রদানকারী ১,৫১১ জন বন্দীকে মুক্তি দেওয়ার আদেশ দেওয়ার পরে এই ঘোষণাটি প্রকাশিত হয়।

সুপ্রিম কাউন্সিলের সদস্য ও আজমানের শাসক হুজুর শেখ হুমাইদ বিন রশিদ আল নওমী ১২৪ জন বন্দীকে মুক্তি দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন, এবং শেখ সৌদ বিন রশিদ আল মুআলা, সুপ্রিম কাউন্সিলের সদস্য এবং উম্মে আল কাওয়াইনের শাসক এছাড়াও বেশ কয়েকজন বন্দীকে মুক্তি দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন।

একদিনেই ৫৪০ জনের মৃ’ত্যু যুক্তরাষ্ট্রে !!

করোনাভাইরাসে আ’ক্রা’ন্ত হয়ে গত সোমবার যুক্তরাষ্ট্রে মা’রা গেছেন পাঁচশ ৪০ জন। দেশটিতে করোনা রোগী শনাক্তের পর গতকালই সবচেয়ে বেশি সংখ্যক মানুষ মা’রা গেল। এতে করে করোনা আ’ক্রা’ন্ত হয়ে যুক্তরাষ্ট্রে মৃ’তের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়াল তিন হাজার একশ ৬৬ জনে।

সে দেশে এখন পর্যন্ত এক লাখ ৬৪ হাজার দু’শ ৫৩ জন আ’ক্রা’ন্ত হিসেবে চিহ্নিত হয়েছে। আ’ক্রা’ন্তদের মধ্যে তিন হাজার পাঁচশ ১২ জনের অবস্থা গুরুতর। পরিস্থিতি বিবেচনায় রেখে এক হাজার শয্যাবিশিষ্ট নৌ-বাহিনীর ভাসমান হাসপাতাল আশার আলো দেখাচ্ছে নিউইয়র্কের বাসিন্দাদের।

জানা গেছে, তেলের জাহাজ নতুনভাবে রঙ করে করোনা মোকা’বেলার ল’ড়াইয়ের জন্য প্রস্তুত করা হয়েছে। জাহাজটি ভেসে যাওয়ার সময় নিউইয়র্ক এবং নিউজার্সির বাসিন্দারা হাডসন নদীর তীরে দাঁড়িয়ে উল্লাস করছিল।

মার্কিন নৌ-বাহিনী বলছে, করোনাভাইরাসে আ’ক্রা’ন্ত হয়নি, এমন রোগীদের চিকিৎসা দেওয়া হবে সেই জাহাজে। যাদের সার্জারি দরকার এবং বিশেষ সেবা দরকার, তাদের ঝুঁকিমুক্ত রাখতে হাসপাতাল থেকে সরিয়ে নিয়ে এসে চিকিৎসা দেওয়া হবে।

নিউইয়র্কের মেয়র বিল ডে ব্লাসিও বলেন, এটি একটি যু’দ্ধকালীন পরিস্থিতি এবং আমাদের সবাইকে একসাথে ল’ড়তে হবে।

নিজের অভিজ্ঞতা জানালেন প্রধানমন্ত্রীকে ঢাকায় শনাক্ত হওয়া প্রথম করোনা রোগী ফয়সাল সুস্থ হয়ে

জার্মানিতে লেখাপড়া করা শেখ ফয়সাল হোসেন। আজ মঙ্গলবার (৩১ মার্চ) প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে ভি’ডিও কনফারেন্সর মাধ্যমে তার অভিজ্ঞতার কথা জানান।

করোনা থেকে সুস্থ হয়ে কনফারেন্সে শেখ ফয়সাল হোসেন বলেন, আমি জার্মানিতে পড়ালেখা করি, গত ১ মার্চ দেশে আসি পরিবারের সাথে সময় কাটানোর জন্য। ১০ দিন পর আমার শরীর খুব খারাপ মনে হয়। করোনার লক্ষণ দেখা দিলে আমি নিজে থেকে আইইডিসিআর যাই। সত্যি বলতে আমি প্রথম একটু ভ’য় পেয়েছিলাম। যে এখানে আমি জার্মানির মতো চিকিৎসা সেবা পাবো কি না?

শেষ পর্যন্ত আইইডিসিআর আমাকে যে নির্দেশনা দেয় সেই নির্দেশনা মোতাবেক আমি কুয়েত মৈত্রী হাসপাতালে কোয়ারেন্টাইনে থাকি। আমার পরিবারের সদস্য এবং আমি যাদের সঙ্গে দেখা করেছি তাদেরও হোম কোয়ারেন্টাইনে রাখে। চিকিৎসার পর কয়েক দফা টেস্টে পর যখন নেগেটিভ আসে, আমি পরিবারের কাছে ফিরে যাই। আমার পরিবারের অন্য কারো কোনো সমস্যা হয়নি।

আইইডিসিআর এর প্রসঙ্গে তিনি বলেন, এখান থেকে ডাক্তার ফার্সি আমার সঙ্গে নিয়মিত যোগাযোগ রেখেছেন। খোঁজ খবর নিয়েছেন। আমি সত্যি খুশি। যে ধরনের চিকিৎসা দেয়া হয়েছে আমি এজন্য শুকরিয়া আদায় করছি। প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনায় আমি দেশবাসীকে বলবো ঘরে থাকুন। যতদিন ঘরে থাকতে বলে ঘরে থাকুন। সবাই ঘরে থাকলে এরকম পরিস্থিতি মো’কাবিলা করতে পারবো।

পরে ফয়সালের কাছে প্রধানমন্ত্রী জানতে চান, তোমার পরিবারের কারো সমস্যা হয়নি? জবাবে ফয়সাল বলেন, না। এরপর প্রধানমন্ত্রী সন্তোষ প্রকাশ করেন। ধন্যবাদ দিয়ে বিদায় নেন ফয়সাল।

কঙ্গোর সাবেক প্রেসিডেন্ট করোনায় মারা গেলেন

মরণঘাতী করোনা ভাইরাস বা কোভিড-১৯ এ আক্রান্ত হয়ে কঙ্গোর সাবেক প্রেসিডেন্ট জ্যাকস জোয়াকুইম ইয়োম্বি ওপাঙ্গো মারা গেছেন। সোমবার (৩০ মার্চ) ফ্রান্সের রাজধানী প্যারিসের একটি হাসপাতালে মারা যান তিনি।জ্যাকস জোয়াকুইম ইয়োম্বি ওপাঙ্গোর পরিবার সংবাদমাধ্যমকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছে বলে বিভিন্ন আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমে খবর প্রকাশ করা হয়েছে।

জ্যাকস জোয়াকুইম ইয়োম্বি ওপাঙ্গো ১৯৭৭ সাল থেকে ১৯৭৯ সাল পর্যন্ত কঙ্গোর নের্তৃত্ব দেন। ওপাঙ্গোর বয়স হয়েছিল ৮১ বছর।তার ছেলে জ্যাঁ জ্যাকস বলেন, করোনায় আক্রান্ত হওয়ার আগে থেকেই তিনি অসুস্থ ছিলেন।